ঘরের মাটিতে নিউজিল্যান্ডের কাছে লেজে গোবরে পাকিস্তান, লজ্জাজনক অবস্থা বাবরদের

বর্তমানে পাকিস্তান ক্রিকেট ডামাডোল অবস্থা, সিলেকশন কমিটি থেকে শুরু করে বোর্ডের সমস্ত কর্মকর্তাদের পরিবর্তন করে ফেলেছে পাকিস্তান ক্রিকেট, পদ হারাতে হয়েছে রামিজ রাজাকে। তার পাশাপাশি, বিশ্বকাপ ফাইনালে হেরে এসেছে পাকিস্তান, ভারতের কাছেও পরাজিত হতে হয়েছে বিশ্বকাপে, তার ওপরে ঘরের মাটিতে ইংল্যান্ডের কাছে হোয়াইটওয়াশ হয়ে লজ্জার রেকর্ড গড়েছে পাকিস্তান, এরকম পরিস্থিতিতে এবার পাকিস্তানকে তার ঘরের মাটিতে দুরমুশ করতে চলে এসেছে নিউজিল্যান্ড।

পাকিস্তান দল কতটা চাপে রয়েছে এটা এই দেখেই বোঝা যায় যে কয়েকদিন আগেই যাকে বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যান বলা হচ্ছিল সেই রিজওয়ানকে দল থেকে বাদ দিয়েছে পাকিস্তান খারাপ পারফরম্যান্সের জন্য। এদিন প্রথমে ব্যাট করতে আসা পাকিস্তান একের পর এক উইকেট হারাতে থাকে। নিউজিল্যান্ডের সামনে দাঁড়ানোর ক্ষমতা কোন পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানের ছিল না, শুধুমাত্র বাবরের 161 রান, পাকিস্তান দলে প্রত্যাবর্তন করা প্রাক্তন ক্যাপ্টেন সরফরাজের 86 এবং শেষের দিকে আগা সালমানের 103 রানের দৌলতে ৪৩৮ পর্যন্ত পাকিস্তান পৌঁছায়। কিন্তু এই রান করার পরেও সেটা যে বিশাল কোন ভাল খবর তা মোটেই নয় তার কারণ…

পাকিস্তান এমন একটা পিচে ৪৩৮ রান করেছে, যেটা রীতিমতো একটা ব্যাটিং পিচ, অথচ ব্যাটসম্যানদের স্বর্গ এই পিচে পাকিস্তানের তিনজন ছাড়া অধিকাংশই ফ্লপ, তার থেকে বড় কথা এটা রীতিমত 600 রানের পিচ বটেই। সেই জায়গায় পাকিস্তান ৪৩৮ রানেই শেষ, যার জবাবে ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ড ১৬৫ রান করেছে তাও আবার কোন উইকেট না হারিয়ে। টম লাথাম এবং ডেভন কনওয়েকে আউট করা পাকিস্তানের কাছে অসম্ভব হয়ে উঠেছে। অর্থাৎ নিউজিল্যান্ড যে একটা বড় টোটাল করতে চলেছে সেটা পরিস্কার কারণ পাকিস্তানের থেকে আর মাত্র ২৭৩ রানের তারা পিছিয়ে রয়েছে।। হাতে রয়েছে ১০টি উইকেট।

প্রথম দিনে দুর্দান্ত ব্যাটিং করলেও দ্বিতীয় দিনের সকালটা মোটেও ভালো হয়নি পাকিস্তানের। আগের দিন দেড়শো রানের মাইলফলক স্পর্শ করা বাবর আজম এদিন কোনো রান যোগ করার আগেই সাজঘরে ফেরেন। এরপর আগা সালমান এক প্রান্ত আগলে রেখে ব্যাটিং করলেও আরেক প্রান্তে ছিল ব্যাটারদের আসা-যাওয়ার মিছিল। শেষ পর্যন্ত সালমানের সেঞ্চুরিতে ৪৩৮ রানে অলআউট হয় পাকিস্তান।

এরপর ব্যাটিংয়ে নেমে বিনা উইকেটে ১৬৫ রান সংগ্রহ করেছে নিউজিল্যান্ড।দুই কিউই ওপেনার টম লাথাম এবং ডেভন কনওয়ের ব্যাটে বিনা উইকেটে ১৬৫ রান তোলে দিনের খেলা শেষ করেছে। লাথাম অপরাজিত আছেন ৭৮ রানে, আর কনওয়ে উইকেটে আছেন ৮২ রান করে। আগের দিনের ৫ উইকেটে ৩১৩ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের ব্যাটিং শুরু করেছিল পাকিস্তান। শুরুতেই বাবরকে সাজঘরে ফেরান টিম সাউদি।পাকিস্তান অধিনায়ক আগের দিনের রানের সঙ্গে এদিন আর কোনো রান যোগ করতে পারেননি।