ভারতের কাছে হারের আগেই বাবর আজম তৈরি করে ফেললেন বাহানা এবং বলে দিলেন ওই ক্রিকেটার দলে নেই অভাব অনুভব করব

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের ময়দানে অষ্টমবারের জন্য নেমেছিল ভারতীয় দল এবং যে অপেক্ষা করছিল সারা ভারতের ক্রিকেট ভক্তরা হয়েছে ঠিক সেটাই এবং অষ্টম বারের জন্য পাকিস্তান ভারতের কাছে বিশ্বকাপের ময়দানে পরাজিত হয়েছে যেটা একটা সর্বকালের রেকর্ড এবং বিশ্বের কোন দল এখনো পর্যন্ত অন্য কোন দলের বিরুদ্ধে ৮ ম্যাচে পরাজিত হয়নি একটি ম্যাচও না জিতে। আর ভারতের এই দুর্দান্ত জয়ের জন্য অন্যতম দায়ী ছিল অবশ্যই ভারতের বোলাররা তবে ব্যাট হাতেও রীতিমতো তাণ্ডব চালিয়েছেন ভারত ক্যাপ্টেন রোহিত শর্মা কিন্তু ম্যাচ জিতেও তিনি অন্য একজনকে জয়ের কৃতিত্ব দিলেন।

ভারত ক্যাপ্টেন রোহিত শর্মা আজকে ৮৬ রান করেছেন এবং একটি তুফানি ইনিংস খেলেছেন যেখানে তার ইনিংস টি সমৃদ্ধ ছিল ছটি 4 এবং 6 টি বিশাল ছক্কা দিয়ে। তবে অধিনায়ক রোহিত শর্মা ম্যাচ শেষে বেশ কয়েকটি ইম্পরট্যান্ট কথা বলে যান ভারত এবং পাকিস্তান দুই দেশকে নিয়েই। প্রথমেই তাকে প্রশ্ন করা হয় যে কেন সারদুল ঠাকুরকে মাত্র দু ওভার বোলিং করানো হলো এবং হার্দিক পান্ডিয়াকে তার থেকে এতগুলো বেশি ওভার করতে দেওয়া হলো কারণ মেইন বোলার তো শারদুল ঠাকুর, হার্দিক পান্ডিয়াকে কিছু ওভার করানো যেতে পারে কিন্তু এতগুলো ওভার তাকে দেওয়া হলো, অথচ শারদুল কে মাত্র দু’ওভার। এই প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে রোহিত বলে গেলেন অনেক কিছুই।

```

সবার প্রথমেই রোহিত শর্মা একটা বিশাল বড় মন্তব্য করে দেন যে এটা কোনভাবেই ১৯০ রানের পিচ ছিল না এটা কিছু না হলেও ২৭০-৮০ রানের পিচ ছিল। পাকিস্তান দলকে স্পষ্টতই এখানে একহাত নিলেন এবং সমালোচনা করলেন রোহিত শর্মা, এর পাশাপাশি তিনি এটাও বলেন যে একটা সময় তো ভাবছিলাম আমরা ২৭০-৮০ তারা করবো কিন্তু এতটা সহজ হয়ে যাবে ব্যাপারটা ভাবিনি। এর পাশাপাশি তিনি বলেন যে ভারতীয় দলের আজকের জয়ের অন্যতম নায়ক হিসেবে ধরা যেতে পারে হার্দিক পান্ডিয়াকে তার কারণ হিসেবে তিনি বলেন সারদুলের আজকে বোলিং খুব একটা ভালো হচ্ছিল না সে ভালো ছন্দ পাচ্ছিল না। তাই তার পরিবর্তে আমরা হার্দিককে অতিরিক্ত ওভার করতে দিই।

বল হাতে যে ধরনের বোলিং করেছে হার্দিক এবং উইকেট তুলেছে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে, যার দৌলতে ভারতীয় দল বিপক্ষকে অবশ্যই ধ্বংস করতে পেরেছে পাশাপাশি বাকি যে সমস্ত বোলাররা রয়েছে বিশেষত কুলদীপ বুমরা সিরাজ প্রত্যেকেই দুর্দান্ত বোলিং করেছেন বলেই জানাচ্ছেন রোহিত শর্মা।

```

ম্যাচের কৃতিত্ব তিনি হার্দিককে অনেকটাই দিচ্ছেন তার কারণ, হার্দিকের মতো বোলারের ভারতীয় দলের সাথে থাকা অতিরিক্ত সুবিধার এই কারণেই যে কোন একটা বোলারের দিন খারাপ গেলে যেমন আজকে সারদুলের দিন খারাপ যাচ্ছিল সেখানে হার্দিক এসে সমস্তটা সমাধান করে দেয়।

লাগাতার একের পর এক ম্যাচের দুরন্ত ইনিংস দিয়ে রোহিত শর্মা প্রমাণ করছেন যে বিশ্বকাপের ময়দানে তিনি এক অন্য লেভেলের ব্যাটসম্যান এ পরিণত হন কারণ ২০১৯ সালের বিশ্বকাপেও তিনি পাঁচটি সেঞ্চুরি করেছিলেন যার দৌলতে ভারতের সেমিফাইনালে খুব একটা অসুবিধা হয়নি খুব সহজেই ভারত সেমিফাইনালে পৌঁছে ছিল।