সরি জাড্ডু!সেঞ্চুরি করে ভারতকে জিতিয়েও কোহলি ক্ষমা চাইলেন জাডেজার কাছে,কারণ জানলে অবাক হবেন!

আজকের ম্যাচে বিশ্বকাপের চতুর্থ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ভারত এবং বাংলাদেশ তবে এই ম্যাচের ফলাফল কি হতে পারে সেই নিয়ে কোন সন্দেহ ছিল না এবং সেরকমই হয়েছে ভারতীয় দল খুব সহজে এই ম্যাচে জয়লাভ করেছে। তবে এই ম্যাচে সবথেকে নজর কারা যে ব্যাপার ছিল বিরাট কোহলির ৪৮ তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি। কিন্তু এই ৪৮ তম সেঞ্চুরি করে ভারতীয় দলের জন্য জয় এনে দিয়েও রবীন্দ্র জাদেজাকে সরি বললেন কোহলি।

বৃহস্পতিবার বিরাট যখন ব্যাট করতে নামলেন, তখন ভারতের ৮৮ রান। ম্যাচ জেতা কঠিন না হলেও প্রয়োজন ছিল দায়িত্ব নিয়ে খেলা। বিরাট এবং শুভমন গিল সেটাই করছিলেন। শুভমন যখন নিজের উইকেট ছুড়ে দিয়ে ফিরে গেলেন, ভারতের তখন ১৩২ রান। জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল আরও ১৩২ রান। বিরাট নিজের লক্ষ্য থেকে সরেননি। তিনি চেয়েছিলেন দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়তে। সেই সঙ্গে বড় রান করাও ছিল তাঁর লক্ষ্য।

```

বিরাট ম্যাচ শেষে বলেন, “সরি জাড্ডু তোমার ম্যাচের সেরার পুরস্কার ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য। আমি চেয়েছিলাম বড় রান করতে। এই বিশ্বকাপে অর্ধশতরান করেছি। কিন্তু আমি চাইছিলাম ম্যাচ শেষ করে আসতে। সেই লক্ষ্য নিয়েই খেলছিলাম। শুভমনকে বলেছিলাম শুরুটা ভাল হয়েছে। এমন শুরু হলে মনে হয় স্বপ্ন দেখছি।”ম্যাচের শুরুতেই বিরাট শিরোনামে এসেছিলেন বল করে। হার্দিক পাণ্ড্য চোট পেয়ে মাঠ ছাড়ায় তিন বল করেন বিরাট। দু’রান দেন তিনি। তবে বল হাতে নয়, বিরাটের দিনটা ছিল ব্যাট হাতেই। তিনি রান তাড়া করতে ভালবাসেন। বাংলাদেশ সেই সুযোগটাই করে দিয়েছিল নিজেরা প্রথমে ব্যাট করে। সুযোগ কাজেও লাগালেন বিরাট। ৯৭ বলে শতরান করলেন ছক্কা মেরে।

বিশ্বকাপে রান তাড়া করতে নেমে এটাই বিরাটের প্রথম শতরান। তিনটি শতরান করে ফেললেন এক দিনের বিশ্বকাপে। পুণের মাঠেও তাঁর তৃতীয় শতরান। এক দিনের ক্রিকেটে ২৬ হাজার রান করে ফেললেন বিরাট। অস্ট্রেলিয়া এবং আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে অর্ধশতরান করেছিলেন বিরাট। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে মাত্র ১৬ রান করেছিলেন। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে পেয়ে গেলেন শতরান। এ বারের বিশ্বকাপে চার ম্যাচে ২৫৯ রান করেছেন বিরাট। এক দিনের ক্রিকেটে ৪৮তম শতরান হয়ে গেল। আর একটি করলেই ছুঁয়ে ফেলবেন সচিন তেন্ডুলকরকে।

```

এর পাশাপাশি 26 হাজার রান করতে বিরাট কোহলির সময় লেগেছে মাত্র ৫৬৭ টি ম্যাচ যেখানে শচীন টেন্ডুলকারের সময় লেগেছিল ৬০০টি ম্যাচ। অর্থাৎ সব থেকে দ্রুততম ২৬ হাজার রান করে দিলেন বিরাট কোহলি।

পাশাপাশি এই রানের তাড়া করতে নেমে বিশ্বকাপের ইতিহাসে এটি বিরাট কোহলির প্রথম সেঞ্চুরি এর আগে তিনি অসংখ্য সেঞ্চুরি করেছেন কিন্তু রান তারা করতে নেমে বিশ্বকাপের ময়দানে এই প্রথম।