ট্রেনে চলবে না আর TTE দের মনমর্জি,এবার থেকে হাতে নিয়ে চলতে হবে এই আধুনিক মেশিন

বিশ্বের সবথেকে বড় রেলওয়ে গুলির মধ্যে ভারতীয় রেলওয়ে হলো অন্যতম। সারা ভারত জুড়ে হাজারো কিলোমিটারে বিস্তৃত ভারতীয় রেলওয়ে আবার তার সাথে রয়েছে মেট্রো রেল সব মিলিয়ে ভারতীয় রেল সংস্থা একটি বিশাল বড় সংগঠন। আর ভারতীয় রেলের মুখ্য টার্গেট থাকে যাত্রীদের ভালো সার্ভিস দেওয়া কিন্তু অনেক ক্ষেত্রেই কমপ্লেইন আসে যে মাঝেমধ্যেই যাত্রীদের বিরক্ত করা হয়।

ভারতীয় রেলওয়ে ভীষণভাবে চেষ্টা করে যাতে বিভিন্ন রকমের নিয়ম করে এই সমস্ত সমস্যা গুলিকে আটকানো যায় এবং রেলের কোন কর্মী যাতে যাত্রীদের কোন রকম সমস্যা বা বিরক্ত করতে না পারে। এবারও ভারতীয় রেলওয়ে(Indian Railways) সিস্টেমে কিছু পরিবর্তন করতে চলেছে । অনেক সময় অনেক যাত্রী ট্রেনে ভ্রমণকালে টিটিই দ্বারা নাজেহাল হন বলে অভিযোগ আসে। তবে ট্রেনের এই নিয়মের বদল ঘটতে চলেছে এবারে।

রেল সূত্রে খবর ট্রেনে (Train) ভ্রমণের সময় টিটিই(TTE) নির্বিচারে কোনো যাত্রীর বার্থ বরাদ্দ করতে পারবে না।এবার থেকে সমস্ত টিটির হাতে থাকবে আধুনিক হ্যান্ড হেল্ড টার্মিনাল (HHT)। এর মধ্যে দিয়েই বার্থ বরাদ্দ করতে হবে। ইতিমধ্যেই ভারতীয় রেলওয়ের নির্দেশে উত্তর-পূর্ব রেলেওয়ে এই বিষয়ে কর্মীদের প্রশিক্ষণ দিতে শুরু করেছে। কি হবে এই মেশিনের দ্বারা?

রেল সূত্রে খবর, এবার থেকে বার্থ খালি হলে তবেই আরএসি(RAC) এবং ওয়েটিং লিস্টে থাকা টিকিট নিশ্চিত করা হবে। এর ফলে এইচএইচটি মেশিনের অনুমোদন ছাড়া কোনো বার্থ বরাদ্দ করা হবে না। যেটি ইন্টারনেটের সাথে যুক্ত থাকবে এবং রিয়েল টাইমে যাত্রীরা জানতে পারবেন বার্থ এর অবস্থা। যার ফলে কোন রকম কারচুপি করার সুযোগ থাকবে না।

এর ফলে যে সমস্ত যাত্রীর টিকিট ওয়েটিং লিস্টে থাকবে তাদের স্বস্তি হবে এবং স্বচ্ছতার সাথে রিয়েল টাইম বার্থ মিলবে।এর ফলে একদিকে যেমন ওয়েটিং লিস্টে থাকা যাত্রীদের সুবিধা হবে অন্যদিকে কোনরকম কারচুপি করার সুযোগ থাকবে না।ভারতীয় রেলের পক্ষ থেকে উত্তর পূর্ব রেল মোট ৩১৬টি এইচএইচটি মেশিন পেয়েছে। খুব শীঘ্রই আরো বেশি সংখ্যক মেশিন ছড়িয়ে দেওয়া হবে কর্মীদের মধ্যে এবং যেকোনো ধরনের কারচুপি অথবা টিটিদের দ্বারা হেনস্থাকে আটকানো যাবে।।