চরম অপমান:ঋদ্ধিমানকে আউট করে এমনভাবে সেলিব্রেশন করলেন অর্জুন তেন্ডুলকার,দেখুন ভিডিও

এই নিয়ে সন্দেহ নেই যে ঋদ্ধিমান সাহা বাংলার গর্ব, কঠিন লড়াই করে তিনি বাংলার দলের হয়ে খেলে তারপর ভারতীয় দল পর্যন্ত নিজের ক্রিকেটিং জার্নি সম্পন্ন করেছেন। যদিও পরবর্তীকালে ঋদ্ধিমান সাহা অন্য দলের হয়ে রঞ্জী খেলেছেন তবে বাংলার মানুষজনের কাছে এখনো পর্যন্ত ঋদ্ধিমান খুবই কাছের। আর সেই ঋদ্ধিমান সাহাকে আউট করেই চরম সেলিব্রেশনে মাতলেন শচীন টেন্ডুলকারের পুত্র অর্জুন। তার এই সেলিব্রেশন সকলের পছন্দ হয়নি অন্তত বাঙালি ক্রিকেট ভক্তদের। আর এই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে গুলিতে ভাইরাল হয়েছে।

পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বাইয়ের বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছিল বর্তমানের চ্যাম্পিয়ন গুজরাট এবং প্রথমে ব্যাট করে গুজরাট ২০৭ রানের একটা বিশাল টোটাল খাড়া করে যার অন্যতম কারিগর ছিল শচীনের কন্যার চর্চিত বয়ফ্রেন্ড শুভমান গিল, মাত্র ৩৪ বলে ৫৬ রানের একটি দুর্দান্ত ইনিংস তিনি খেলেছেন। এমনকি একটার সময় অর্জুনের সঙ্গে তিনি বিতর্কে জড়িয়েছেন, তবে ঋদ্ধিকে আউট করার পরে শচীনের পুত্রের সেলিব্রেশন যেন আরো বিতর্ক তৈরি করলো। শুভমান গিল যখন ব্যাট করছিলেন তখন একটি বল তার কাঁধের উপর দিয়ে লেগ স্ট্যাম্পের দিকে চলে গেলেও আম্পিয়ার সেটাতে ওয়াইড না দেওয়ায় তিনি ক্ষুব্ধ হন, আবার তৃতীয় ওভারে যখন ঋদ্ধিমান সাহা ব্যাট করছিলেন তখন লেগ স্ট্যাম্পের দিকে একটি বল চলে যায় সেটাতে ব্যাট লাগানোর চেষ্টা করলেও ব্যাট লাগেনি। আর তখনই শুরু হয় বিতর্ক।

```

কিপার আবেদন করতেই আম্পায়ার আউট দিয়ে দেয়, ঋদ্ধিমানের নিজেরও জানা ছিল না যে তাতে ব্যাট লেগেছে কিনা তাই তিনি রিভিউ নেন কিন্তু ১৫ সেকেন্ড হয়ে যাবার পরে তিনি রিভিউ এর জন্য আবেদন করেন সুতরাং রিভিউটা অনৈতিক ছিল এমনটা দাবি করছে ক্রিকেট ভক্তরা আর সেই কারণে যখন রিভিউ করার পরেও দেখা যায় যে ব্যাটে বলটি লেগে কিপারের কাছে গেছে, সুতরাং ঋদ্ধিমান সাহা আউট হয়েছেন, তারপরেই চরম সেলিব্রেশনে মেতে ওঠেন অর্জুন টেন্ডুলকার, দেখে নিন সেই ভিডিও:

https://twitter.com/BilluPinkiSabu/status/1650897810336759810

ঘটনা ঘটার কিছুক্ষণের মধ্যেই এই ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায় আবার শুভমান গিলের সাথে অর্জুন টেন্ডুলকারের হোয়াইট বল নিয়ে যে ঝামেলাটি হয়েছিল সেই ঘটনার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তাড়াতাড়ি ছড়িয়ে যায় এবং সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে একটা মেমে ফেস্টিভাল শুরু হয়ে যায়। ম্যাচের কথা বলতে গেলে মুম্বাইয়ের তরফ থেকে সেই ভাবে কেউ ব্যাট করতে পারেনি, সূর্য কুমারের ১২ বলে ২৩ ক্যামেরন গ্রিনের ২৬ বলে ৩৩

```

তাছাড়া নিচের দিকের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে নেহাল ভাদেরা কিছু রান করেন, তাছাড়া ২৭৭ রান চেজ করার মত ব্যাটিং কাউকে করতে দেখা যায়নি। টিম ডেভিড এর মত প্লেয়ারকে ছয় নাম্বারে নামিয়েছে মুম্বাই যা রীতিমতো প্রশ্ন তুলছে।