অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে দুরন্ত ব্যাটিংয়ে ঐতিহাসিক বিশ্বরেকর্ড গড়লেন রুতুরাজ !

বিশ্বকাপের ঠিক আগে চরম প্রস্তুতির জন্য ভারতীয় দল মুখোমুখি হয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার এবং তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারতীয় দলের অধিনায়কত্ব করছেন কে এল রাহুল। প্রথমে ব্যাট করে অস্ট্রেলিয়া ২৭৬ রানের একটা বড় টোটাল খাড়া করে দেয়, অস্ট্রেলিয়ার দরে তরফ থেকে কোন ব্যাটসম্যান বিশাল কিছু রান না করলেও, অধিকাংশ ব্যাটসম্যান ভালো শুরু করেছিলেন। যার দৌলতে অস্ট্রেলিয়া ২৭৬ রান পর্যন্ত পৌঁছে যায় তবে এর জবাবে ভারতীয় দল যে এতটা দুর্দান্ত ব্যাটিং করবে এটা হয়তো কেউ কল্পনাও করতে পারেনি।

অস্ট্রেলিয়ার ২৭৬ রানের জবাবে দুরন্ত ব্যাটিং করতে শুরু করে ভারতের ওপেনিং জুটি শুভমান গিল এবং রুতুরাজ গায়কোয়ার্ড। মাত্র ৬৩ বলে ৭৪ রানের একটি অনবদ্য ইনিংস খেলেছেন শুভমান গিল। তার সাথে দুরন্ত পার্টনারশিপে প্রথম উইকেটের জন্য ১৪২ রানের একটা দুর্দান্ত পার্টনারশিপ করে ভারতীয় দলের এই দুই তরুণ ওপেনার। অ্যাডাম জেম্পার বলে এল বি ডব্লিউ আউট হওয়ার আগে ৭৭ বলে ৭১ রানের একটি দুরন্ত ইনিংস খেলেন ঋতুরাজ, যার মধ্যে ছিল ১০ টি বাউন্ডারি।

```

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথমবার অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয়েছে ভারতের এই তরুণ ওপেনার, তবে প্রথম ম্যাচেই তিনি যেভাবে ব্যাটিং করেছেন তাতে তিনি স্পষ্ট করে দিলেন তিনি যথেষ্ট যোগ্য, ভারতীয় দলের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলার জন্য। যতটা সাবলীলভাবে তিনি ব্যাটিং করেছেন তা দেখে বোঝার উপায় নেই যে তিনি জীবনের প্রথম ম্যাচ খেলছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়ার মতো দলের বিরুদ্ধে এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিনি যথেষ্ট নতুন। আর অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে এই দুরন্ত ব্যাটিং দিয়ে অনবদ্য রেকর্ডের মালিক হলেন রুতুরাজ।

যদিও ওপেনিং জুটিতে অনবদ্য পার্টনারশিপ এর পরে ভারতীয় দলের মিডিল অর্ডারে একটু কোলাপ্স দেখা যায়। রান আউট হয়ে যায় শ্রেয়স আইয়ার, মাত্র ১৮ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে চলে যান ঈশান কিষান। এরকম কঠিন মুহূর্তে ভারতীয় দলের তরফ থেকে সমস্যার মোকাবিলা করতে মাঠে নামেন সূর্য কুমার যাদব, তিনি কে এল রাহুলের সাথে ভারতীয় দলের জয়কে সুনিশ্চিত করার জন্য একটা লম্বা ইনিংস খেলেন।

```

অস্ট্রেলিয়ার মতো দলের বিরুদ্ধে সূর্য কুমারের ফর্মে আসা ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ একটা ব্যাপার কারণ বিশ্বকাপের দলে তিনি রয়েছেন, আর তাকে নিয়েই নানান রকমের প্রশ্ন বারংবার উঠেছে, রাহুল অথবা আইয়ার কেউ যদি কোনো কারণে চোটের সম্মুখীন হয় সে ক্ষেত্রে সূর্য কুমারের ফর্মে আসাটা ভারতীয় দলের জন্য সুখবর কারণ সে ক্ষেত্রে মিডিল অর্ডারে ভরসা জোগাতে পারে সূর্য।

সবমিলিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচেই ভারতীয় দল যে ক্লিনিক্যাল পারফরম্যান্স দেখিয়েছে তা অবশ্যই প্রশংসার যোগ্য। যেখানে ভারতীয় দলে নেই রোহিত বিরাট কোহলিরা।