666666 রাশিদ খান কে তুলোধোনা করে বদলা নিলেন মার্কো জানসেন! দেখুন ভিডিও

বদলা নিলেন মার্কো জানসেন। দক্ষিণ আফ্রিকায় শুরু হওয়া নতুন টি-টোয়েন্টি লিগেও তেমনই কিছু করে দেখালেন মার্কো জানসেন। এই লিগে ২৬৭ দিনের পুরোনো হিসাবের নিষ্পত্তি করলেন তিনি। এখন SA20 লিগ সবে শুরু হয়েছে। মার্কো জানসেনের মধ্যে প্রতিশোধের আগুন বহু দিন ধরেই জ্বলছিল। SA20 লিগে সেই আগুনের বদলার শান্তি দিলেন তিনে। আসলে ২০২২ আইপিএল থেকেই রশিদ খানের বিরুদ্ধে জ্বলে উঠতে চাইছিলেন মার্কো জানসেন। সেই সুযোগ হাতের কাছে পেয়েগেলেন তিনি। আর সেই বদলা নিয়ে নিজের জ্বালা মিটিয়ে নিলেন মার্কো জানসেন।

আসলে প্রতিশোধের এই খেলাটি দেখা গেল ১৮ জানুয়ারিতে এমআই কেপ টাউন এবং সানরাইজার্স ইস্টার্ন ক্যাপের মধ্যকার SA20 ম্যাচে। এই ম্যাচে জয় পেল সানরাইজার্স ইস্টার্ন ক্যাপ। তবে তাদের জয়ের চেয়ে বেশি আলোচনায় ছিল সানরাইজার্সের খেলোয়াড় মার্কো জানসেনের প্রতিশোধ আগুন। প্রতিশোধের আগুনকে প্রশমিত করা মার্কো জানসেনও সানরাইজার্সের এই জয়ের নায়ক হয়ে থাকলেন। এই ম্যাচে এমআই কেপটাউন প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৭১ রান তোলে। জবাবে সানরাইজার্স ইস্টার্ন ক্যাপ ৩ বল বাকি থাকতেই ৮ উইকেট হারিয়ে ১৭২ রানের লক্ষ্য অর্জন করে।

সানরাইজার্সের পক্ষে এই টার্গেট ভাঙা সহজ ছিল কারণ মার্কো জানসেনের ঝোড়ো ব্যাটিং। এদিন এমআই কেপটাউনের বোলারদের উপর আধিপত্য বিস্তার করেছিলেন জানসেন। বিশেষ করে রশিদ খানের ওভারে খুব মারলেন তিনি। মার্কো জানসেন এদিনের ম্যাচে মাত্র ২৭ বলে ৭টি ছক্কাসহ ৩টি চারের সাহায্যে ৬৬ রান করেন। এই সময়ে তিনি ২৪৪.৪৪ স্ট্রাইক রেট ব্যাটিং করলেন।এই ঝোড়ো ইনিংসে ৭ ছক্কার মধ্যে মাত্র এক ওভারে ৪টি ছক্কা মেরেছিলেন মার্কো জানসেন। ৩টি চারের মধ্যে একই ওভারে একটি চারও মারেন তিনি। দেখুন ভিডিও:

যদিও এই এক ওভারে ৬৬ রানের মধ্যে ২৮ রান করে ছিলেন জানসেন। এই ওভারটি করে ছিলেন রশিদ খান। এই ওভারটি ম্যাচে সানরাইজার্স ইস্টার্ন ক্যাপের ইনিংসের ১৬তম ওভার ছিল।রশিদ খানের এক ওভারে মার্কো জানসেন ২৮ রান নিয়ে ছিলেন। জানসেন যেন এদিন তাঁর প্রতিশোধটা মিটিয়ে নিলেন। আসলে, ২৭ এপ্রিল ২০২২-এ খেলা আইপিএল ম্যাচে, রশিদ খান গুজরাট টাইটানসের হয়ে খেলার সময় সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে একটি বিস্ফোরক ইনিংস খেলেছিলেন।

সেই ইনিংসে মার্কো জানসেনর এক ওভারে ২৫ রান নিয়েছিলেন রশিদ খান। সেই ম্যাচে গুজরাজ টাইটানসের ইনিংসের শেষ অর্থাৎ ২০তম ওভারটি ছিল সেটি। সেই ম্যাচে মার্কো জানসেনের ওভারে রশিদ চারটি ছক্কা এবং ১টি সিঙ্গেল নিয়েছিলেন।