রোহিত-বিরাটদের সমস্যায় ফেললেন ধাওয়ানরা! বিশ্বকাপের মূলপর্বে কঠিন সমীকরণ!

এক দিনের বিশ্বকাপে কোন কোন দল খেলবে, তা ঠিক হবে সুপার লিগের মাধ্যমে। এক দিনের বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জন করতে হলে প্রথম আট দলের মধ্যে থাকতে হবে সুপার লিগে। নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে ভারত কত নম্বরে? বাকি দলগুলির অবস্থান কোথায়? প্রতিটি দেশ একে অপরের বিরুদ্ধে যে দ্বিপাক্ষিক এক দিনের সিরিজ় খেলছে সেগুলির পয়েন্ট হিসাব করেই চলছে এই সুপার লিগ। এই লিগের প্রথম আটটি দল সরাসরি বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পাবে।

নিউ জ়িল্যান্ডের কাছে প্রথম একদিনের ম্যাচে হারলেও সুপার লিগেও প্রথম স্থানে রয়েছে তারা। তা ছাড়া ভারত আয়োজক দেশ হিসাবে বিশ্বকাপ খেলার ছাড়পত্র পেয়ে গিয়েছে।ভারত (১২৯ পয়েন্ট) সুপার লিগের শীর্ষ স্থান ধরে রেখেছে তারা। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইংল্যান্ড (১২৫ পয়েন্ট)। অস্ট্রেলিয়া (১২০ পয়েন্ট) রয়েছে তৃতীয় স্থানে। একই পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে নিউ জ়িল্যান্ড। একই পয়েন্ট রয়েছে বাংলাদেশ এবং পাকিস্তানের। পয়েন্ট সমান থাকলে নেট রানরেটের বিচারে ক্রমতালিকা নির্ধারণ করা হচ্ছে।

আফগানিস্তানের সংগ্রহ ১১০ পয়েন্ট। তারা রয়েছে সপ্তম স্থানে। অষ্টম স্থানে রয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ়।সুপার লিগের প্রথম আটটি দেশ সরাসরি বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন করবে। বাকি পাঁচটি দেশ খেলবে আইসিসির পাঁচটি অ্যাসোসিয়েট দেশের বিরুদ্ধে। সেই যোগ্যতা অর্জন পর্ব থেকে দু’টি দল উঠে আসবে মূল পর্বে। ১০টি দলকে নিয়ে হবে এক দিনের বিশ্বকাপ।

সুপার লিগে ম্যাচ জিতলে পাওয়া যায় ১০ পয়েন্ট। টাই, ড্র বা ম্যাচ না হলে পাঁচ পয়েন্ট করে পাবে দু’টি দল। হেরে গেলে কোনও পয়েন্ট নেই। পেনাল্টি ওভার পেলে এক পয়েন্ট কাটা যায়। ভারতের পরের ম্যাচ রবিবার। নিউ জ়িল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলবে তারা। এই সিরিজ়ে মোট তিনটি ম্যাচ খেলবে ভারত। প্রথম ম্যাচে হেরে গিয়েছেন শিখর ধাওয়ানরা। পরের দু’টি ম্যাচে না জিতলে সিরিজ় হারবে ভারত।

পাশাপাশি জানিয়ে রাখবো যে আগামীকাল নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেট দল এবং এই সিরিজে টিকে থাকতে হলে আগামী কালকের ম্যাচ ভারতীয় দলকে জয় লাভ করতেই হবে। আপাতদৃষ্টিতে ব্যাটিং নিয়ে ভারতের সেভাবে কোন চিন্তা নেই তবে বোলিং নিয়ে চিন্তা থেকেই যাচ্ছে।।