চার মারতে গিয়ে ছক্কা,সেঞ্চুরি মিস,৯৭ নট আউট থেকে ম্যাচ জিতিয়ে যা বললেন রাহুল,স্যালুট নেটিজেনদের

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল ভারতীয় দল। তবে ভারতীয় দলের তরফ থেকে যেরকম পারফরম্যান্স আশা করা হয়েছিল ঠিক তেমনটাই হয়েছে, শুধুমাত্র ভারতীয় দলের প্রথম তিন ব্যাটসম্যান ছাড়া। ভারতের প্রত্যেক বোলার দুর্দান্ত বোলিং করেছে এবং ভারতের মিডিল অর্ডারে অনবদ্য ব্যাটিং করেছেন কে এল রাহুল এবং বিরাট কোহলি। তবে কে এল রাহুল তার সেঞ্চুরি মিস করেছেন ভীষণ অদ্ভুতভাবে, আর তার সেই সেঞ্চুরি মিসের সময়ে যেন রীতিমতো হুল্লোড় পড়ে যায় কমেন্ট্রি বক্সে।

অস্ট্রেলিয়া দলকে মাত্র ১৯৯ রানের বান্ডিল করে দেয় ভারতীয় বোলিং, ভারতীয় বোলারদের মধ্যে অনবদ্য বোলিং আজকে করতে দেখা গেছে রবীন্দ্র জাদেজাকে। তার তিনটি উইকেট রীতিমতো অস্ট্রেলিয়ার মিডিল অডারের কোমর ভেঙে দেয়। ২০০ রান তারা করতে নেমে প্রথম থেকেই দুরন্ত বোলিং করা অস্ট্রেলিয়া যার দৌলতে ভারতের টপ তিন ব্যাটসম্যান প্যাভিলিয়নে ফিরে যায়। রোহিত শর্মা ঈশান কিষান এবং শ্রেয়স আইয়ার এর প্যাভিলিয়নের ফেরার পর ভারতীয় দল চাপে পড়ে যায়। আর সেখানেই ভারতীয় দলের হয়ে হাল ধরেন কে এল রাহুল।

```

বিরাট কোহলির সাথে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের সব থেকে বড় পার্টনারশিপ করে ফেলেন এবং অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথমবার বিশ্বকাপে ভারত ১৫০ রানের বেশি পার্টনারশিপ করেছে। বিরাট কোহলি ৮৫ রানে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নের ফিরে গেলেও শেষ পর্যন্ত সেখানে দাঁড়িয়ে ছিলেন কে এল রাহুল এবং কোন রকম খারাপ শর্ট তিনি খেলেননি ভারতীয় দলকে শেষ পর্যন্ত নিয়ে যাওয়ার জেদ তার মধ্যে ছিল। তবে শেষ মুহূর্তে ভারতীয় দলের জেতার জন্য দরকার ছিল পাঁচ রান এবং রাহুলের সেঞ্চুরি করার জন্য দরকার ছিল ৯ রান।

এরকম মুহূর্তে একটা জিনিস করার ছিল অর্থাৎ প্রথমে একটি বাউন্ডারি হাঁকালে রাহুল পৌঁছে যেত ৯৫ রানে, তারপরে একটি ছক্কা মারলেই সেঞ্চুরি কমপ্লিট হয়ে যেত তার কিন্তু সমস্যা হয়ে যায় যখন যে শট টি তিনি চার মারার জন্য খেলেন সেটি ছক্কা হয়ে যায়। ৯৭ রানে নট আউট থেকে যান কে এল রাহুল। যদিও রাহুলের সেই ৯৭ রানের সাথে বিশ্বকাপের ফাইনালে গৌতম গম্ভীরের ৯৭ রানের মিল খুঁজে পাচ্ছেন অনেক ক্রিকেট ভক্তরা।

```

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে এই দুরন্ত 97 রানের ইনিংস খেলেও যখন সেঞ্চুরি মিস করলেন রাহুল, তাকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন যে ভারতীয় দলের হয়ে তিনি এই ম্যাচ জেতাতে পেরেছেন সেটা সবথেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তাছাড়া ম্যাচ জেতানোর পরে তিনি ব্যাট তুলে দর্শকদের অভিবাদন করেছেন এবং তিনি যে সেঞ্চুরি মিস করেছেন তাতে তার কোন আক্ষেপ নেই, তিনি ৯৭ রান করে ব্যাট দেখিয়েছেন দর্শকদের।

গৌতম গম্ভীর এর সেই ৯৭ রান ভারতীয় দলকে বিশ্বকাপ জিততে অনেক বড় সাহায্য করে, পাশাপাশি ক্রিকেট ভক্তরা এটাই জানাচ্ছেন যে 97 রান অনেক সময় সেঞ্চুরি থেকেও বেশি দামি হতে পারে এবং বেশি উচ্চমানের হতে পারে।রাহুলের এই 97 রান ভারতীয় দলকে যে জয় এনে দিয়েছে, তা ভারতীয় দলের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল কারণ তিন উইকেট হারিয়ে রীতিমতো চাপে ছিল টিম ইন্ডিয়া। এমন সময় ভারতীয় দলের সবথেকে বড় খুঁটি হয়ে দাঁড়িয়ে জয় এনে দিলেন কেএল রাহুল।