ভারত-পাক মহারণে কে ফেভারিট?এশিয়া কাপের ধুন্ধুমার মোকাবিলায় এই দলকে এগিয়ে রাখলেন সৌরভ !

আর হাতে গোনা কয়েক দিন বাকি। তারপরই শুরু হবে এবারের এশিয়া কাপ। ওডিআই বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে এবারের এশিয়া কাপ ৫০ ওভারের হচ্ছে। বিশ্বকাপের আগে এই টুর্নামেন্টে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি হবে। আগামী ২ সেপ্টেম্বর ভারত-পাক একে অপরের মুখোমুখি হবে। শুধু গ্রুপ পর্বেই নয়, সুপার ফোরেও ফের দুই দল মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।বিশ্বকাপের আগে একে অপরের শক্তি এবং দুর্বলতা মেপে নেবেন দুই দলের ক্রিকেটাররা।

স্বাভাবিক ভাবেই দুই দলের কাছেই এই এশিয়া কাপ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আর এই দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বী দলের লড়াই দেখতে মরিয়া হয়ে থাকে গোটা ক্রিকেট বিশ্ব। দুই দেশের রাজনৈতিক টানাপোড়েনে একে অপরের সঙ্গে দ্বিপাক্ষীক ম্যাচ খেলে না বহু বছর হয়ে গিয়েছে। শুধুমাত্র এশিয়া কাপ এবং আইসিসির কোনও টুর্নামেন্টে একে অপরের মুখোমুখি হয় দুই দেশ।এবারও দুই দেশ এশিয়া কাপে মুখোমুখি হচ্ছে। পাশাপাশি এশিয়া কাপ শেষ হলেই ভারতের মাটিতে ওডিআই বিশ্বকাপ। সেখানেও দুই দল একে অপরের মুখোমুখি হবে। বিশ্বকাপের সেই ম্যাচকে ঘিরে উন্মাদনার পারদ চলছে।

```

বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হবে এই ম্যাচ। স্বাভাবিক ভাবেই এক সঙ্গে প্রায় এক লক্ষ মানুষ খেলা দেখতে পারবে। তবে এই ম্যাচে গোটা ক্রিকেট বিশ্ব দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে যায়। কেউ ভারতে সমর্থন করে। আবার কেউ পাকিস্তানকে। এই ম্যাচের জন্যই গোটা বছর অপেক্ষায় থাকেন ক্রিকেট প্রেমীরা।

তবে আসন্ন এশিয়া কাপে ভারত-পাক ম্যাচে কোন দল এগিয়ে রয়েছে, এই নিয়ে মুখ খুললেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। এক অনুষ্ঠানে গিয়ে প্রাক্তন বিসিসিআই সভাপতি বলেন, ‘ভারত-পাকিস্তান এমন একটা ম্যাচ, যেখানে কোন দল জিতবে তা আগে থেকে একেবারেই বলা যায় না। দুই দলের ক্রিকেটাররাই নিজেদের সেরাটা দেবে। পাকিস্তান খুব ভালো দল। ভারতও শক্তিশালী দল গড়েছে। ফলে ভালো ম্যাচ আমরা দেখতে পারব।’

```

প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক আরও বলেন, ‘এই ম্য়াচে যে দল স্নায়ুর চাপ ধরে রাখতে পারবে, তারাই এই হাই ভোল্টেজ ম্য়াচ জিততে পারবে। তবে এবারের এশিয়া কাপ খুব গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। কারণ এশিয়া কাপের পরই বিশ্বকাপ। তাই নিজেরা কতটা প্রস্তুত তা দেখে নিতে পারবে তারা।’