বিগ আপডেট: বাদ যাচ্ছে গিল আইয়ার! বড়ো আপডেট দিলেন ভারতের ব্যাটিং কোচ!

তরুণ ব্যাটসম্যান শুভমন গিল এবং শ্রেয়স আইয়ারের টেস্ট ক্রিকেটে খারাপ পারফরম্যান্সের ধারা অব্যাহত। ব্যাটিং কোচ বিক্রম রাঠোর বুধবার বলেছেন যে, এই পরিস্থিতিতে একটু ধৈর্য্য ধরে তরুণদের পাশে দাঁড়াতে হবে। তাঁরা ঘুরে দাঁড়িয়ে বড় রান করবেনই।পাশাপাশি রাঠোর বিশাখাপত্তনমে দ্বিতীয় টেস্টের আগ সাফ বলে দিয়েছেন, ভারতকে সাফল্য পেতে হলে, ইংল্যান্ডের আগ্রাসী কৌশলের বিরুদ্ধে বুদ্ধি করে খেলতে হবে। হায়দরাবাদে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৯০ রানের লিড থাকা সত্ত্বেও, ভারত ম্যাচটি ২৮ রানে হেরে যায়।

ইংল্যান্ডের অলি পোপ একটি বিস্ময়কর ‘ব্যাজবল’ পদ্ধতির প্রদর্শন করে ম্যাচ জয়ী ১৯৬ রানের একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। প্রসঙ্গত, শুক্রবার থেকে শুরু হতে চলেছে আসন্ন দ্বিতীয় টেস্ট।বিক্রম রাঠোর একটি সংবাদিক সম্মেলনে বলেছেন, ‘আমাদের দলে এমন কিছু তরুণ ব্যাটসম্যান আছে, যারা খুব বেশি টেস্ট ক্রিকেট খেলেনি। তাই তাদের জন্য আমাদের একটু ধৈর্য ধরতে হবে। আমি এটা নিশ্চিত যে, (শুভমান) গিল, (যশস্বী) জয়সওয়াল এবং (শ্রেয়স) আইয়ারের মতো ব্যাটাররা শেষ পর্যন্ত বড় রান পেতে শুরু করবে।’যদিও যশস্বী জয়সওয়াল তাঁর পঞ্চম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৮০ রানের দুরন্ত একটি ইনিংস খেলেছেন।

```

শুভমন গিল এবং শ্রেয়স আইয়ার অবশ্য টেস্ট ফরম্যাটে অবশ্য খুব বেশি সাফল্য পাননি। শুভমন এখনও পর্যন্ত ২১টি টেস্ট খেলেছেন। শ্রেয়স আইয়ার ১৩টি টেস্ট খেলেছেন। শুভমন গিল তাঁর শেষ ন’টি টেস্ট ইনিংসে ৫০ রানের গণ্ডিও ছুঁতে পারেননি। শ্রেয়স আইয়ারও একই রকম ভাবে ছন্দহীন।রাঠোর বলেছেন যে, তিনি দ্বিতীয় টেস্টে দলের ব্যাটসম্যানদের কাছ থেকে আরও ভালো কিছু আশা করছেন। এই টেস্টেও অবশ্য বিরাট কোহলিকে পাওয়া যাবে না। যা ভারতীয় দলের কাছে বড় ধাক্কা। রাঠোর বলেছেন, ‘উদ্দেশ্য নিয়ে খেলা এবং আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলার মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। আমি চাই, ভারতীয় দল উদ্দেশ্য নিয়ে খেলুক। যদি কিছু রান করার সুযোগ থাকে, তাহলে তাদের সেই সুযোগটা কাজে লাগানো উচিত।’

সঙ্গে তিনি ব্যাখ্যা করেছেন, ‘দলের ব্যাটারদের পিচ এবং পরিস্থিতি দেখে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তাই ব্যাটারদের সেই বুদ্ধি রাখতে হবে যে, কোন পিচে কোন শটটা সেরা বা নিরাপদ হবে।’রাঠোর মনে করেন হায়দরাবাদ টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ভারতের ব্যাটিং পারফরম্যান্সে শৃঙ্খলার অভাব ছিল। তাঁর মতে, ‘ওরা (ব্যাটাররা) কি আরও শৃঙ্খলার সঙ্গে ব্যাটিং করতে পারত না? হয়তো ওরা পারত। এটাই ওদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে এবং ওদের সেই ভাবে পরিকল্পনা করে খেলতে হবে।’

```

সঙ্গে তিনি যোগ করেছেন, ‘তবে ভালো শট খেলে রান করতে হবে, কারণ নিজের শক্তির প্রদর্শন এভাবেই করতে হবে। ব্যাটিংয়ের উদ্দেশ্যই হল, সব সময়েই বড় রান করা। বিষয়টি আউট হওয়া বা না হওয়া নিয়ে নয়, ব্যাটাররা কত রান বোর্ডে যোগ করতে পারছে, সেটাই আসল।’

সব মিলিয়ে খুবই কঠিন ম্যাচের সম্মুখীন হতে চলেছে ভারতীয় দল।