ক্যাচ নাকি ছক্কা!বিগ ব্যাশে তুলকালাম বাউন্ডারি লাইনে অদ্ভুত ক্যাচ!দেখুন ভিডিও,ক্যাচ না ছক্কা?

বিগ ব্যাশ লিগের উত্তেজনা এখন চরমে পৌঁছেছে, রবিবার বছরের প্রথম দিনে সিডনি সিক্সার্স এবং ব্রিসবেন হিটের মধ্যে খেলা একটি হাই স্কোরিং ম্যাচে, ব্রিসবেন হিট সিক্সার্সকে ১৫ রানে হারিয়েছে। একইসঙ্গে এই ম্যাচে দুর্দান্ত একটি ক্যাচ ধরেছেন মাইকেল নেসার। ম্যাচের প্রথম ইনিংসে সিডনি সিক্সার্স দুর্দান্ত শুরু করেছিল, চতুর্থ উইকেটে জর্ডান স্কিল দুর্দান্ত ব্যাটিং করছিলেন, স্কিল ২৩ বলে ৪১ রান করেন, এই সময় তিনি ৩টি চার এবং ২টি ছক্কা মেরেছিলেন।

আকাশচুম্বী ছক্কাও মারেন তিনি। যে কারণে তাঁকে আরও বিপজ্জনক হতে দেখা যায়। কিন্তু এরপরই তাঁর মারা শটে অসম্ভব একটি ক্যাচ ধরেন মাইকেল নেসার। আকাশে উড়ে অ্যাথলিটদের মতো এই ক্যাচ ধরেন তিনি। এই ক্যাচ ধরে তিনি শুধু নিজের ফিটনেসের প্রমাণ দেননি এর সঙ্গে তিনি নিজের বুদ্ধির পরিচয় দিয়েছিলেন।মহম্মদ কুহনম্যানের বলে সোজা শট খেলেন জর্ডান স্কিল, যা দেখে মনে হচ্ছিল এটি একটি ছক্কা হবে। কিন্তু তারপরে মাইকেল নেসার দৌড়ে এসে ক্যাচটি ধরে নেন। এই সময় তিনি বলটি বেশ কয়েকবার টস করেন এবং বাউন্ডারির ​​বাইরে চলে যান।

ততক্ষণে বল বাউন্ডারির ​​বাইরে পড়ার কথা ছিল, এমন পরিস্থিতিতে আবারও হাওয়ায় লাফিয়ে বল পাঠান বাউন্ডারির ​​ভিতরে। বল আবার বাউন্ডারির ​​ভিতরে গেলে দ্রুতই নেসার এসে ক্যাচ কাভার করেন। যার ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় দ্রুত ভাইরাল হচ্ছে। পরে তৃতীয় আম্পায়ার জর্ডান স্কিলকে ক্যাচটি পরিষ্কার বলে আউট করেন। যা তিনিও বিশ্বাস করেননি যে তিনি আউট হয়েছেন।তবে রবিবার বিগ ব্যাশ লিগে মাইকেল নেসারের অসাধারণ জাগলিং বাউন্ডারি ক্যাচটি বৈধ নাকি এটি ছক্কা তা নিয়ে ব্যাপক বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। দেখুন সেই ভিডিও:

টিভি আম্পায়ার ডিসমিসাল ক্যাচটি চেক করেন এবং সিদ্ধান্ত নেন যে এটি আউট হয়ে গেছে। যখন বল হাতে ছিল তখন নেসারের পা দড়ির বাইরে মেঝেতে স্পর্শ করেনি। নেসার বলেছেন, ‘আমি জানতাম [ম্যাট] রেনশ কয়েক বছর আগে এটি করেছিলেন। তারা নিয়ম পরিবর্তন করেছে কিনা আমি জানতাম না তাই আমি ভেবেছিলাম আমি এটি করব। সৌভাগ্যক্রমে তারা নিয়ম পরিবর্তন করেনি।’

এই ক্যাচটি খেলার আইন সম্পর্কে একটি বিশাল বিতর্কের সূত্রপাত করেছে। অনেকে বিশ্বাস করেন যে এটি ক্যাচ নয়, অনেকে আবার আম্পায়ারের সিদ্ধান্তকে মেনে নিয়েছেন। ইংল্যান্ড পেসার কেট ক্রস টুইট করে লিখেছেন, ‘আমি বুঝতে পারছি না এটি কীভাবে আউট দেওয়া হল।’ তবে অস্ট্রেলিয়ার অলরাউন্ডার ক্রিস গ্রিন টুইট করে লিখেছেন, ‘অবিশ্বাস্য ক্যাচ!’