ফিলিপস উইলিয়ামসন ঝড়ে বেসামাল পাকিস্তান, ঘরের মাঠে লজ্জার হার বাবরের পাকিস্তানের!

ব্যাট হাতে অনবদ্য ইনিংস খেললেন নিউজিল্যান্ডের কিপার ব্যাটার গ্লেন ফিলিপস। আর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচে ব্যাট হাতে পার্থক্যটা গড়ে দিলেন তিনিই। ফিলিপস ঝড়েই বেসামাল হল পাক বোলিং। ফলে ম্যাচ জেতার পাশাপাশি তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজও জিতে নিল কিউয়িরা। শেষ ম্যাচ জিতে ২-১ ফলে ওয়ানডে সিরিজ জিতে নিল পাকিস্তান। ফিলিপসের ব্যাটিং দেখে যেন মনে হল সম্পূর্ণ ভিন্ন উইকেটে খেললেন তিনি,পাকিস্তানের ১৫০ কিমি বোলাররা তার কাছে বাচ্ছা।

মিডল অর্ডার ব্যাটারের মারকুটে ব্যাটিংয়ে তৃতীয় ওয়ানডেতে পাকিস্তানকে হারাল নিউজিল্যান্ড।সিরিজের তৃতীয় তথা নির্ণায়ক ওয়ান ডে ম্যাচে নিউজিল্যান্ড ২ উইকেটে জয় তুলে নেয়। প্রথমে ব্যাট করে পাকিস্তান ৯ উইকেটে ২৮০ রানের বড়সড় ইনিংস গড়ে তোলে। পালটা ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ড ৮ উইকেটের বিনিময়ে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ২৮১ রান সংগ্রহ করে নেয়।প্রসঙ্গত করাচিতে তৃতীয় ওয়ানডেতে শুক্রবার ২ উইকেটে জিতল কেন উইলিয়ামসনের দল। প্রথমে ব্যাট করে পাকিস্তান ২৮০ রান করেছিল।

১১ বল বাকি থাকতেই সেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় নিউজিল্যান্ড। ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে হার দিয়ে শুরুর পর টানা দুই ম্যাচ জিতে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নিল নিউজিল্যান্ড দল। এদিন ফখর জামানের অনবদ্য শতরান এবং মহম্মদ রিজওয়ানের অর্ধশতরানে ভর করে লড়াকু স্কোর করতে সমর্থ হয়েছিল পাকিস্তান। উল্লেখ্য একটা সময়ে ২ উইকেটে ১৭৫ রান ছিল পাকিস্তানের স্কোর। এরপরেই ব্যাটিং ধ্বসের সম্মুখীন হয় তারা। ৭ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১০৫ রান করতে সমর্থ হয় পাক দলের মিডল অর্ডার।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ডেভন কনওয়ে(৫২) ও কেন উইলিয়ামসনের(৫৩) অর্ধশতরানে বেশ ভালো জায়গায় ছিল নিউজিল্যান্ড। এরপরে তাদের ইনিংসেও ছন্দপতন ঘটে। এরপর সাতে ব্যাট করতে নেমে বিস্ফোরক এক ইনিংসে দলের জয় নিশ্চিত করে দেন ফিলিপস। ৪২ বলে করেন অপরাজিত ৬৩ রান। তাঁর ইনিংস সাজানো ছিল চারটি ছয় ও চারটি চারে।উল্লেখ্য এদিন পাকিস্তানের হয়ে ফখর ও রিজওয়ান জুটিতে ১৫৪ রান যোগ করেন। এই জুটি ভাঙেন ইশ সোধি। রিজওয়ান ৭৪ বল খেলে ৭৭ রান করে আউট হন । শেষ দিকে আগা সলমন ৪৩ বলে করেন ৪৫ রান। ম্যাচে হ্যারিসের বদলে কনকাশন সাব হিসেবে খেলানো হয় কামরান গুলামকে।

উল্লেখ্য ৩৯তম ওভারে ৬ উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। এই অবস্থায় দলকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যান ফিলিপস। পাল্টা আক্রমণে দ্রুত রান করে তিনি দলকে জয়ের বন্দর পৌঁছে দেন।সংক্ষিপ্ত স্কোর:∆ পাকিস্তান : ২৮০/৯ (ফখর জামান ১০১,রিজওয়ান ৭৭,সাউদি ৫৬/৩)∆ নিউজিল্যান্ড : ২৮১/৮ (ফিলিপস ৬৩*, ওয়াসিম ৩৫/২)