বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ পড়তেই ভারতীয় দলকে নিয়ে বি’স্ফোরক মন্তব্য করে দিলেন অক্ষর প্যাটেল!

অক্ষর প্যাটেল নাকি আশ্বিন কে খেলবেন ভারতীয় দলে সেই নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে জল্পনা চলছিল। বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগেই ভারতীয় দলে বিতর্কের আঁচ। বৃহস্পতিবার শেষ মুহূর্তে দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে অক্ষর পটেলকে। তাঁর জায়গায় নেওয়া হয়েছে রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে। সেই দল ঘোষণার ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই ইঙ্গিতপূর্ণ পোস্ট করলেন অক্ষর। পরে সেই পোস্ট মুছেও দিলেন। ফলে অক্ষরকে নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে।শুক্রবার দু’টি আলাদা ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে দু’টি ইঙ্গিতপূর্ণ বার্তা লেখেন অক্ষর।

প্রথম স্টোরিতে তিনি লেখেন, “আমার উচিত ছিল কমার্সের বদলে সায়েন্স নিয়ে পড়াশোনা করা এবং এমন একজনকে ভাড়া করা, যে আমার হয়ে গলা ফাটাতে পারবে।” পরের স্টোরিতে অ্যানিমেশনে তৈরি করা একটি কঙ্কালের ছবি পোস্ট করেন, যেটি কাঁচি দিয়ে হৃদযন্ত্র কাটছে।অনেকেরই ধারণা, বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ পড়ার পর তিনি কতটা হতাশ সেটা বোঝাতেই এই স্টোরি পোস্ট করেছেন। স্টোরির বাক্যগুলি নিয়ে তৈরি হয়েছে জল্পনা।

```

অশ্বিন নিজে বিজ্ঞানের ছাত্র। অক্ষর বাণিজ্যের। তা হলে কি সেই প্রসঙ্গ নিয়ে ভারতের অফস্পিনারকে কটাক্ষ করেছেন অক্ষর? নাকি কমার্সের থেকে সায়েন্সের কদর বেশি, সেই দিকটি তুলে ধরতে চেয়েছেন। পাশাপাশি, অশ্বিনের সঙ্গে রোহিতের দীর্ঘ দিনের যোগাযোগ রয়েছে। প্রাথমিক দল ঘোষণার পর অনেকে অশ্বিনের হয়ে মুখও খুলেছেন। বাক্যের দ্বিতীয় অংশে কি সেটাই বোঝাতে চেয়েছেন অক্ষর? কিন্তু পরে দুটি স্টোরিই মুছে ফেলায় রহস্য বেড়েছে। বোর্ডের তরফে চাপ দিয়ে এ কাজ করানো হয়েছে কি না, সেই প্রশ্ন উঠছে।

এশিয়া কাপের সুপার ফোরে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ম্যাচে চোট পান অক্ষর। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ফাইনাল থেকে ছিটকে যান এবং দেশে ফেরেন। বিশ্বকাপেও তাঁর খেলা নিয়ে প্রশ্ন তৈরি হয়। তবে তার আগে থেকেই অনেকে অক্ষরের বদলে অশ্বিনকে নেওয়ার দাবি তুলছিলেন। বৃহস্পতিবার বিশ্বকাপের চূড়ান্ত দলেও সেটাই দেখা গিয়েছে। বলা হয়েছে, অক্ষর সময় মতো ফিট হতে পারবেন না বুঝেই অশ্বিনকে নেওয়া হয়েছে।

```

যদিও আশ্বিনের পাশাপাশি এক্ষেত্রে যোগ্য দাবিদার ছিল ওয়াশিংটন সুন্দর যিনি জায়গা না পেয়ে ভীষণ হতাশ হয়েছেন। তবে সব দিক দিয়ে দেখতে গেলে সবাইকে খুশি করে তো আর বিশ্বকাপের দল তৈরি করা যায় না এ ক্ষেত্রে সিলেক্টাররা যখন তা মনে করেছেন সেরকমটা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, এটা মেনে নিতেই হবে।

এমনকি বাংলাদেশ দলের তামিম ইকবালকে বাদ দেওয়া নিয়েও তীব্র সমালোচনা এবং ঝামেলা সৃষ্টি হয়েছে বাংলাদেশ জুড়ে। যদিও ভারতীয় দল যে খুব একটা খারাপ হয়েছে তা মোটেও নয়, যথেষ্ট শক্তিশালী এবারের টিম ইন্ডিয়া।