‘BCCI-এর টাকায় সংসার চলছে পাক ক্রিকেটারদের!’ বি’স্ফোরক মন্তব্য শোয়েব আখতারের !

আইসিসির আয়ের পিছনে সবচেয়ে বেশি অবদান রয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের। ভারতের কারণেই শুধু পাকিস্তান নয়, আরও অনেক ক্রিকেট বোর্ডই সাহায্য পাচ্ছে।পাকিস্তানের কিংবদন্তি বোলার শোয়েব আখতার (Shoaib Akhtar) অবসর নিয়েছেন বহুদিন হল। তবুও তিনি শিরোনামে থাকেন তাঁর মন্তব্যের জন্য। শোয়েব আখতার হলেন পাকিস্তানের সেইসব ক্রিকেটারের মধ্যে একজন, যিনি মনের কথা বলতে পিছপা হন না। বিশেষ করে ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেটীয় সম্পর্ক নিয়ে। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে শোয়েব এমন কিছু বলেছেন যা পাকিস্তানে তোলপাড় সৃষ্টি করতে পারে।

সাক্ষাৎকারে শোয়েব বলেন, “পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের সংসার চলে ভারতীয় টাকায়!” দুই দেশের যা সম্পর্ক তাতে শোয়েবের এই মন্তব্য আগুনে ঘি ঢালতে পারে। তাঁর এই বক্তব্যে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের কর্মকর্তারাও চমকে যেতে পারেন। কারণ পিসিবিকে কটাক্ষ করেই একথা বলেছেন শোয়েব। শোয়েব আখতার স্বীকার করেছেন যে, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের মাধ্যমে আইসিসি যা আয় করে, পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড সেই রেভেনিউয়ের ভাগ পায়। আইসিসির কাছ থেকে পাওয়া এই অর্থের কারণে পিসিবি ঘরোয়া ক্রিকেটারদের ম্যাচ ফি দিতে সক্ষম। শোয়েব আরও বলেছেন যে, বর্তমানে বিসিসিআই বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ক্রিকেট বোর্ড।

```

আইসিসির আয়ের পিছনে সবচেয়ে বেশি অবদান রয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের। ভারতের কারণেই শুধু পাকিস্তান নয়, আরও অনেক ক্রিকেট বোর্ডই সাহায্য পাচ্ছে। এ বছর ভারতে অনুষ্ঠিত হতে চলা আইসিসি ওডিআই বিশ্বকাপ নিয়েও মুখ খুলেছেন শোয়েব। তাঁর বিশ্বাস, “এ বছর ভারতে অনুষ্ঠিত হতে চলা ওডিআই বিশ্বকাপ খুবই উত্তেজনাপূর্ণ হবে। ৫০ ওভারের ফরম্যাটের ভবিষ্যৎ এখন আমার কাছে অন্ধকার দেখাচ্ছে।

তাই আমি চাই ভারত এই বিশ্বকাপ থেকে প্রচুর অর্থ উপার্জন করুক। অনেকে এটা বলবে না কিন্তু আমি বিনা দ্বিধায় বলছি যে ভারতের কাছ থেকে আইসিসিতে যা আয় করে তার একটা অংশ পাকিস্তানও পায়। এই টাকায় আমাদের দেশীয় ক্রিকেটাররা ম্যাচ ফি পেয়ে তাঁদের ঘর সংসার চালান।”

```

পাশাপাশি আরো খবর আসছে যে, ২০২৫ সালের যে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি পাকিস্তানে হওয়ার কথা রয়েছে সেটি পাকিস্তান থেকে সরে যেতে পারে।