‘ঠিক যেন সুপারম্যান’ অবিশ্বাস্য উড়ন্ত ক্যাচ ধরে সবাইকে চমকে দিলেন ডুপ্লেসি! রইলো ভিডিও

মেজর লিগ ক্রিকেটের সপ্তম ম্যাচটি টেক্সাস সুপার কিংস এবং MI নিউইয়র্কের মধ্যে খেলা হয়েছিল। এই ম্যাচটি ফ্যাফ ডু’প্লেসির নেতৃত্বে সুপার কিংস নিজেদের নাম করেছে। ১৭ রানে এই ম্যাচ জিতেছে কিংসরা। তবে এই ম্যাচে সকলের নজর কেড়েছে ফ্যাফ ডুপ্লেসির একটি ক্যাচ। প্রশংসার শিরোনামে জায়গা পেয়েছে প্রোটিয় তারকার ক্যাচ। ৩৯ বছর বয়সি ডু’প্লেসি এই ম্যাচে খুব দর্শনীয় একটি ক্যাচ নেন। তাঁর অনন্য ক্যাচের ভিডিয়োটি শেয়ার করা হয়েছে মেজর লিগ ক্রিকেটের অফিসিয়াল সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে।

এই ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, এমআই নিউইয়র্কের ব্যাটসম্যান টিম ডেভিড একটি বড় শট খেলার চেষ্টা করেন এবং সেই বলটি তাঁর ব্যাটে লেগে হাওয়ায় উঠে যায়। বলটিকে অনেক উপরে দেখে দূর থেকে দৌড়ে আসেন ফ্যাফ ডু’প্লেসি। শেষ পর্যন্ত ডাইভ দিয়ে দারুণ ক্যাচ নেন তিনি। ডুপ্লেসির এই ক্যাচ দেখে সকলেই অবাক হয়েছেন। দ্বিতীয় ইনিংসের শেষ ওভারের প্রথম বলেই এই ক্যাচটি দেখা যায়। সুপার কিংসের তরফ থেকে এই ওভারটি করছিলেন ড্যানিয়েল সামস।

```

যদি এই ক্যাচটি ফ্যাফ না ধরতেন তাহলে হয়তো ম্য়াচের ভাগ্য বদলে যেতে পারত। কারণ সেই সময়ে ম্যাচ জিততে এমআই-এর দরকার ছিল ৬ বলে ২০ রান। সেই ওভারে যদি টিম ডেভিড ব্যাট করতেন তাহলে হয়তো ম্যাচ জিতে যেতে পারত এমআই। কিন্তু ওভারের প্রথম বলেই টিম ডেভিডকে সাজঘরে ফিরিয়ে দেওয়ায় খেলার ছবি বদলে যায়।

দুর্দান্ত ক্যাচ নেওয়া টেক্সাস সুপার কিংসের অধিনায়ক ফ্যাফ ডুপ্লেসি অবশ্য এদিন ব্যাট হাতে চূড়ান্ত ফ্লপ ছিলেন। ওপেনিংয়ে এসে ডু’প্লেসি ৯ বলে ১টি চারের সাহায্যে করেন ৮ রানের ইনিংস খেলেন। এমআই নিউইয়র্কের কাগিসো রাবাডার শিকার হন তিনি। এদিনের জয়ের ফলে মেজর লিগ ক্রিকেটের লিগ টেবিলের শীর্ষে উঠেছে টেক্সাস সুপার কিংস। ৩ ম্যাচের শেষে ২টি ম্যাচ জিতে চার পয়েন্ট লিগ টেবিলের শীর্ষে রয়েছে কিংস। অন্যদিকে ৩ ম্যাচের শেষে ২ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের তিন নম্বরে রয়েছে এমআই নিউ ইয়র্ক।

```

ম্যাচের কথা বললে এদিন টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে টেক্সাস সুপার কিংস ২০ ওভারে সাত উইকেট হারিয়ে ১৫৪ রান তোলে। দলের হয়ে ৮টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ৭৪ রানের সবচেয়ে বড় ইনিংস খেলেন ডেভন কনওয়ে। রান তাড়া করতে নেমে এমআই নিউইয়র্ক দল ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৩৭ রান করতে পারে। দলের হয়ে ৪১ রানের সবচেয়ে বড় ইনিংস খেলেন শায়ান জাহাঙ্গীর। একই সঙ্গে খাতা না খুলেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন এমআইয়ের মোট তিন ব্যাটসম্যান।