হাফ সেঞ্চুরি দিয়ে ভারতকে পরাজিত করতেই বড় মন্তব্য করলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্যাপ্টেন শাই হোপ

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৬ উইকেটের লজ্জাজনক হারের মুখে পড়তে হয়েছে ভারতীয় দলকে। এর ফলে সিরিজে সমতায় ফিরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বর্তমানে একদিনের সিরিজের ফল ১-১। এমন অবস্থায় সিরিজের শেষ ODI ম্যাচটি খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। যখন সকলে সিরিজের শেষ ওডিআই ম্যাচ নিয়ে কথা বলছে তখনই শোনা গেল অন্য এক খবর। আসলে বাইশ গজে বাবর আজমের রেকর্ড ভেঙে দিলেন শুভমন গিল। টিম ইন্ডিয়ার তরুণ এই ব্যাটার নিজের পারফরমেন্স দিয়ে বুঝিয়েছেন যে তিনি ভারতীয় ক্রিকেট দলের ভবিষ্যৎ তারকা। ম্যাচ তাঁর রান দেখলই যা পরিষ্কার। এদিনের ম্যাচ হারলেও নিজের ব্যাটিং দক্ষতায় পাকিস্তানের বাবর আজমকে পিছনে ফেলেছেন শুভমন গিল। চলুন জেনে নেওয়া যাক গিল কী এমন করলেন?

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে টিম ইন্ডিয়ার ওপেনাররা দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন। এদিনের ম্যাচে ওপেন করতে নেমে ইশান কিশান ৫৫ রান এবং শুভমন গিল ৩৬ রানের অবদান রাখেন। কিন্তু দুজনেই আউট হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই টিম ইন্ডিয়ার ব্যাটিং ভেঙে পড়ে। তবে এদিনের ম্যাচে ছোট ইনিংস খেললেও বাবর আজমকে পিছনে ফেলে দিয়েছেন শুভমন গিল। ২৬ ইনিংসের পর ওডিআই ক্রিকেটে গিলের সংগ্রহ ১৩৫২ রান। একদিনের ক্রিকেটে তাঁর সেরা স্কোর ২০৮ রান। একই সময়ে, বাবর ওডিআই ক্রিকেটে ২৬ ইনিংসের পরে ১৩২২ রান করেছিলেন। এই সময়ে বাবর আজমের সেরা স্কোর ছিল ১২৫ রান।

```

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পূর্ণ করেছেন ২৫০০ রানশুভমন গিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ৩৬ রানের ইনিংস খেলার সঙ্গে সঙ্গে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাঁর ২৫০০ রান পূর্ণ করেছেন। তিনি টিম ইন্ডিয়ার হয়ে তিনটি ফর্ম্যাটেই ক্রিকেট খেলছেন। গিল ভারতের হয়ে ১৮ টেস্টে ৯৬৬ রান, ২৬টি ওয়ানডেতে ১৩৫২ রান এবং ৬টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ২০২ রান করেছেন। তিন ফর্ম্যাটেই এখনও পর্যন্ত ৭টি সেঞ্চুরি রয়েছে তাঁর।

শুভমন গিল আইপিএল ২০২৩ এর পরে যেন নিজের ছন্দ হারিয়েছেন, আসলে পুরনো ফর্মে তাঁকে দেখা যাচ্চে না। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালেও বড় ইনিংস খেলতে পারেননি শুভমন গিল।

```

এখন এর পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরেও তাঁর ব্যাট থেকে বড় রান আসেনি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে এখন পর্যন্ত ৬, ১০, ২৯, ৭ এবং ৩৪ রানের ইনিংস খেলেছেন শুভমন গিল।