পাকিস্তানের ১৫০ কিমিদের ধ্বংস করে পন্টিংকে পিছনে ফেলে ইতিহাস গড়লেন ডেভিড ওয়ার্নার !

বিশ্বকাপের আজ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে পাকিস্তান এবং অস্ট্রেলিয়া যদিও আজকের ম্যাচে কে জয় লাভ করতে পারে সেই নিয়ে কোন সন্দেহ কোনভাবেই ছিল না আর পাকিস্তানকে যে রীতিমতো গো হারা করতে হবে তার দায়িত্ব যেন একাই নিয়ে নিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। রীতিমতো বল ফেলার জায়গাটুকু তিনি দিচ্ছিলেন না পাকিস্তানের বোলারদের এবং পাকিস্তানের ১৫০ কিমিতে বল করা হ্যারিস রফকে প্রথম ওভারে ২৪ রান মেরে তিনি আজ সারাদিন কি হতে চলেছে সেটা কিছুটা বর্ণনা করে দেন।

পাকিস্তান গত ম্যাচে ভারতীয় দলের কাছে পরাজিত হয়েছে আবার আজকে অস্ট্রেলিয়ার কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের সে মুখোমুখি হয়েছিল কিন্তু যেভাবে দুই ওপেনিং ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার এবং মিছিল মার্শ ব্যাটিং করেছে তা রীতিমতো অবাক করার মতো। লাগাতার পরপর দুটি বলে দুজন ক্রিকেটার সেঞ্চুরি পর্যন্ত সম্পন্ন করেন। একের পর এক বল মাঠের বাইরে মারতে থাকেন ডেভিড ওয়ার্নার এবং মিছিল মার্শ। এমনকি ৫ ওভারে ৭২ রান দেন পাকিস্তান বোলার হ্যারিস রউফ। ডেভিড ওয়ার্নার মোট ১৪টি চার এবং ৯টি ছক্কা মেরেছেন, পাশাপাশি একই ধরনের তাণ্ডব চালিয়েছেন মিছিল মার্শ।

```

পরিস্থিতি এতটাই খারাপ হয়ে যায় যে পাকিস্তান ক্যাপ্টেন বাবর আজম এটা ভেবে উঠতে পারছিলেন না যে কাকে দিয়ে বোলিংটা করাবেন, তার ওপরে পাকিস্তানি দলে যে খারাপ ফিল্ডিং হয়েছে সেটাও একটা বড় সমস্যা যেখানে সেঞ্চুরি করা ডেভিড ওয়ার্নারের ক্যাচ প্রথমেই মিস করে দেয় পাকিস্তানের ফিল্ডার। তারপরে পুরো মাঠ জুড়ে অরাজকতা এবং বিভিন্ন ফিল্ডিং মাসে ভরপুর পাকিস্তানের দল। আর সেঞ্চুরি করে ফেলার পরে এই দুই প্লেয়ার আর পিছন ফিরে তাকায়নি বিশেষ করে ডেভিড ওয়ার্নার একের পর এক চার ছয় তিনি মাঠের বাইরে মারতেই থাকেন। মাত্র ১২৪ বলে ১৬৩ করেছেন ডেভিড ওয়ার্নার এবং ১০৮ বলে ১২১ করেছেন মিচিল মার্শ।

ব্যাঙ্গালোরের এই ময়দান একটি হাই স্কোরিং মাঠ কিন্তু তার সত্বেও যেভাবে ডেভিড ওয়ার্নার দাপটের সাথে ব্যাটিং করেছেন তা রীতিমতো প্রশংসার যোগ্য। দুরন্ত সেঞ্চুরি দিয়ে আজকে ডেভিড ওয়ার্নার বিশ্বকাপে তার পঞ্চম সেঞ্চুরিটি সম্পন্ন করেছেন এবং রিকি পন্টিং কে ছুয়ে ফেলেছেন যিনি বিশ্বকাপে পাঁচটি সেঞ্চুরি করেছেন। তবে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার সেঞ্চুরি করার পরেও থেমে থাকেননি ডেভিড ওয়ার্নার। একের পর এক ছক্কা তিনি মারতে থাকেন যার দৌলাতে এই বিশ্বকাপে সব থেকে বেশি ছক্কা মারা ব্যাটসম্যান এর তালিকায় তৃতীয় স্থানে তিনি রয়েছেন যেখানে তিনি আটটি ছক্কা মেরেছেন এবং এই লিস্টে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন রোহিত শর্মা ১৩ টি ছক্কা এবং কুশল মেন্ডিস এক নাম্বার জায়গায় রয়েছে ১৪ টি ছক্কা মেরে।

```

সবমিলিয়ে ভারতের কাছে পরাজয় যেন কোনোভাবেই ভুলতে পারছে না পাকিস্তানের দল, পাশাপাশি একের পর এক পরাজয় দিয়ে বিশ্বকাপ থেকে রীতিমতো যেন ছিটকে যাওয়ার পথে এগোচ্ছে পাকিস্তান।

এখন এরকম পরিস্থিতিতে একদিকে বাংলাদেশ একদিকে পাকিস্তান অন্যদিকে শ্রীলঙ্কা সব টিমগুলোই খারাপ পারফরম্যান্স করছে এবং এশিয়া মহাদেশ থেকে শুধুমাত্র ভারতীয় দল সেমিফাইনাল খেলবে এরকমই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।