“ভারতের প্রতিটা ম্যাচ টিভিতে দেখছি,শুধু একটা ব্যাটসম্যানের খেলা দেখার জন্য” : আন্দ্রে রাসেল !!

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে চলছে ভারতীয় দলের পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ, যেখানে ভারতীয় দলের তরফ থেকে একটা যুব দল প্রস্তুত করা হয়েছে এবং এই যুব ক্রিকেটাররা অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে অনবদ্য পারফরমেন্স করছেন। যে দাপটের সাথে এত বছর ধরে ভারত ক্রিকেট খেলে আসছে এবং লাগাতার একের পর এক ম্যাচ জিতে আসছে, এই যুব ক্রিকেটাররা প্রমাণ করছেন যে ভারতের বেঞ্চের ক্ষমতা কতটা অর্থাৎ ভবিষ্যতের ভারতীয় ক্রিকেট দলের এই দাপট বজায় থাকবে এই নিয়ে কোন সন্দেহ থাকছে না।। আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ তারকা আন্দ্রে রাসেল ফ্যান হয়েছেন ভারতের এক যুব ক্রিকেটারের।

এতক্ষণে নিশ্চয়ই বুঝতে পেরে গেছেন যে কার কথা বলা হচ্ছে, ভারতীয় দলের এমন একজন ক্রিকেটার রয়েছে যাকে দেখার জন্য মুখিয়ে রয়েছে প্রত্যেক ক্রিকেট ভক্ত, আর এবার রাসেল জানালেন রিঙ্কু সিংয়ের ব্যাটিং দেখার জন্য টিভির সামনে অপেক্ষা করেন আন্দ্রে রাসেল। একটা সময় ছিল গোটা ক্রিকেট বিশ্ব রাসেলের ব্যাটিং দেখার জন্য অপেক্ষা করত। রাসেলের চার-ছক্কার আমেজ গায়ে মাখার জন্য সকলেই অনেক আগে থেকেই বসে থাকত। গোটা স্টেডিয়াম রাসেল-রাসেল নামে গর্জে উঠত। এখন সময় বদলে গিয়েছে, রাসেল এখন রিঙ্কু সিংয়ের ব্যাটিং দেখার জন্য অপেক্ষা করেন। এমনটাই জানিয়েছেন আন্দ্রে রাসেল। কেকেআর-এর তারকা এখন ডেকান গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে আবু ধাবি টি টেন লিগ খেলতে ব্যস্ত।

```

তবে সেখানে তিনি ব্যাটে এখনও সফল হতে পারেননি। নিজেকে প্রমাণ করার জন্য ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন তিনি। তবে তার মাঝেই রিঙ্কুকে নিয়ে বড় কথা বললেন নাইটদের এই অল রাউন্ডার।রাসেল শেষ পর্যন্ত ফিনিশারের ব্যাটন রিঙ্কুকে দিতে প্রস্তুত। বর্তমানে ২৫ বছর বয়সি এই ক্রিকেটার কঠিন সময়ে দলকে বারবার উদ্ধার করেছেন। ২০২৩ আইপিএল-এ পঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধে নেমেও দারুণ একটা ইনিংস খেলেছিলেন রাসেল। ডেথ-ওভার স্পেশালিস্ট আর্শদীপ সিং-এর শেষ বলে বাউন্ডারি মেরে তিনি আইপিএল ২০২৩-এ KKR-এর জন্য আরেকটি জয় নথীভুক্ত করেছিলেন।

তবে সেই ম্যাচে রাসেল তাঁর ২৩ বলে ৪২ রানের ইনিংস খেলে প্লেয়ার অফ দ্য ম্যাচ হয়েছিলেন। তবে রিঙ্কুর রান তাড়া করার ভঙ্গিমা রাসেলের মন জিতেছে। তবে শেষ বল খেলার আগে রাসেল রান আউট হয়েছিলেন। রাসেল সেই ম্যাচের পর বলেছিলেন, ‘অন্য কোনও খেলায়, অন্য কোনও ব্যাটারের সঙ্গে, আমি নিশ্চিত নই যে আমি রান নিতাম কিনা। আমি শেষ ডেলিভারিতে ব্যাট করার জন্য নিজেকে ফিরিয়ে দিতাম এবং কাজটি সম্পন্ন করতাম। কিন্তু রিঙ্কুর উপর আমার ভরসা ছিল, আমি জানতাম সে এটা করবে।’

```

রিঙ্কু অবশ্য রাসেলকে হতাশ করেননি। কলকাতা নাইট রাইডার্স হয়ে রিঙ্কু এখন ভারতীয় দলে প্রবেশ করে নিজেকে প্রমাণ করছেন। আন্দ্রে রাসেল তাঁর কেকেআর সতীর্থের এই ঊর্ধ্বমুখী গতিপথকে খুব কাছ থেকে অনুসরণ করছেন। রিঙ্কুকে নেটে কঠোর পরিশ্রম করতে দেখেছেন। রাসেল জানিয়েছেন তিনি বর্তমানে রিঙ্কুর ব্য়াটিং দেখার জন্য বসে থাকেন।

আবুধাবি থেকে আন্দ্রে রাসেল হিন্দুস্তান টাইমসকে বলেন, ‘আমি খেলাগুলি (ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি) দেখছি এবং যদি আমি কিছু মিস করি, আমি হাইলাইটগুলিতে টিউন করি এবং এটি বেশিরভাগই রিঙ্কুর জন্য করে থাকি। রিঙ্কু খেলা মিস করা যাবে না।’