সাপকে নিয়ে করছিল মজাঠাট্টা!চুমু খেতে গিয়ে সাপের ছোবল খেল যুবক,তুমুল ভাইরাল ভিডিও

চুমু খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে ভীষণ ভালো কিন্তু যাকে তাকে চুমু খাওয়া কিন্তু একেবারেই ভালো নয়। এই ধরুন আপনার ইচ্ছা হলে আপনি বাঘের গলায় মালা পরিয়ে দিতে চলে গেলেন বা সাপের মুখে চুমু খেলেন তাহলে ভালোবাসার বদলে মৃত্যু কিন্তু ঘনিয়ে আসতে পারে। কিন্তু আমাদের মধ্যে এমন কিছু মানুষ রয়েছেন যারা সমস্ত সম্ভাবনাকে অগ্রাহ্য করে কোন না কোন সাহসিকতা দেখিয়ে চলেছে সব সময়। আজ এমনই একজন যুবকের কথা বলতে চলেছি আমরা আপনাকে।

একটি গোখরো সাপ উদ্ধার করতে গিয়েছিলেন অ্যলেক্স নামে এক যুবক। তিনি বরাবরই সাপ উদ্ধার করেন তাই তিনি জানেন এই কাজে ঝুঁকি রয়েছে। কিন্তু এত কিছু জানার পর তিনি গোখরো উদ্ধার করে ক্যামেরার সামনেই সাপের মাথায় চুমু খেতে গেলেন। হয়তো এই কাজ তিনি আগেও করেছেন কিন্তু এবারে ভাগ্যটা নিতান্তই খারাপ ছিল তার।সবে সাপের মাথায় চুমু খাওয়ার জন্য মুখ ঠেকিয়েছিলেন অ্যালেক্স, তখনই হাতের মুঠো একটু আলগা হয়ে যায়।

সেই সুযোগে আলেক্সের ঠোঁটে ছোবল বসিয়ে দেয় ঐ গোখরো। ছোবল খাওয়ার পরেই সাপটিকে ছেড়ে দেন অ্যালেক্স। এই ঘটনাটি ঘটেছে কর্নাটকের শিমোগা জেলার ভদ্রাবতীতে। সাপ ছোবল মারার পর ওই ব্যক্তিকে সঙ্গে সঙ্গে জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।স্থানীয় সূত্রে খবর, শিমোগা জেলার লোকালয়ে যে কোন সাপ ঢুকে গেলে ডাক পরে অ্যালেক্স এবং রনি নামে দুই সাপ উদ্ধারকারীর। দেখুন ভিডিও:

সাপ উদ্ধার করার পর সেগুলি জঙ্গলে ছেড়ে দিয়ে আসে তারা। এহেন অবস্থায় বুধবার ভদ্রবতিতে এক বিয়ে বাড়িতে সাপ ঢুকে পড়ে। তখন ডাক পরে ওই সাপ উদ্ধারকারীদের। সাপ উদ্ধার করার পর হঠাৎ করে অ্যালেক্স ক্যামেরা সামনে সেটির মাথায় চুমু খেতে যায় এবং সঙ্গে সঙ্গে ঘটে যায় বিপত্তি।

হাসপাতালে ভর্তি করার পর চিকিৎসকদের পরামর্শ মত দুদিন বাদে ছেড়ে দেওয়া হয় তাকে। অ্যালেক্স এখন পুরোপুরি সুস্থ। ভবিষ্যতে হয়তো এই কর্মটি দ্বিতীয় বার করার সাহস পাবে না সে।