‘বাগাল ছেলে,প্রতিদিন একই ভুল’: ছেলের ইনিংস নিয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে বি’স্ফোরক শুভমান গিলের বাবা

এই নিয়ে কোন সন্দেহ নেই যে বর্তমানে ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম সুপারস্টার শুভমান গিল। যেভাবে এবং যে আন্দাজে তিনি ব্যাট করছেন, তাতে বিপক্ষ দলের বোলারদের জন্য একটা বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে তাকে আউট করা এমনকি ক্রিকেট ভক্তরা বিরাট কোহলির পরে তাকেই নতুন রান মেশিন বলে দাবি করেছেন কারণ তিনি বিগত চার ওয়ান ডে ম্যাচে ৪৭৬ রান করেছেন। আর তার খেলা দেখে বোঝাই যাচ্ছে তিনি কতটা ভালো ফর্মে রয়েছেন। কিন্তু তার এই ব্যাটিং নিয়ে মোটেও খুশি নন তার বাবা।

তার বাবার মনে হয় যে ছেলে যখন একটা ভালো শুরু পাচ্ছে তখন সেটাকে অবশ্যই সেঞ্চুরিতে নিয়ে যাওয়া উচিত, আর সেঞ্চুরি করার পর যদি যথেষ্ট সময় থাকে তাহলে অবশ্যই ছেলেকে ডবল সেঞ্চুরি করতেই হবে। অন্তত বড় স্কোর করতে হবে 180-90, তার যুক্তি প্রত্যেকদিন প্রতিটি ম্যাচে কিন্তু সে এই ধরনের শুরু পাবে না যেখানে 40-50 রান প্রথমে এসে যাবে। তাই কোন ম্যাচে যদি এরকম হয় যে সে একটা ভালো শুরু পায় তাহলে অবশ্যই সেটাকে বড় রানে পরিণত করতে হবে।।

শুভমান গিলের বাবার সব থেকে বড় দাবি হলো সেঞ্চুরি করার পর তার হাতে অবশ্যই সময় থাকে কারণ যেহেতু সে ওপেন করে সুতরাং সেঞ্চুরি কে ডবল সেঞ্চুরিতে পরিণত করতেই হবে। এমনকি শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে যখন তিনি সেঞ্চুরি করেছিলেন সেই ইনিংস তিনি ডবল সেঞ্চুরি করতে পারেননি সেই নিয়ে মিডিয়াতে স্পষ্ট বার্তা দিয়েছিলেন তার বাবা যে ছেলে ডবল সেঞ্চুরিটা মিস করে চলে এলো, ঠিক যেমন এখনকার দিনের গার্জেনরা পড়াশোনা নিয়ে বসে থাকে ছেলেদের পিছনে যে পরীক্ষায় প্রশ্নের উত্তর না দিয়ে ছেড়ে চলে এসেছে ঠিক সেরকম কিছুটা।

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে অনবদ্য ডবল সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি এবং শেষ ওয়ানডে ম্যাচে আরো একটি সেঞ্চুরি তিনি করেন এবং এই ইনিংস টি খেলার পরেই তাকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন যে বাবা মোটেও খুশি হবে না তার কারণ আমার কাছে সময় ছিল ডবল সেঞ্চুরি করার অথচ আমি করে উঠতে পারিনি।

যদিও সোশ্যাল মিডিয়ার নেটিজেনরা এবং ক্রিকেট ভক্তরা শুভমান গিলের পাশেই দাঁড়িয়েছেন যে সেঞ্চুরি করাটাও একটা কিন্তু অনেক বড় প্রাপ্তি। অবশ্যই চেষ্টা করা উচিত সেঞ্চুরি কে ডাবল সেঞ্চুরিতে পরিণত করার তবে সেটা না হলে এতটা মন খারাপ করার কিছু নেই, সেঞ্চুরি করাটাও কিন্তু একটা বড় ইনিংস খেলা।