অস্ট্রেলিয়াকে প্রথম ম্যাচে হারিয়ে জয়ের সব কৃতিত্ব এই খেলোয়াড়কে দিলেন রোহিত শর্মা !

২০২৩ বিশ্বকাপের অভিযান টা ভারতীয় দলের জন্য জয় দিয়ে শুরু হল। চলতি ক্রিকেট বিশ্বকাপে রবিবার পাঁচবার বিশ্বকাপ জিতে নেওয়া অস্ট্রেলিয়ান দলকে ৬ উইকেটের পরাজয় উপহার দিল টিম ইন্ডিয়া। চেন্নাইয়ের মাঠে অনুষ্ঠিত ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করতে নামে অস্ট্রেলিয়ান দল। ওয়ার্নার ও স্মিথ ভালো শুরু দিলেও তার পর ভারতীয় স্পিনাররা তাদের জাদু দেখায় এবং অস্ট্রেলিয়া দল ১৯৯ রানে গুটিয়ে যায়। জবাবে টিম ইন্ডিয়ার তিন ব্যাটসম্যান খাতা না খুলেই আউট হয়ে যান। কিন্তু এর পরে বিরাট কোহলি ৮৫ রান করেন এবং কেএল রাহুল ৯৭ রান করেন যা টিম ইন্ডিয়াকে ৬ উইকেটের জয় এনে দেন।

টিম ইন্ডিয়ার পরবর্তী ম্যাচ ১১ অক্টোবর দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে হবে যেখানে দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম খেলে 428 রান করেছিল।বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর পর টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক রোহিত শর্মা এক খেলোয়াড়কে ভারতের জয়ের সবচেয়ে বড় এবং আসল নায়ক হিসাবে বর্ণনা করেছেন। ম্যাচের পর ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেন, “প্রথম তিনটি উইকেট হারিয়ে আমি নার্ভাস হয়ে গিয়েছিলাম। এই সময়ে আমরা বাজে শট খেলেছি। এর জন্য অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের কৃতিত্ব দেওয়া উচিত। তবে তার পর রাহুল ও কোহলি অসাধারণ খেলা দেখালেন।”

```

এ দিন, প্যাট কামিন্সের দলকে চিপকে ১৯৯ রানে গুটিয়ে দেয় ভারতের বোলিং লাইন। অস্ট্রেলিয়াকে কম স্কোরে আটকানোর জন্য বোলার ও ফিল্ডারদের প্রশংসা করেছেন রোহিত শর্মা। রোহিত শর্মা বলেন, “এভাবে বিশ্বকাপ শুরু করাটা দারুণ। আমরা ফিল্ডিং উন্নত করতে কঠোর পরিশ্রম করেছি। এই ম্যাচে আমাদের দলের সবাই এই বিষয়ের ওপর ভর করে ম্যাচটা জিতে নিয়েছে। আমাদের খেলোয়াড়রা এই জিনিসটার ভালো সুযোগ নিয়েছে। জিততে পেরে সত্যিই বেশ ভালো লাগছে”

রাহুলকে সঙ্গে নিয়ে বিন্দু বিন্দু রান জড়ো করলেন। মাত্র ২০০ রানের লক্ষ্য। তাড়া করতে নেমে টিম ২ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে। রাহুলের সঙ্গে ১৬৫ রানের পার্টনারশিপ বিরাট কোহলির। ৮৫ রানের ইনিংসে দলকে জয়ের দরজায় পৌঁছে দিয়েছেন। কিন্তু ম্যাচ ফিনিশ না করতে পারার হতাশা। ড্রেসিংরুমে ফিরে মাথা চাপড়ালেন। নিজেকেই দায়ি করছিলেন, ম্যাচটা ফিনিশ করে আসা উচিত ছিল। তাঁর মতো সিনিয়র প্লেয়ারের থেকে এমনটাই প্রত্যাশিত। দল জিতল বিরাট ভিতেই।

```

বিরাটের আপশোস মিটল না। ততক্ষণে মাস্টার ব্লাস্টার সচিন তেন্ডুলকরের আরও একটা রেকর্ড ভেঙে দিয়েছেন। সফল রান তাড়ায় সবচেয়ে রান ছিল সচিন তেন্ডুলকরের। তিনি ৫৪৯০ রান করেছিলেন। চেজমাস্টার বিরাটের রান ৫৫১৭। সাদা বলে আরও একটা রেকর্ড ছিল কিংবদন্তি সচিন তেন্ডুলকরের দখলে। আইসিসি টুর্নামেন্টে সবচেয়ে বেশি (২৭১৯) রান ছিল সচিনের। সেই রেকর্ডও ভেঙে দিলেন বিরাট।

সবমিলিয়ে ভারতীয় দলের জন্য আজকের দিনটিতে রীতিমতো দাপটের সাথে পারফরম্যান্স দেখা গেল।