ভারতের সুপার ফোরে ওঠার দিনে চুপিসারে ইংল্যান্ডের মাটিতে ইতিহাস গড়লেন যুজুবেন্দ্র চাহাল !

ভারত যখন শ্রীলঙ্কায় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে লড়াই করছিল, তখন কয়েক হাজার কিলোমিটার দূরে কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে যুজবেন্দ্র চাহাল নিজেকে প্রমাণ করতে মরিয়া ছিলেন। সোমবার কলম্বোতে ভারত-পাক দ্বৈরথের সময়ে, কাউন্টিতে আগুন ঝরাচ্ছিলেন যুজি। তিনি সোমবার কেন্টের হয়ে দুরন্ত বল করে ৩ উইকেট তুলে নেন।যুজবেন্দ্র চাহাল গত সপ্তাহেই কেন্টের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। রবিবার (১০ সেপ্টেম্বর) কাউন্টিতে নাটিংহ্যামশায়ারের বিরুদ্ধে ম্যাচে তাঁর অভিষেক হয়।

আর অভিষেক ম্যাচেই যুজি একেবারে স্বপ্নের ছন্দে বোলিং করে ২০ ওভারে ৫২ রান দিয়ে তিন উইকেট তুলে নেন। ক্যান্টারবারিতে সোমবার তিনি লেগ-ব্রেক ডেলিভারির মাধ্যমে লিন্ডন জেমসকে বোল্ড করে প্রথম সাফল্য পান। এর পর আর দু’টি উইকেট নেন যুজি।যুজবেন্দ্র চাহাল সব সময়ে ম্যাচ উইনার হিসেবে নিজেকে মেলে ধরেছেন। তবুও এশিয়া কাপের পর বিশ্বকাপের দলেও জায়গা হয়নি এই তারকা লেগ স্পিনারের। টিম কম্বিনেশন বজায় রাখতেই নাকি যুজবেন্দ্র চাহালকে ফের বাদের তালিকায় ফেলে দেওয়া হয়েছে। এমন খবরই এখন ভারতীয় ক্রিকেটের অলিন্দে ঘুরে বেড়াচ্ছে।২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে তাঁর জায়গা হয়নি।

```

২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে ছিলেন চাহাল। কিন্তু একটা ম্যাচেও খেলার সুযোগ পাননি তারকা স্পিনার। সেমিফাইনালে হেরে বিদায় নিয়েছিল ভারতীয় দল। তার পর থেকেই জাতীয় দলে অনিয়মিত হয়ে পড়েছেন রিস্টস্পিনার। দিন কয়েক আগেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও সে ভাবে ভালো পারফর্ম করতে পারেননি যুজি। পাঁচ ম্যাচে মাত্র পাঁচটি উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু বিশ্বকাপ এবং এশিয়া কাপ থেকে বাদ পড়ার পরে যুজি নিজেকে প্রমাণ করতে মুখিয়ে রয়েছেন। তার জন্য তাঁর কাউন্টি খেলতে যাওয়া।

রবিবার টস জিতে যুজির দল কেন্ট প্রথমে ব্যাটিং নেয়। প্রথম দিনই তারা ৪ উইকেট হারিয়ে ৩৮৭ রান করে ফেলেছিল। তবে সোমবার কেন্ট আর মাত্র ৫৯ রান যোগ করতে পারে। তার মধ্যেই তাদের বাকি ৬ উইকেট পড়ে যায়। মোট ৪৪৬ রানে কেন্ট অলআউট হয়ে যায়। কেন্টের হয়ে সর্বোচ্চ রান করেছেন জ্যাক ক্রাউলি। তিনি ১৫৩ বলে ১৫৮ রানের দুরন্ত একটি ইনিংস খেলেছেন। তাঁর ইনিংস সাজানো ছিল ১৮টি চার এবং তিনটি ছক্কায়।রান তাড়া করতে নেমে নাটিংহ্যামশায়ার ২১৯ রানে ৮ উইকেট হারিয়ে বসে রয়েছে।

```

এর মধ্যে তিন উইকেট নিয়েছেন যুজি। লিন্ডন জেমসকে (১ রান) বোল্ড করা ছাড়াও ম্যাথিউ মন্টগোমারি (১৬) এবং ক্যালভিন হ্যারিসনকেও (১৫) আউট করেছেন যুজবেন্দ্র চাহাল। নাটিহ্যামশায়ারের হয়ে দলের অধিনায়ক স্টিভেন মুলানি সর্বোচ্চ ৮৬ রান করেছেন। ৬২ করেছে জো ক্লার্ক। কেন্টের হয়ে যুজি ছাড়াও অ্যারন নিজ্জার ৩ উইকেট নিয়েছেন।

সব মিলিয়ে, নিজেকে রীতিমত প্রমাণ করছেন ভারতের এই লেগ স্পিনার।