শচিনের ঐতিহাসিক রেকর্ড ভেঙে অনবদ্য নজির গড়লেন শুভমান গিল!

ট্যালেন্টেড ক্রিকেটারদের, বিশেষত ট্যালেন্টেড ব্যাটসম্যানদের ফ্যাক্টরি হলো ভারত। বিগত একটা লম্বা সময় ধরে একের পর একটা ট্যালেন্টেড ব্যাটসম্যান ভারতীয় দল পেয়ে আসছে। আর সেই তালিকাতে নতুন সংযোজন শুভমন গিল, তাকে একজন ভীষণ ট্যালেন্টেড ক্রিকেটার হিসেবে ধরা হয় আর সেটা এবার তিনি তার প্রত্যেকটি ম্যাচের পারফরম্যান্স দিয়ে প্রমাণ করে চলেছেন। শ্রীলংকার বিরুদ্ধে দুরন্ত পারফরমেন্সের পর এবার নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচেই তিনি জ্বলজ্বল করে তারার মতো জ্বলে উঠলেন।

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে টসে জিতে ভারতীয় দল প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়, আর ভারতের এই সিদ্ধান্তের সঠিক ফায়দা লুটে নেয় শুভমান গিল। ব্যাট করতে নেমে রোহিত এবং শুভমান খুব সুন্দর একটা শুরু করেন এবং প্রথম উইকেট এর জন্য ৬০ রানের একটি পার্টনারশিপ দেন যার মধ্যে ৩৪ রান করে আউট হয়েছেন রোহিত শর্মা। কিন্তু শুভ মন তার ব্যাটিং চালিয়ে যান এবং অপর প্রান্তে একের পর এক উইকেট পড়তে থাকলেও তাকে চুপ করিয়ে রাখা যায়নি।

মাত্র ১৪৯ বলে ২০৮ রানের একটি অনবদ্য ইনিংস খেলে তিনি অন্যতম রেকর্ড করে ফেলেন। এটি তার জীবনের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি এর আগে তিনি দুটো সেঞ্চুরি করেছেন তবে এটা তার প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি। বিশ্বের সবথেকে কনিষ্ঠতম ক্রিকেটার হিসেবে তিনি এই ডাবল সেঞ্চুরি করে অনবদ্য রেকর্ড করে ফেললেন এমনকি শচীন টেন্ডুলকারের থেকেও কম বয়সে তিনি এই ডবল সেঞ্চুরি করে ফেললেন।

১৯ টি চার এবং ৯ টি বিশাল ছক্কা দিয়ে তিনি তার ইনিংস টি তৈরি করেন। তাকে আটকানোর মতো ক্ষমতা নিউজিল্যান্ডের বোলারদের হাতে ছিল না। শুভমান গিল এর ডবল সেঞ্চুরির দৌলতে ভারতের অন্য ব্যাটসম্যানদের আজকে সেরকম কোন পারফরমেন্স করার প্রয়োজনই পড়েনি। কারণ একটা দিক থেকে তিনি একের পর এক অনবদ্য শট খেলেই চলেছিলেন।

সূর্য কুমার যাদবের ৩১ রান হার্দিক পান্ডিয়ার ২৮ রান বিরাট কোহলির ৮ রান, ঈশান-কিশনের ৫ এবং ওয়াশিংটন সুন্দর এর ১২ রানের দৌলতে ভারত ৩৪৮ রানের একটা বিশাল লক্ষ্যমাত্রা পর্যন্ত পৌঁছে যায়।