দুরন্ত পারফরমেন্সে ইংল্যান্ডকে পরাজিত করে ইতিহাস গড়লো ভারতীয় ক্রিকেট দল !

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ঐতিহাসিক পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে নেমেছে ভারতীয় ক্রিকেট দল। কিন্তু সিরিজের প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ড জয়লাভ করে শুধুমাত্র অলি পোপের ১৯৬ রানের অনবদ্য একটি ইনিংসের জন্য। কিন্তু দ্বিতীয় ম্যাচে ভারতীয় দল যখন ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হয় সেই ১৯৬ রান করা ব্যাটসম্যান কে খুব বেশি রান করতেই দেয়নি ভারতীয় ক্রিকেট দল, পাশাপাশি অন্য কোন প্লেয়ারকে আর সেই ধরনের ইনিংস খেলতে দেয়নি টিম ইন্ডিয়া। যার কারণে একটা দুর্দান্ত জয় পেয়ে গেছে টিম ইন্ডিয়া।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথমেই টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় রোহিত শর্মা ভারতীয় দলের জন্য একটা খুবই ভালো সিদ্ধান্ত ছিল। প্রথম দিনের পিচ খুবই ভালো ছিল এবং সেখানে দুর্দান্ত একটি ডবল সেঞ্চুরি করে ফেলেন ভারতের অন্যতম তারকা ক্রিকেটার যশস্বী জসওয়াল। তার ২০৯ রানে ইনিংস ভারতীয় দলকে একটা ভালো জায়গা পর্যন্ত নিয়ে যায়। তার সাথে বাকি প্লেয়াররা যেভাবে সঙ্গ দেয় তাতে ভারত বেশ ভালো জায়গাতেই পৌঁছে যায়। ভারতের ৩৯৬ রানের জবাবে প্রথম ইনিংসে মাত্র ২৫৩ রানে বান্ডিল হয়ে যায় ইংল্যান্ড।

```

বুমরা অসাধারণ বোলিং করেন এবং ছটি উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডের ব্যাটিংয়কে রীতিমতো শেষ করে ফেলেন। ইংল্যান্ডের প্রধান ব্যাটসম্যানদের রীতিমত একা হাতে প্যাভিলিয়নে ফিরিয়ে দেন বুমরা। বেন স্টোকস থেকে শুরু করে জো রুট, জনি বেষ্ট সবাইকে তিনি একা হতে প্যাভিলিয়নে ফিরিয়ে দেন এবং মোট ছটি উইকেট তিনি নিয়েছিলেন। এর ফলস্বরূপ ভারতে হাতে একটা বড় লিড এসে যায় কিন্তু তৃতীয় ইনিংসে ভারতীয় ব্যাটিং অতটা ভালো হয়নি।

ভারতের দ্বিতীয় ইনিংসে যখন ভারতীয় দল ব্যাটিং করতে আসে তখন আবার দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করে ভারতীয় দলে অন্যতম তারকা যুব ক্রিকেটার শুভমান গিল যার দৌলতে ভারত প্রায় 398 রান পর্যন্ত পৌঁছে যায়। গিল ছাড়া অন্য কোন ভারতীয় ব্যাটসম্যান সেই ভাবে সফল হয়নি এই ম্যাচটিতে তবে সকলেই একটু একটু করে যোগদান করেছ।

```

ভারতের এই বিশাল রান তাড়া করা ইংল্যান্ডের পক্ষে কখনো সহজ কাজ ছিল না এবং শেষ পর্যন্ত এটাই প্রমাণিত হলো। শুরুটা খুব ভালো হলেও ইংল্যান্ডের মিডিল অর্ডার কে আবারো ধ্বংস করে দেয় ভারতীয় বোলিং এটাক যার মধ্যে অবশ্যই ভারতীয় স্পিনাররা তো রয়েছেই তার পাশাপাশি বুমরা নিজেও দুর্দান্ত বোলিং করেন দ্বিতীয় ইনিংসেও।

সব মিলিয়ে ভারতীয় দল প্রমাণ করে দিল যে প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ড জিতেছিল শুধুমাত্র পোপের একটি ঐতিহাসিক ইনিংস খেলার জন্য, তাছাড়া এই ভারতীয় দলের মোকাবিলা করার মত ক্ষমতা তাদের নেই।