ভারতের ২৩০ এর জবাবে সামান্য রানে বান্ডিল বাংলাদেশ, বিশাল বড়ো জয় দিয়ে ইতিহাস ভারতীয় দলের !

প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে হেরে ওডিআই সিরিজ শুরু করে ভারত। অবশেষে সিরিজের সমতা ফেরাতে সক্ষম হলেন হরমনপ্রীত কৌররা। মীরপুরে বাংলাদেশ মহিলা দলের বিরুদ্ধে ১০৮ রানে জয় পেল ভারত। যদিও এদিন ভারতীয় দল ২২৮ রানের বেশি তুলতেই পারেনি। তবে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেন হরমনপ্রীত কৌর এবং জেমিমা রড্রিগেজ। হরমনপ্রীত কৌর ৮৮ বলে ৫২ রান করেন। তাঁর এই ইনিংসটি সাজানো ছিল মাত্র ৩টি বাউন্ডারির সৌজন্যে। অপরদিকে জেমিমা করেন ৭৮ বলে মাত্র ৮৬ রান ৯টি বাউন্ডারির সৌজন্যে। এই দুই ব্যাটারের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ভর করে ৮ উইকেট হারিয়ে ২২৮ রান তোলে ভারত।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই উইকেট হারাতে থাকে বাংলাদেশ। ফর্গানা হক ছাড়া আর কেউই বড় রান করতে পারেননি। বলা ভালো ভারতীয় বোলারদের দাপটে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপ। ওপেন করতে নামা মুরশিদা খাতুন মাত্র ১২ রান করে ফিরে যান। পাশাপাশি শর্মিন আখতার মাত্র ২ রানে ফিরে যান। স্বাভাবিক ভাবেই পরপর উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ।ঠিক সেই মুহূর্তে দলের হাল ধরেন ফর্গানা। মূলত তাঁর ব্যাটে ভর করেই এগিয়ে যেতে থাকে বাংলাদেশ। একাই লড়াই করে গেলেন তিনি। অবশ্য সেই মুহূর্তে যোগ্য সঙ্গ দেওয়ার চেষ্টা চালান ঋতু মনি। তিনি ২৭ রান করেন।

```

এই দুই ব্যাটার চেষ্টা চালালেও ভারতীয় বোলারদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে পারেনি। মাত্র ১০৬ রানের মাথায় ফর্গানা ফিরে যান ৮১ বলে ৪৭ রান করে। তাঁর ঝুলিতে রয়েছে ৫টি বাউন্ডারি। কিন্তু এরপরই উইকেট হারাতে থাকে বাংলাদেশ।১০৬ রানের মাথায় চতুর্থ উইকেটের পতন ঘটে বাংলাদেশের। মাত্র ১৪ রানের ব্যবধানে ৭টি উইকেট হারিয়ে ফেলে তারা। অর্থাৎ ১২০ রানে শেষ হয়ে যায় বাংলাদেশের ইনিংস। ফর্গানা ফিরে যেতেই তাসের ঘরের মতো ভেঙ্গে পড়ে নিগারদের ব্যাটিং লাইনআপ।

স্বাভাবিক ভাবেই বাংলাদেশের এই পরিস্থিতি দেখে অনেকেই অবাক হয়েছে। আক্ষরিক অর্থে ভারতীয় মেয়েদের কাছে আত্মসমর্পন করতে বাধ্য হল বাংলাদেশ। ব্যাট হাতে যেমন রান করেছেন। ঠিক তেমনই বল হাতে ৩.১ ওভার হাত ঘুরিয়ে মাত্র ৩ রান দিয়ে তুলে নিলেন ৪ উইকেট।

```

তাঁর অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে ভর করে ম্যাচ জিতে নেয় ভারত। সেই সঙ্গে সিরিজে সমতা ফিরিয়ে টিকে রইল উইমেন্স ইন ব্লু। ম্যাচের সেরাও হয়েছেন জেমিমা। সব মিলিয়ে ভারতের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ যে হঠাৎ করে একটি ম্যাচ জিতে গিয়েছিল সেটা যে একটা লটারি ছিল এটা বলাই যায়।