ঐতিহাসিক:সৌরভ ছাড়া এই প্রথম ভারতীয় দলের সাথে যুক্ত হয়ে বড় পদ পেলেন এক বাঙালি

২০২৩-‘২৫ চক্রে তৃতীয় বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জয়ের জন্য লড়াই করবে টেস্ট খেলা আইসিসির পূর্ণ সদস্য দেশগুলো। যার সূচি ইতিমধ্যেই বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসির তরফে ঘোষণা করা হয়েছে। যা সূচি ঘোষণা করা হয়েছে তাতে করে কঠিন হতে চলেছে ভারতের লড়াইয়ের পথ। সদ্য চ্যাম্পিয়ন হওয়া অস্ট্রেলিয়াকেও তুলনামূলক কঠিন পথ পার করতে হবে। সেই তুলনাই অনেকটাই সহজ পথ পেরতে হবে দক্ষিণ আফ্রিকাকে। আগের মতই পয়েন্টের শতকরা হিসেবে নির্ধারণ করা হবে দুই ফাইনালিস্টকে।৯ দলীয় ডব্লুটিসির যে সূচি আইসিসি দিয়েছে, তাতে করে বিসিসিআইয়ের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়তে বাধ্য।

দুই বছরের এই চক্রে সবকটি দলকেই কমপক্ষে তিনটি হোম এবং তিনটি অ্যাওয়ে সিরিজ খেলতে হবে। অফিসিয়ালি এই তৃতীয় ডব্লুটিসির আসর শুরু হচ্ছে আসন্ন অ্যাশেজ সিরিজ দিয়ে। ১৬ জুন থেকে এজবাস্টন টেস্টের মধ্যে দিয়ে শুরু হবে এই অ্যাশেজ। গত বারের চ্যাম্পিয়নরা এজবাস্টনের পাশাপাশি এবারের অ্যাশেজে খেলবে লর্ডস, লিডস, ম্যাঞ্চেস্টার এবং দ্য ওভালে।তুলনামূলক বিচার করলে ভারত, অস্ট্রেলিয়া এবং পাকিস্তানের সূচি কিছুটা কঠিন। ভারত তাদের এই ডব্লুটিসির সফর শুরু করছে আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর দিয়ে। আগের বারের মতন এবারও জয়ী দল পাবে ১২ পয়েন্ট। টাই হলে পাবে ছয় পয়েন্ট এবং ড্র হলে পাবে চার পয়েন্ট।

```

এই চক্রে অজিরা ন’টি অ্যাওয়ে টেস্ট খেলবে। যার মধ্যে রয়েছে নিউজিল্যান্ড এবং শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দু’টি করে ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। ঘরের মাঠে ভারতের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই ম্যাচের অর্থাৎ মোট ১০টি টেস্ট খেলবে তারা। ইংল্যান্ড ঘরের মাঠে ১১টি এবং অ্যাওয়েতে ১০টি টেস্ট খেলবে। তারা ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের, শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দুই ম্যাচের, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ খেলবে।

ভারতে গিয়ে তারা পাঁচ ম্যাচের, পাকিস্তানে তিন ম্যাচের এবং নিউজিল্যান্ডে তিন ম্যাচের সিরিজ খেলবে।দ্বিতীয় ডব্লুটিসিতে রানার্স আপ ভারত ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিনটি, ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচটি, এবং বাংলাদেশের বিরুদ্ধে দু’টি টেস্টে খেলবে। এ ছাড়াও তারা ওয়েস্ট ইন্ডিজে গিয়ে দু’টি, অস্ট্রেলিয়াতে গিয়ে পাঁচটি এবং দক্ষিণ আফ্রিকাতে গিয়ে দু’টি ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে।

```

দক্ষিণ আফ্রিকা তাদের দেশের মাটিতেই টেস্ট সিরিজ খেলতে স্বাগত জানাবে তিন এশীয় দেশ- ভারত, পাকিস্তান এবং শ্রীলঙ্কাকে। তারা অ্যাওয়ে সিরিজ খেলবে নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং বাংলাদেশে।