শেষ মুহূর্তে চমক! ভারতের বিরুদ্ধে ইতিহাস গড়া প্লেয়ারকে দলে নিয়ে নতুন করে বিশ্বকাপ দল ঘোষণা অস্ট্রেলিয়ার !

আর মাত্র কয়েক দিনের অপেক্ষা তারপরে শুরু হতে চলেছে বহুল অপেক্ষিত বিশ্বকাপ। গতকাল ভারতের বিপক্ষে ৩ ম্যাচের একদিনের সিরিজে প্রথম ২ ম্যাচে হারার পর শেষ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া (India vs Australia Match) দুরন্ত ফর্মে ফিরে এসেছে। তবে বিশ্বকাপের (World Cup 2023) আগে প্যাট কামিন্সের দল এখনও চোট সমস্যার মধ্যে রয়েছে।‌ একাধিক অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার চোট সারিয়ে ভারতের বিপক্ষে ফিরে এলেও বাঁহাতি অফ-স্পিনার অ্যাশটন আগার (Ashton Agar) চোটের কারণে মাঠের বাইরে ছিলেন। এবার আরও খারাপ খবর অজি শিবিরে।

তিনি চোটের কারণে বিশ্বকাপের দলের বাইরে চলে গেলেন।সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের আগে ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার সাথে প্রশিক্ষণের সময় অ্যাশটন আগার পায়ের পেশিতে চোট পান। এরপর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৫ ম্যাচের একদিনের সিরিজের প্রথম ম্যাচে ফিরে এলেও পায়ে ব্যথা অনুভব করার পর তিনি সিরিজের আর কোনো ম্যাচে খেলেননি। তবে আগার বিশ্বকাপে খেলার জন্য অত্যন্ত আশাবাদী ছিলেন। তিনি সেই সময় এক সাক্ষাৎকারে বলেন,”ভারতে বিশ্বকাপের একদিনের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট সেরা হিসাবে সামনে আসছে। আপনি জানেন না কী ধরনের পিচ পেতে চলেছেন।

```

তাই বেশিরভাগ ম্যাচে দুজন স্পিনার খেলানোর সম্ভাবনা আছে।”তারপর আগর তার সন্তানের জন্মের জন্য অস্ট্রেলিয়া ফিরে যান এবং ভারতের বিপক্ষে ৩ ম্যাচের একদিনের সিরিজেও অংশগ্রহণ করেননি। তবে মনে করা হচ্ছিল বিশ্বকাপের আগে ভারতে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার জন্য তিনি ফিরে আসবেন। এবার চোটের কারণে অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপের দল থেকেও অ্যাশটন আগার বাদ পড়লেন। ট্র্যাভিস হেড (Travis Head) এবং নাথান এলিসের (Nathan Ellis) সঙ্গে এই বিষয়টিও এখন আজি শিবিরকে রীতিমতো চিন্তায় রেখেছে।

তবে ট্র্যাভিস হেড বিশ্বকাপে নিজের জায়গায় ফিরে আসতে পারেন।এই মুহূর্তে অস্ট্রেলিয়া দলে একমাত্র সম্পূর্ণ স্পিনার হিসেবে অ্যাডাম জাম্পা (Adam Zampa) আছেন। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (Glenn Maxwell) এবং স্টিভ স্মিথ (Steve Smith) স্পিন-বান্ধব পিচে কাজে আসবেন বলে মনে করা হচ্ছে। গতকাল ম্যাক্সওয়েল ভারতের বিপক্ষে ৪ টি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট শিকার করেছেন।

```

অন্যদিকে অ্যাশটন আগারের পরিবর্তে ফর্মে থাকা মারনাস লাবুসেন (Marnus Labuschagne) দলে আসার দৌড়ে এগিয়ে আছেন। তিনি ব্যাটিং করার সঙ্গে সঙ্গে বোলিং-ও অস্ট্রেলিয়া দলকে সাহায্য করবেন।

সব মিলিয়ে বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার দল যে যথেষ্ট শক্তিশালী হতে চলেছে এই নিয়ে কোন সন্দেহ নেই।