আপিল ঠিক হয় নি,আউট দিল না আম্পায়ার, DRS নিতেই চরম ঝামেলা মাঠেই,রইলো ভিডিও

জোরালো আবেদন করেননি ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা। তাই প্রাথমিকভাবে স্টিভ স্মিথকে আউট দেননি আম্পায়ার। ডিসিশন রিভিউ সিস্টেমের (ডিআরএস) আবেদনও করে ফেলেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জস বাটলার। তারপর মাঠের মধ্যে শুরু হয়ে যায় চরম বিতর্ক। রিভিউ নেওয়ার সাথে সাথে আবার হঠাৎ করে আউট দেন আম্পায়ার। তাতে আবার কিছুটা চটে যান স্মিথ। যে ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। আর সেই নিয়ে চরম বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

মঙ্গলবার মেলবোর্নে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ডের তৃতীয় একদিনের ম্যাচের ৪৬ তম ওভারে সেই ঘটনা ঘটে। ওলি স্টোনের তৃতীয় বলে পুরোপুরি টি-টোয়েন্টি শট খেলার চেষ্টা করেন স্মিথ। অনেক আগে থেকেই অফস্টাম্পের বাইরে চলে যান। তাঁকে অনুকরণ করেন স্টোন। ফাইন লেগের দিকে মারতে যান স্মিথ। তবে তাঁর লক্ষ্যপূরণ হয়নি। উইকেটের পিছনে বাটলারের হাতে বল চলে যায়। বল যে ব্যাট লেগেছিল, তা স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছিল। শব্দও হয়েছিল। কিন্তু অদ্ভুতভাবে সবাই বুঝতে পারা সত্ত্বেও সেটাকে আউট দিলেন না আম্পায়ার।

এক ধারাভাষ্যকার বলতে থাকেন, ‘বাটলার সঙ্গে-সঙ্গে রিভিউ নিয়েছে। ওর মনে হয়েছে যে ও কোনও শব্দ শুনতে পেয়েছে।’ অপর একজন বলেন, ‘ও বলছে যে এটা আউট।’ প্রথম ধারাভাষ্যকার বলেন, ‘ও হ! মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অবিশ্বাস্য কাণ্ড। বাটলারের মনে হয়েছিল যে ও কোনও শব্দ শুনেছে। হালকা মেজাজে আবেদন করেছিল। তবে সঙ্গে-সঙ্গে ডিআরএস নিয়েছিল।’ তারইমধ্যে পুরো ঘটনার রিপ্লে দেখানো হয়। প্রথম ধারাভাষ্যকার বলেন, ‘এখানে বাটলারের প্রতিক্রিয়া দেখ।’ দ্বিতীয় ধারাভাষ্যকার বলেন, ‘ও নিজেই আউট দিয়ে দিয়েছিল।’ঠিক কি কান্ড ঘটেছিল, দেখে নিন ভিডিওতে:

একেবারে হালকা মেজাজে আবেদন করেন বাটলার। কিন্তু আঙুল তোলেননি আম্পায়ার পল উইলসন। সঙ্গে সঙ্গে ডিআরএসের আবেদন করেন। বিরক্তির সঙ্গে আম্পায়ারের উদ্দেশ্য কিছু বলতে দেখা যায় তাঁকে। দু’হাত ছড়িয়ে কিছু বলতে থাকেন। তারপরই আম্পায়ারকে আঙুল তুলতে দেখা যায়। কিছু বলতে থাকেন তিনিও। তাতে অবশ্য কিছুটা অসন্তোষ প্রকাশ করতে দেখা যায় স্মিথকে। যিনি শেষপর্যন্ত ড্রেসিংরুমের দিকে হাঁটা দেন।

আজ মেলবোর্নে টসে জিতে প্রথম ফিল্ডিং নেয় ইংল্যান্ড। ৪৮ ওভারের ম্যাচ হচ্ছে। প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ৪৮ ওভারে পাঁচ উইকেটে ৩৫৫ রান তোলে অস্ট্রেলিয়া। ১৩০ বলে ১৫২ রান করেন ট্র্যাভিস হেড। ১০২ বলে ১০৬ রান করেন ডেভিড ওয়ার্নার। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ২৯ ওভারে ইংল্যান্ডের স্কোর আট উইকেটে ১২৩ রান।