কে এল রাহুলকে পার্মানেন্টলি বাদ দিয়ে অন্য এক ক্রিকেটারকে দলে নেওয়ার দাবি জানালেন কার্তিক

ভারতীয় ক্রিকেটে এই মুহূর্তে বেশ কিছু ক্রিকেটারকে নিয়ে বড় প্রশ্ন চিহ্ন রয়েছে তার কারণ ভারতীয় দলের বেঞ্চের ক্ষমতা এত বেশি যে এক একজন ক্রিকেটারকে সরানোর জন্য তার পিছনে কম করে পাঁচ জন ক্রিকেটার দাঁড়িয়ে রয়েছে। এরকম পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে কে এল রাহুলের মত ক্রিকেটার বিগত দু’বছর ধরে শুধুমাত্র নামের জোরে খেলেই চলেছেন এবং দলের হয়ে কোন কন্ট্রিবিউশন করতে পারছেন না। তবে এবার সময় এসেছে তাকে সরিয়ে ফেলার, যেমনটা রিসব পন্থকে ওয়ানডে থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে ইতিমধ্যেই।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও সেরকম কোন পারফরমেন্স করতে পারেননি কে এল রাহুল, এটা বললে ভুল হবে না যে তার খারাপ পারফরমেন্সের জন্য ভারত বিশ্বকাপ হেরেছে কারণ যে ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারত সেমিফাইনাল হারে সেখানে তিনি ওপেনার হিসেবে ভালো খেললে ভারত আরও বড় একটা টোটাল করতেই পারতো যেমনটা ইংল্যান্ডের হয়ে আলেক্স হেলস করেছেন। আর সেই কারণে কেএল রাহুলের মত ফ্লপ ক্রিকেটার যিনি জীবনের সবথেকে খারাপ ফর্মে রয়েছেন তাকে সরিয়ে শুভমান গিলকে সুযোগ দেওয়ার দাবি জানাচ্ছেন দীনেশ কার্তিক।

বিগত দু বছর ধরে রীতিমত আগুন ফর্মে রয়েছেন শুভমান। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে তাকে আউট করার রীতিমতো অসম্ভব ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছিল তাছাড়া বাংলাদেশের বিরুদ্ধে তিনি যথেষ্ট ভালো খেলেছেন এবং প্রথম ম্যাচে একটি দুরন্ত সেঞ্চুরিও করেছিলেন তিনি। কে এল রাহুল তার বিগত আটটি টেস্ট ম্যাচে ১৩৭ রান করেছেন যার মধ্যে ৫৭ রান এসেছে বাংলাদেশের মতো দুর্বল দলের বিরুদ্ধে তাও আবার দুটি ম্যাচ খেলে। এই ধরনের ক্রিকেটার যিনি ফর্মের ধারে কাছেও নেই তাকে দলে রেখে শুধুমাত্র বোঝা বাড়াচ্ছে ভারতীয় দল।

দীর্ঘদিন ধরে একটা খারাপ সময় পার করে বিরাট কোহলি রীতিমতো ফর্মে ফিরেছেন, যদিও একটা সময়ের বিরাট কোহলি জিনিস পাঁচটি ম্যাচের মধ্যে চারটি ম্যাচে রান করতেন তাকে ফিরে পাওয়া যাচ্ছে না এখনো, বর্তমানের কোহলি পাঁচটি ম্যাচে অন্তত দুটি ম্যাচে রান করছেন। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে কে এল রাহুলের মত ক্রিকেটার যিনি পাঁচটি ম্যাচের মধ্যে কোন ম্যাচেই পারফরম্যান্স করতে পারছে না তাদেরকে আর কতদিন মাথায় করে নিয়ে চলবে ভারতীয় দল সেই প্রশ্ন তুলেছেন দীনেশ কার্তিক।

পাশাপাশি ঈশান কিষাণ থেকে শুরু করে সঞ্জু স্যামসন এই ধরনের অনেক ক্রিকেটার এখনো বেঞ্চে বসে রয়েছে যাদেরকে সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না শুধুমাত্র কেএল রাহুলের মত কেদারদের মাথায় করে বয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য।