কলকাতাই বিশ্বকাপ ট্রফি, ইডেন গার্ডেন এই দিনে বিশ্বকাপ ট্রফি দেখতে পারবেন দর্শকরা

সদ্য আয়ারল্যান্ড সফরে ভারতের জার্সি গায়ে অভিষেক হয়েছে রিঙ্কু সিংয়ের। পারিবারিক অর্থনৈতিক সমস্যার চাপ কাটিয়ে তিনি আজকের জায়গায় উঠে এসেছেন। আইপিএলে কলকাতার নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলেন তিনি। সেখানেই তাঁর অনবদ্য পারফরম্যান্স প্রতিটি ভারতীয়দের ঘরে চিনিয়ে দিয়েছে তাঁকে। তাঁর এই অসাধারণ পারফরম্যান্সের পরেই ভারতীয় দলে ডাক পান। সম্প্রতি আয়ারল্যান্ড সফরে জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক ঘটিয়েছেন তিনি। সেখানেও সাফল্য এসেছে তাঁর ব্যাট থেকে। দলকে জিতিয়েছেন তরুণ এই ব্যাটার। অভিষেক সফরেই কার্যত শোরগোল ফেলে দেন রিঙ্কু সিং।

ভারতে এসে নিজের উত্তরপ্রদেশের বাড়িতে তাঁর বাবা ও মাকে ভারতীয় দলের জার্সি পরিয়েছেন। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার পর তা রীতিমত ভাইরাল। চলতি বছরে শেষ হওয়া আইপিএল মশুসুমে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে গুজরাটের বিরুদ্ধে এক ওভারে পাঁচটি ছয় মারেন রিঙ্কু। কার্যত হেরে যাওয়া ম্যাচ কলকাতাকে জিতিয়ে দেন তিনি। তারপর থেকে বিভিন্ন ম্যাচে অসাধারণ পারফরম্যান্স করেছে। ঘরে ঘরে ছড়িয়ে পড়ে তাঁর নাম। গোটা আইপিএলেই দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেন তরুণ এই ক্রিকেটার।

```

এই অসাধারণ পারফম্যান্সের জেরেই ভারতীয় দলের সদ্য শেষ হওয়া আয়ারল্যান্ড সফরে জায়গা করে নেন তিনি। আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে একটি ম্যাচে ব্যাট করেন তিনি। সেখানেও নিজের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ের ছাপ রেখেছেন। ২১ বলে করেছেন ৩৮ রান। অভিষেক সিরিজ খেলার পর উত্তর প্রদেশের বাড়িতে ফিরে ভারতীয় দলের জার্সি নিজের মা-বাবাকে পরিয়ে দেন তিনি। মা-বাবার সঙ্গে দাঁড়িয়ে থেকে একটি ছবিও তোলেন রিঙ্কু। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে তিনি লেখেন, ‘যাদের জন্য এই সব কিছু শুরু হয়েছে। যেখানে এইসব কিছু শুরু।’

তার এই আবেগঘন পোস্ট রীতিমতো ভাইরাল হয়ে উঠেছে। ২৫ বছর বয়সে এই তরুণ এশিয়া কাপের দলে নেই। হয়তো বিশ্বকাপের দলেও থাকবেন না তিনি। তবে এতে হতাশ হওয়ার কিছু নেই বলেই মানছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা। রিঙ্কু নিজেও পরবর্তীকালে জাতীয় দলের সুযোগ পাওয়া নিয়ে যথেষ্ট আশাবাদী। এর জন্য আরও কঠোর পরিশ্রম করতে চান তিনি।

```

এই বছর একদিনের ক্রিকেট বিশ্বকাপ হয়ে যাবার পর আগামী বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু হবে। সেই দলেই জায়গা করে নেওয়া এখন লক্ষ্য রিঙ্কু সিংয়ের।