ব্রেকিং:উইন্ডিজ হারের জের,হার্দিককে সরিয়ে বিশ্বকাপে ভাইস ক্যাপ্টেন করা হচ্ছে এক বোলারকে!

আয়ারল্য়ান্ড (India vs Ireland) সিরিজের মাঝেই বেজে গিয়েছে এশিয়া কাপের (Asia Cup 2023) দামামা। আর মাত্র কয়েক দিনের অপেক্ষা। আগামী ৩০ অগাস্ট থেকে শুরু টুর্নামেন্টে। তার আগে আগামীকাল ঘোষণা হতে পারে এশিয়া কাপের (Asias Cup) স্কোয়াড। বিসিসিআই (BCCI) সূত্রে খবর, আগামীকাল দুপুর ১.৩০ নাগাদ ঘোষণা হতে পারে এশিয়া কাপের স্কোয়াড। মুম্বইয়ে বিসিসিআইয়ের হেডকোয়ার্টারে নির্বাচকমণ্ডলীর সঙ্গে বৈঠকে বসবেন রোহিত শর্মা (Rohit Sharma)। সেখানে নির্বাচকমণ্ডলীর প্রধান অজিত আগরকরও (Ajit Agarkar) উপস্থিত থাকবেন।

সেই বৈঠকের পরই সাংবাদিক বৈঠকে মুখোমুখি হবে রোহিত ও আগরকর। তখনই হয়ত এশিয়া কাপের দল ঘোষণা হতে পারে। এই মুহূর্তে আয়ারল্যান্ড সফরে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলছে ভারত। রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলির মত সিনিয়ররা বিশ্রামে রয়েছেন। যশপ্রীত বুমরার নেতৃত্বে খেলছে টিম ইন্ডিয়া। চোট সারিয়ে ৩২৭ দিন পরে কামব্যাক করেছেন ডানহাতি এই তারকা পেসার। প্রথম সিরিজেই অধিনায়ত্ব সামলাচ্ছেন। নিজে প্রথম ম্যাচে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন। ম্যাচের সেরাও নির্বাচিত হয়েছেন। সূত্রের খবর, হার্দিক পাণ্ড্যর বদলে যশপ্রীত বুমরাকে সহ অধিনায়ক হিসেবে দেখা যেতে পারে এশিয়া কাপের স্কোয়াডে।

```

এদিকে, কে এল রাহুল ও শ্রেয়স আইয়ার কি আদৌ খেলবেন এশিয়া কাপে, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছেই। এক সূত্র পিটিআইকে এই বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে জানান, ‘রাহুল সাম্প্রতিক সময়ে ম্যাচ সিমুলেশন প্রোগামে ফিটনেসের দারুণ উন্নতি দেখিয়েছেন। ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ওঁ দীর্ঘ সময় কিপিং অনুশীলনও করেছেন। সপ্তাহের শুরুর দিক থেকেই ওঁ ব্যাটিং অনুশীলন করছিল, এবার কিপিং করাটাও শুরু করে দিল।’

রাহুলের মতো শ্রেয়স আইয়ারও সাম্প্রতিক সময়ে দারুণ ফিটনেস দেখিয়েছেন। রিপোর্ট অনুযায়ী, তিনি মাঠে ফেরার একেবারের কাছাকাছি চলে এসেছেন। খুব শীঘ্রই বিসিসিআইয়ের তরফে এই দুই তারকার ফিটনেস নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এই সপ্তাহেই দুই তারকার ফিটনেস পরীক্ষা করতে দুইটি অনুশীলন ম্যাচ হওয়ার কথা। সেই ম্যাচ দু’টি থেকে জাতীয় নির্বাচকদের একটা স্পষ্ট ধারণা হতে পারে ম্যাচ পরিস্থিতিতে দুজনে কেমন পারফর্ম করছেন, কতটা সাড়া দিচ্ছে তাঁদের শরীর।

```

তবে এই তারকার ফিটনেস নিয়ে এতদিনের জল্পনা-কল্পনা অবশেষে সমাপ্ত হতে চলেছে। খবর অনুযায়ী সোমবারই এশিয়া কাপের জন্য ভারতীয় দলের ঘোষণা করা হবে। ২ সেপ্টেম্বর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ দিয়ে এশিয়া কাপের অভিযান শুরু করবে।