শ্রীলংকার বিরুদ্ধে ছিটকে গেলেন রোহিত! নতুন অধিনায়ক পাচ্ছে টিম ইন্ডিয়া!

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে এক দিনের সিরিজ়ে পাওয়া চোট সারছেই না রোহিত শর্মার। শাকিব আল হাসানদের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ়ে খেলতে পারেননি। এর পর শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজ়েও তাঁর খেলা অনিশ্চিত। রোহিতের অনুপস্থিতিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজ়ে ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দিতে পারেন হার্দিক পাণ্ড্য।সংবাদ সংস্থা পিটিআই সূত্রে খবর, রোহিতের চোট সারতে সময় লাগবে। লোকেশ রাহুল টেস্ট সিরিজ়ে ভারতকে নেতৃত্ব দিলেও টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে অন্য অধিনায়ক পেতে চলেছে ভারতীয় দল।

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় এক দিনের ম্যাচে স্লিপে ফিল্ডিং করার সময় ডানহাতের বুড়ো আঙুলে চোট পান রোহিত। সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। ফিরে এসে ফিল্ডিং না করলেও ব্যাট করতে নেমেছিলেন তিনি। অর্ধশতরান করলেও ভারতকে জেতাতে পারেননি। এর পর তৃতীয় এক দিনের ম্যাচে না খেলেই মুম্বই চলে যান রোহিত।শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজ়ে রোহিতের না থাকার পিছনে যদিও শুধু চোট কারণ নয় বলে মনে করছে পিটিআই। তাদের মতে ২০২৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে রোহিতকে ভাবছে না বোর্ড। সূত্রের খবর অনুযায়ী শ্রীলংকার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভারতের অধিনায়ক হতে পারেন হার্দিক।

তাই টি-টোয়েন্টি সিরিজ়গুলি থেকে ধীরে ধীরে রোহিতকে সরিয়ে দেওয়া হতে পারে। হার্দিককে শুধু টি-টোয়েন্টি নয়, সাদা বলের অধিনায়কও করা হতে পারে। রোহিতকে বাদ দেওয়ার অন্যতম কারণ অবশ্যই তাঁর বার বার চোট পাওয়া। বিরাটের পর সব ধরনের ক্রিকেটে রোহিতকে অধিনায়ক করার পর থেকে এখনও পর্যন্ত মাত্র দু’টি টেস্টে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি।

একাধিক সাদা বলের ম্যাচ খেলতে পারেননি চোটের জন্য। তাই হার্দিক তৈরি থাকলে বোর্ড খুব তাড়াতাড়ি তাঁর হাতে সাদা বলের ক্রিকেটের দায়িত্ব তুলে দিতে পারে।খুব তাড়াতাড়ি শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দল ঘোষণা করবে বোর্ড। ৩ জানুয়ারি থেকে শুরু টি-টোয়েন্টি সিরিজ়।

তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলা হবে ৩, ৫ এবং ৭ জানুয়ারি। এক দিনের সিরিজ় শুরু ১০ জানুয়ারি থেকে। তিন ম্যাচের সেই সিরিজ়ে পরের দু’টি ম্যাচ হবে ১২ এবং ১৫ জানুয়ারি। এর মধ্যে ১২ জানুয়ারির ম্যাচটি হবে কলকাতায়।