অস্ট্রেলিয়াকে পরাজিত করতেই টেস্ট,ODI ,T20 সব ফরমেটে বিশ্বের নাম্বার ১ টিম হল ভারতীয় দল !

ঐতিহাসিক সাফল্য টিম ইন্ডিয়ার, অস্ট্রেলিয়াকে তিন ম্যাচের সিরিজের প্রথম ম্যাচে পরাজিত করতেই বিশ্বের নাম্বার ওয়ান টিম হয়ে গেল ভারতীয় দল। টেস্ট ক্রিকেট ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি সব ফরম্যাটেই এখন বিশ্বের নাম্বার ওয়ান দল ভারত। টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টিতে ইতিমধ্যেই ভারতীয় দল বিশ্বের নাম্বার ওয়ান দল ছিল তবে ওয়ানডে ফরম্যাটে ভারতীয় দল দ্বিতীয় ধাপে অবস্থান করছিল কারণ অস্ট্রেলিয়া সাউথ আফ্রিকার কাছে পরাজিত হতেই পাকিস্তান দ্বিতীয় স্থানে চলে আসে তবে এবার অস্ট্রেলিয়াকে প্রথম ম্যাচে হারাতেই প্রথম স্থান দখল করলো ভারত।

এশিয়া কাপে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ভারতীয় দল এক্সপেরিমেন্ট না করে যদি সব প্লেয়ারদের নিয়ে সেই ম্যাচে খেলত তাহলে ভারত সেই ম্যাচে জয়লাভ করেই বিশ্বের নাম্বার ওয়ান দল হয়ে যেত কিন্তু ভারতীয় দলের লক্ষ্য ছিল আলাদা, ভারতীয় দল বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্যে এগিয়ে ছিল যার কারণে ভারতের প্রধান ক্রিকেটারদের ভারত বাংলাদেশ ম্যাচে বিশ্রাম দেয় যাতে তারা শ্রীলংকার বিরুদ্ধে ফাইনাল ম্যাচে ফ্রেশ ভাবে নামতে পারে এবং ভাল পারফরম্যান্স করতে পারে আর সে রকমটাই করে দেখিয়েছিল ভারতীয় বোলাররা।

```

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে এই ম্যাচে ভারতীয় দল প্রথমে বোলিং করে এবং অস্ট্রেলিয়া প্রথমে ব্যাট করে ২৭৬ রান করে যেখানে অস্ট্রেলিয়া দলের অধিকাংশ ব্যাটসম্যান রান পেয়েছেন, যদিও কোন প্লেয়ার বড় রান করতে পারেনি, ২৭৬ রানের টার্গেট নিয়ে ব্যাট করতে নেওয়া ভারতীয় দলের অনবদ্য ওপেনিং পার্টনারশিপ ভারতকে এই ম্যাচে জয়ের জন্য অনেকটা সাহায্য করে, ১৪২ রানের ওপেনিং পার্টনারশিপ করে শুভমান গিল এবং রুতুরাজ গাইকোয়ার্ড যা ভারতীয় দলকে এই ম্যাচে অনেকটা এগিয়ে দেয়।

যদি অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচেই শ্রেয়াস আইয়ার রান আউট হয়ে যান, ফলে ভারতীয় ব্যাটিং এর উপর কিছুটা চাপ সৃষ্টি করে। ঈশান কিষান তিনিও খুব বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকতে পারেননি তবে ভারতীয় দলের তরফ থেকে এই ম্যাচ ফিনিশ করার দায়িত্ব নিয়েছিলেন কে এল রাহুল এবং সূর্য কুমার যাদব যদিও সূর্য কুমার যা দাও ৪৯ বলে ৫০ রান করে প্যাভিলিয়নের ফিরে যান। তবে কে এল রাহুল দায়িত্ব সহকারে এই ম্যাচটি শেষ করে, এক যথেষ্ট অধিনায়কের মতোই ইনিংস খেলে ভারতীয় দলকে এই ম্যাচে জয় এনে দেন।

```

ভারতীয় দলের তরফ থেকে অনবদ্য বোলিং করেছেন মোঃ সামি এবং অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে তিনি পাঁচটি উইকেট নিয়ে রীতিমতো ফর্মে আসার ইঙ্গিত দিয়ে দিয়েছেন যা ভারতীয় দলের জন্য বিশ্বকাপে অত্যন্ত বড় একটা পাওনা হবে।

জসপ্রিত বুমরা, শামি এবং সিরাজ ভারতীয় দলের এই তিন পেস বোলার যে ধরনের ফর্মে রয়েছে তাতে যেকোনো ব্যাটিং লাইনআপের বিরুদ্ধে অনবদ্য পারফরম্যান্স করতে পারে কারণ যে ধরনের পিচের উপর আজকে খেলাটি হয়েছিল সেখানে ৩০০ রানের বেশি হওয়া বাধ্যতামূলক ছিল তার সত্ত্বেও মাত্র কিছু ৭৬ রানে অস্ট্রেলিয়াকে আটকে দেয় ভারত যা স্পষ্ট করে যে ভারতীয় বোলিং কতটা ভালো ছিল।