দুরন্ত ইনিংসে শচীনের ঐতিহাসিক রেকর্ড ভেঙে বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন শুভমান গিল !

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজটা মোটেই খুব একটা ভালো শুরু হয়নি ভারতের এই তারকা ক্রিকেটার শুভমান গিলের। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচের দুটি ইনিংসেই তিনি চূড়ান্ত ব্যর্থ হয়েছিলেন যার ফলস্বরূপ তাকে দল থেকে বাদ দেওয়ার প্রশ্ন উঠেছিল বারংবার যদিও টিম ম্যানেজমেন্ট তার উপরে ভরসা রাখে এবং দ্বিতীয় ম্যাচেও তাকে জায়গা দেওয়া হয় দলে এবং সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে তিনি নিজেকে প্রমাণ করে দিলেন।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে শুভমান গিল বেশ ভালো শুরু করেছিলেন কিন্তু তার সত্বেও জেমস অ্যান্ডারসন কে ঠিকমতো খেলতে না পারায় তার ইনিংসটি তিনি বড় করতে পারেনি, যদিও যতটা তিনি খেলেছিলেন দেখে বোঝা যাচ্ছিল মোটামুটি ভালোই ফর্মে তিনি রয়েছেন, খুব একটা খারাপ তিনি খেলছেন না।। কিন্তু ক্রিকেটের ময়দানে শুধুমাত্র ফর্ম থাকলে হয় না, রান টাও করতে হয় আর দ্বিতীয় ইনিংসে অনবদ্য ব্যাটিং করে সেটাই করে দেখালেন। এর পাশাপাশি বিগত ছয় বছরে ভারতের ঘরের মাটিতে তিন নাম্বারে ব্যাট করা কোন ব্যাটসম্যান প্রথমবার সেঞ্চুরি করলেন।

```

লাগাতার একদিকে যেমন ভারতীয় দলের উইকেট পড়ছিল রোহিত শর্মা থেকে শুরু করে প্রথম ইনিংসের ডবল সেঞ্চুরি করা জসওয়াল প্যাভিলিয়নের ফিরে চলে যান এমনকি শ্রেয়স আইয়ার পর্যন্ত প্যাভিলিয়নে ফিরে চলে যান সেই সময়ে ভারতীয় দলের দরকার ছিল শুভমান গিলকে তার ইনিংসটিকে বড় করার আর তিনি সেটাই করে দেখালেন। অবশ্যই এক্ষেত্রে কিছু সিদ্ধান্ত তার পক্ষে যায় যেমন আম্পিয়ার একটি সিদ্ধান্ত তাকে আউট দিলেও তিনি রিভিউ নেওয়ার পর সেখানে নট আউট হয়ে যান। আবার আম্পিয়ার একটি সিদ্ধান্তের নট আউট দেওয়ার পরে যখন বেন স্ট্রোকস রিভিউ নেন সেখানে আবার আম্পেয়ার্স কল হওয়ার জন্য তিনি নট আউট হয়ে যান।

যদিও ক্রিকেটের ময়দানে এই ধরনের জিনিস হামেশাই হয়ে থাকে এবং সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে অনবদ্য ব্যাটিং করেছেন ভারতের এই তারকা ক্রিকেটার এবং তার সমালোচকদের তিনি যোগ্য জবাব দিয়েছেন ।যদিও তার সমালোচকরা অবশ্য এটাই চাই যে তিনি যাতে আরো বেশি রান করেন এবং ভারতীয় দল জিততে পারে কিন্তু রান না করলে সমালোচকদের কাছে তাকে সমালোচনা সহ্য করতে হবে তার কারণ ভারতীয় দলে প্রত্যেকটি জায়গার পিছনে অসংখ্য ক্রিকেটার দাঁড়িয়ে আছে সেই জায়গাটি পাওয়ার জন্য।

```

অক্ষর প্যাটেল এর সাথে শুভমান গিলের এই পার্টনারশিপ ভারতীয় দলকে একটা খুবই ভালো জায়গায় নিয়ে এসে দাঁড় করিয়েছে যেখান থেকে ভারতীয় দলের পক্ষে ইংল্যান্ডকে অলআউট করে এই ম্যাচ জেতা অনেকটা সহজ হয়ে গেল।। প্রায় চারশ রানের লিড ভারতীয় দলের হয়ে গেছে এবং এখান থেকে ইংল্যান্ডকে হারানো খুব একটা কঠিন ব্যাপার নয়।

তিন নম্বরে ব্যাট করে শুভমান গিলের আজকের এই সেঞ্চুরি এবং সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার খুবই দ্রুততার সাথে মাত্র ১৩০ বলে তিনি ১০০ রান করে ফেলেছেন।