চোটের কারণে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টি টোয়েন্টি থেকে ছিটকে গেলেন তারকা ক্রিকেটার!

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে খেলা ভারতের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান সঞ্জু স্যামসনের জন্য একটা কঠিন সময় যেন কিছুতেই কাটছে না। ৩ জানুয়ারি মুম্বইয়ে ভারত বনাম শ্রীলঙ্কার টি টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে চোট পেয়েছিলেন সঞ্জু স্যামসন। সেই কারণে টিম ইন্ডিয়ার সঙ্গে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে পুনে যাননি তিনি। হাঁটুর সমস্যায় জর্জরিত স্যামসন এখনও মুম্বইয়ে রয়েছেন এবং সেখানে তাঁর চোটের স্ক্যান করা হবে।

মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়েতে শ্রীলঙ্কার ইনিংসের প্রথম ওভারে ডাইভিং ক্যাচ নেওয়ার সময় চোট পেয়েছিলেন সঞ্জু স্যামসন। হার্দিকের বলে তিনি ক্যাচটি ধরেছিলেন, কিন্তু মাটিতে পড়ার সময় বলটি হাত থেকে বেরিয়ে যায়। ম্যাচ চলাকালীন চোট নিয়ে সচেতন হননি তিনি। বাউট শেষ হওয়ার পর স্যামসন ফোলা অনুভব করলেন। এই কারণে তাঁর স্ক্যান করা হবে।

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি স্যামসনের জন্য স্মরণীয় ছিল না। ব্যাটিংয়ে ব্যর্থ হওয়ার পর ফিল্ডিংয়ে বিশেষ কিছু করতে পারেননি তিনি। এই ম্যাচে চতুর্থ ক্রমে মাঠে নামেন স্যামসন। ছয় বলে পাঁচ রান করে আউট হন তিনি। ইনিংসে একটি বাউন্ডারিও মারেননি তিনি। স্যামসনের স্ট্রাইক রেট ছিল ৮৩.৩৩। ফিল্ডিংয়ে স্যামসন হার্দিকের বলে ক্যাচ ফেলে দেন। এই সময় তিনিও আহত হন। এরপরে বাউন্ডারিতে একটি ফিল্ডিং করার সময়ে বাউন্ডারি আটকাতে গিয়ে হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন।

তিন টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে দুই রানে হারিয়েছে ভারত। মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক দাসুন শানাকা টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন। ভারত ২০ ওভারে পাঁচ উইকেটে ১৬২ রান তোলে। জবাবে লঙ্কান দল ২০ ওভারে ১৬০ রানে অলআউট হয়ে যায়।

ম্যাচের শেষ ওভারটি ছিল খুবই উত্তেজনাপূর্ণ। এতে শ্রীলঙ্কাকে জয়ের জন্য ১৩ রান করতে হত। সকলকে চমকে দিয়ে অক্ষর প্যাটেলকে বোলিং করতে ডাকেন টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া। অক্ষর হার্দিকের সিদ্ধান্তকে সঠিক প্রমাণ করে দলকে জয়ী করেন।