দেশের জার্সিতে গর্বিত বাবা মা, রিংকু সিং এর গল্প ইতিহাস গড়তে চলেছে বিশ্ব ক্রিকেটে

নেপালের বিরুদ্ধে পুরো টিমকে দেখে নিতে চেয়েছিলেন। দলের মনোবল বাড়িয়ে নেওয়া ছিল লক্ষ্য। প্রত্যাশিত ভাবে তা পেয়ে গিয়েছে পাকিস্তান টিম। বাবর আজম ও ইফতিকার আহমেদ সেঞ্চুরি করেছেন। কিন্তু টপ অর্ডার সে ভাবে রান পায়নি। তা খানিকটা হলেও চাপে রাখবে। শাহিন শাহ আফ্রিদির মতো পেসার সামান্য চোট পেয়েছেন। তাঁকে নিয়ে অনিশ্চয়তা আছে কিনা, তা অবশ্য পাক শিবির থেকে এখনও বলা হয়নি। ওইটুকু বাদ দিলে গ্রিন আর্মি মোটামুটি ছন্দে। শনিবার ভারতের (India vs Pakistan) বিরুদ্ধে এশিয়া কাপের (Asia Cup 2023) ম্যাচ। এই উত্তেজক ম্যাচ ঘিরে আগ্রহের শেষ নেই।

গত বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে (World Cup 2023) শেষ বার ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি হয়েছিল। তার পর আবার রোহিত শর্মার টিমের বিরুদ্ধে নামবেন বাবর আজমরা। ২ সেপ্টেম্বরের ওই ম্যাচ নিয়ে কী ভাবছেন বাবর? নেপালের বিরুদ্ধে ১৫১ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেছেন বাবর। ওয়ান কেরিয়ারের ১৯তম সেঞ্চুরি করে ফেললেন পাক অধিনায়ক। সেই সঙ্গে মিডল অর্ডার ব্যাটার ইফতিকার আহমেদও করেছেন ১০৯। ২৩৮ রানে জয় ভারতের বিরুদ্ধে নামার আগে ফুরফুরে রাখবে পাকিস্তানকে। কী বলছেন পাক অধিনায়ক?

```

বাবরের কথায়, ‘ভারতের বিরুদ্ধে নামার আগে এই ম্যাচ আমাদের কাছে ভালো প্রস্তুতি ছিল। পুরো টিম আত্মবিশ্বাস পেয়ে গিয়েছে। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ সব সময় উত্তেজক। আমরা সব ম্যাচেই ১০০ শতাংশ দিতে চাই। ভারতের বিরুদ্ধে আশা করি সেটা দিতে পারব।’ ওডিআই ব়্যাঙ্কিয়ে এক নম্বর ব্যাটার বাবর। নিজের এবং পাকিস্তানের ইনিংস শক্ত হাতে এগিয়ে নিয়ে যান। নেপালের বিরুদ্ধেও সেটাই দেখা গিয়েছে। ৭২ বলে হাফসেঞ্চুরি করেছিলেন। ১০৯ বলে সেঞ্চুরি করেন।

এই বাবর কিন্তু আগের থেকেও অনেক বেশি আগ্রাসী ব্যাটিং করছেন। পরের ৫১ রান এসেছে মাত্র ২২ বলে। বিশ্বকাপের আগে তিনি যে ছন্দটা ধরে রাখতে চান, তা পরিষ্কার করে দিয়েছেন। বাবরের রানের মধ্যে থাকা টিমকেও স্বস্তি দেবে। বাবর বলেছেন, ‘আমি যখন ক্রিজে গিয়েছিলাম, বল থমকে আসছিল। সেই কারণেই রিজওয়ানকে সঙ্গী করে ইনিংসটা ধীরে ধীরে সাজাচ্ছিলাম।

```

পরে ইফতিকার নেমে দারুণ পারফর্ম করল। ক্রিজে আসার পর ওকে স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে বলেছিলাম। ২-৩টে বাউন্ডারির পর ও সেট হয়ে গিয়েছিল।’বাবর এবং পাকিস্তানের কাছেও শনিবার বড় পরীক্ষা। নেপালের মতো দুর্বল টিমের বিরুদ্ধে প্রস্তুতি যতই সারুক গ্রিন আর্মি, ভারতের বিরুদ্ধে তা যে কাজে লাগবে না, বাবরের থেকে ভালো আর কে জানেন!