অবিশ্বাস্য: ছক্কার ফুলঝুরি! ইতিহাস গড়লেন ভারতীয় ক্যাপ্টেন রোহিত শর্মা

আজ ছিল ভারত এবং পাকিস্তানের হাই ভোল্টেজ ক্রিকেট বিশ্বকাপের ম্যাচ যার জন্য একটা দীর্ঘ সময় ধরে ক্রিকেট ভক্তরা অপেক্ষা করেছিল। এখনো পর্যন্ত ক্রিকেট বিশ্বকাপে পাকিস্তান ভারতের বিরুদ্ধে কোন ম্যাচে জয়লাভ করতে পারেনি সুতরাং তাদের উপর চাপ অনেক বেশি ছিল যে অন্তত যাতে খাতা তারা খুলতে পারে। আর চাপে নেই বলে চাপ কাটাতে চাইলেন বাবর আজম। কেননা ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেট ম্যাচে দু’দলের কোনও ক্রিকেটার যদি দাবি করেন যে, তাঁর উপর বা দলের উপর কোনও চাপ নেই, ক্রিকেটপ্রেমীদের পক্ষে সেটা মেনে নেওয়া কঠিন। তার উপর ওয়ান ডে বিশ্বকাপের মঞ্চে পাকিস্তানের কোনও ক্যাপ্টেন যদি এমন দাবি করেন, তবে বুঝে নিতে হয় যে, সেটা চাপ কাটানোর কৌশল। তবে ম্যাচ হয়ে না হতেই তিনি বাহানা প্রস্তুত রাখছেন এমনটাই মনে করছে ক্রিকেট ভক্তরা।

বিশ্বকাপে ভারতকে কখনও হারাতে পারেনি পাকিস্তান। ওয়ান ডে বিশ্বকাপে ৭টি ম্যাচেই টিম ইন্ডিয়ার কাছে হেরে গিয়েছে তারা। তাই আরও একটি ম্যাচ হারলে দলের উপর বিশেষ প্রভাব পড়া উচিত নয়। তবে এশিয়া কাপে টিম ইন্ডিয়ার কাছে হেরে আসার পরে ফের বিশ্বকাপে মঞ্চে ভারতের কাছে পর্যুদস্ত হতে হলে যে সমর্থকরা ছেড়ে কথা বলবেন না, সেটা ভালো মতোই বোঝেন পাক দলনায়ক।শনিবার আমদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে লক্ষাধিক দর্শকের সামনে ভারতের বিরুদ্ধে মাঠে নামবে পাকিস্তান।

```

তার আগে শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলনে বাবর আজম বলেন, ‘এটা আমাদের কাছে চাপের ম্যাচ নয় মোটেও। কেননা আমরা একে অপরের বিরুদ্ধে বহু ম্যাচ খেলেছি। আগে কী হয়েছে, সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। আমাদের নজর রয়েছে বর্তমানে। আমাদের বিশ্বাস, আমরা ভালো কিছু করে দেখাতে পারি। এটা ঠিক যে, ভারত-পাক ম্যাচে উত্তেজনা থাকে চরমে।’

চোটের জন্য নাসিম শাহকে বিশ্বকাপ দলে পায়নি পাকিস্তান। ভারতের বিরুদ্ধে বড় ম্যাচের আগে পাক দলনায়ক বাবর আজম স্বীকার করে নেন যে, রোহিতদের বিরুদ্ধে নাসিমকে মিস করবেন তাঁরা। পাকিস্তানি ক্যাপ্টেন এর দাবি যেহেতু তাদের কাছে নাসিম শাহ নেই সুতরাং তাদের দল আনকমপ্লিট। অর্থাৎ নাসিম না থাকার জন্য তারা ম্যাচে হয়তো পরাজিত হতে পারেন এটা আগে থেকেই বলে রেখেছেন। যদিও বাবরের আশা, শাহিন আফ্রিদি এই ম্যাচে তরী পার করাবেন পাকিস্তানের। চলতি বিশ্বকাপে এখনও পর্যন্ত তেমন একটা নজর কাড়তে না পারলেও পাক দলনায়ক ভরসা রাখছেন আফ্রিদির উপর।

```

বাবর বলেন, ‘পিচের পরিস্থিতি অনুযায়ী আমাদের পরিকল্পনা করতে হবে। প্রথম ১০ ওভারে পিচ একরকম থাকে। ১০ ওভারের পরে পিচ বদলে যায়। আমাদের সেই অনুযায়ী গেম প্ল্যান সাজাতে হবে। আমরা নাসিম শাহকে মিস করব। যেভাবে এশিয়া কাপে বল করেছে, ওর অভাব আমরা টের পাচ্ছি। শাহিন আমাদের চ্যাম্পিয়ন বোলার। ও বড় ম্যাচের প্লেয়ার। ওর উপর আমাদের পূর্ণ বিশ্বাস রয়েছে আর ওর বিশ্বাস রয়েছে নিজের উপরে।’

আমদাবাদে লক্ষাধিক দর্শকের সামনে খেলা প্রসঙ্গে বাবর বলেন, ‘এত দর্শকের সামনে ভালো কিছু করে দেখানোর দারুণ সুযোগ রয়েছে আমাদের। হায়দরাবাদে আমরা দর্শকদের বিস্তর সমর্থন পেয়েছি। আশা করি আমদাবাদেও দর্শকরা আমাদের হয়ে গলা ফাটাবেন।’