অবশেষে মিটলো সমস্যা,চোট সারিয়ে অস্ট্রেলিয়া দলে যুক্ত হচ্ছেন দলের নাম্বার ১ ব্যাটসম্যান !

চলতি বিশ্বকাপে একেবারেই ভালো ফর্মে নেই পাঁচ বারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া দল। তারা টুর্নামেন্টের শুরুতেই প্রথম দুই ম্যাচে হেরে বসে রয়েছে। ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে বড় ব্যবধানের হেরে গিয়ে চলতি বিশ্বকাপে তাদের সেমিফাইনালে যাওয়া ইতিমধ্যেই অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। ভারতের মাটিতে তাদের জঘন্য পারফরম্যান্সের জন্য দায়ী ব্যাটিং ব্যর্থতা। তবে এবার একটু স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারে তারা। একদিকে যেমন শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের প্রথম জয় এসেছে অস্ট্রেলিয়া দলে, পাশাপাশি এবার অস্ট্রেলিয়া দলে যুক্ত হতে চলেছে দলের অন্যতম নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান।

বিশ্বকাপে সমস্যা থেকে কিছুটা হলেও মুক্তি পাবে অস্ট্রেলিয়া কারণ প্রত্যাশার চেয়ে দ্রুত সেরে উঠছেন ট্র্যাভিস হেড। তিনি ফিরেছেন ব্যাটিং অনুশীলনে। বাঁ-হাতের চোট কাটিয়ে চলতি সপ্তাহের শেষ দিকে তিনি যোগ দেবেন অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ দলে। ভারতে উড়ে আসতে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি সেরে নিচ্ছেন। শুরু থেকেই বিশ্বকাপের জন্য ঘোষিত অস্ট্রেলিয়ার ১৫ জনের দলে রাখা হয়েছে হেডকে। এমনকি তার বদলে অন্য কোন ব্যাটসম্যানকে সাথে নেয়নি অস্ট্রেলিয়া এবং তারা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছিল যে ট্রাভেস হেড সুস্থ হলে সরাসরি তাকে দলে অন্তর্ভুক্ত করা হবে এতটাই তার উপর নির্ভর করছে টিম অস্ট্রেলিয়া।

```

যদিও তাঁকে বিশ্বকাপের প্রথম দিকে যে পাওয়া যাবে না, তা ভালো করেই জানতেন নির্বাচকেরা। প্রসঙ্গত গত মাসে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে চতুর্থ ওয়ানডেতে জেরল্ড কোয়েটজের বাউন্সারে বাঁ-হাতে চোট পান এই তারকা ওপেনার। স্ক্যানে তাঁর হাতে চিড় ধরা পড়ে। ফলে তখন হেডকে দেশে রেখেই বিশ্বকাপ খেলতে ভারতে চলে এসেছিল অস্ট্রেলিয়া।টুর্নামেন্টের শেষ দিকে বাঁ-হাতি ওপেনারকে পাওয়ার আশায় স্কোয়াডে রেখে দেওয়া হয়েছিল। এই ২৯ বছর বয়সী ব্যাটার এবার চলতি ওয়ানডে বিশ্বকাপের মাঝপথেই দলে যোগ দেওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন। গত শুক্রবার তাঁর হাতের ব্যান্ডেজ খুলে থ্রো ডাউনে ব্যাটিং শুরু করেছেন হেড। এই সপ্তাহে স্বাভাবিক ভাবে পূর্ণ মাত্রার ব্যাটিং অনুশীলন করবেন তিনি।

পরবর্তী সময়ে অ্যাডিলেড থেকে আগামী বৃহস্পতিবার ভারতে আসার বিমান ধরার কথা রয়েছে তাঁর। ব্যাঙ্গালোরে আগামী শুক্রবার পাকিস্তানের বিপক্ষে অজিদের হয়ে ম্যাচটি খেলতে পারবেন না হেড। নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ২৫ অক্টোবরের ম্যাচ থেকে প্রথম একাদশে থাকার জন্য তৈরি থাকবেন তিনি, এমনটাই আশা করা হচ্ছে। এর পর নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড, আফগানিস্তান, বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলবে অস্ট্রেলিয়া।ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইটে নিজের চোটের ব্যাপারে সর্ব শেষ তথ্য জানিয়েছেন হেড। তাঁর দাবি, ‘ভালো ভাবেই এগোচ্ছে সব কিছু। সম্ভবত আমাদের আশার চেয়েও ভালো এগোচ্ছে।

```

আমরা যখন অস্ত্রোপচার না করার সিদ্ধান্ত নিই, যা করলে ১০ সপ্তাহ লেগে যেত ফিরতে, তখন আমাদের বলা হয়েছিল ব্যান্ডেজ অন্তত ৬ সপ্তাহ রাখতে হবে। সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী, নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচটি ছয় সপ্তাহের কিছু কম সময়ের মধ্যে হবে, যা কিছুটা তাড়াহুড়ো হবে। তাই ওই ম্যাচ খেলার জন্য এখন থেকে সব কিছু সুন্দরভাবে এগোতে হবে আমার জন্য‌।’