দম্ভ চূর্ণ বাংলাদেশের, চরমভাবে পরাজিত হয়ে লজ্জার রেকর্ড করলো বাংলাদেশের দল

১. বাবর আজম (পাকিস্তান)২. শুভমন গিল (ভারত)৩. কুইন্টন ডি’কক (দক্ষিণ আফ্রিকা)৪. রাসি ভ্যান ডার দাসেন (দক্ষিণ আফ্রিকা)৫. হ্যারি টেক্টর (আয়ারল্যান্ড)৬. রোহিত শর্মা (ভারত)৭. ডেভিড ওয়ার্নার (অস্ট্রেলিয়া)৮. ডেভিড মালান (ইংল্যান্ড)৯. বিরাট কোহলি (ভারত)১০. ইমাম উল হক (পাকিস্তান)

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করে ফেলেছেন বিরাট কোহলি। বিরাট কোহলিও ওপরে উঠে এসেছেন এবং তিনি রয়েছেন ব্যাটসম্যানদের তালিকায় যুগ্মভাবে ৮ নম্বরে। তাঁর রেটিং পয়েন্ট (৭১১) ডেভিড মালানের সঙ্গে সমান। তবে ক্রমতালিকায় ডেভিড মালানও অবস্থান করছেন আটে। ব্যাটসম্যানদের তালিকায় উল্লেখযোগ্য উন্নতি করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার কুইন্টন ডি’কক। তিনি ছয় থেকে একলাফে তিন নম্বরে উঠে এসেছেন বিশ্বকাপে দুরন্ত ইনিংসের জন্য।

```

গত সপ্তাহে প্রকাশিত ব়্যাঙ্কিংয়ে রোহিত ব্যাটসম্যানদের তালিকায় ১১ নম্বরে অবস্থান করছিলেন। তবে দুরন্ত পারফরমেন্সের দৌলতে এক ধাক্কায় অনেকটা উপরে উঠে গেলেন রোহিত শর্মা।বুধবার প্রকাশিত ব়্যাঙ্কিং অনুযায়ী ভারত অধিনায়ক বিশ্বের ৬ নম্বর ব্যাটসম্যান। অর্থাৎ ১১ নম্বর থেকে সোজাসুজি ৬ নাম্বার জায়গায় চলে এলেন রোহিত। অর্থাৎ, ব্যক্তিগত আইসিসি ব়্যাঙ্কিংয়ে ৫ ধাপ উন্নতি করেছেন রোহিত।ব্য়াটসম্যানদের তালিকার প্রথম দশে রয়েছেন ভারতের তিনজন ক্রিকেটার। শুভমন গিল যথারীতি দ্বিতীয় স্থান ধরে রেখেছেন। যদিও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ব্যাট হাতে বিশেষ কিছু করে দেখাতে না পারায় শীর্ষে থাকা বাবর আজমের থেকে তাঁর রেটিং পয়েন্টের ব্যবধান বেড়েছে। এক নম্বরে থাকা বাবরের রেটিং পয়েন্ট ৮৩৬। গিলের রেটিং পয়েন্ট ৮১৮। অর্থাৎ, দু’জনের মধ্যে ফারাক রয়েছে ১৮ পয়েন্টের। গত সপ্তাহে এই ব্যবধান ছিল মাত্র ৫ পয়েন্টের। পাশাপাশি এই লিস্টে উপরে এসেছেন বিরাট কোহলিও।

রদবদল হয়েছে বোলারদের তালিকাতেও। হেজেলউড যথারীতি শীর্ষস্থান ধরে রাখলেও মহম্মদ সিরাজ দ্বিতীয় স্থান থেকে তিন নম্বরে পিছিয়ে গিয়েছেন। ট্রেন্ট বোল্ট উঠে এসেছেন দ্বিতীয় স্থানে।

```

রশিদ খান ছয় থেকে চারে উঠেছেন। কেশব মহারাজ মুজিবের সঙ্গে যুগ্মভাবে পাঁচ নম্বরে অবস্থান করছেন। কুলদীপ যাদব যথারীতি ৮ নম্বরে জায়গা ধরে রেখেছেন।