সব শর্তে রাজি:২৫ রুমের প্রাসাদ,ব্যক্তিগত বিমানসহ আরও যা পাচ্ছেন নেইমার,শুনলে চমকে যাবেন !

পিএসজি ছেড়ে সৌদি লিগের দল আল-হিলালে পাড়ি জমিয়েছেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার। বার্সেলোনায় যাওয়ার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত সৌদি আরবের লোভনীয় চুক্তি উপেক্ষা করতে পারেননি ৩১ বছর বয়সী নেইমার। ২ বছরের চুক্তিতে আল-হিলালে যোগ দিয়েছেন তিনি।গত ফেব্রুয়ারিতে ইনজুরিতে পড়ার পর পিএসজির হয়ে কোনো প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ না খেলেই বিদায় নিতে হলো নেইমারকে। ক্লাবটির নতুন কোচ লুইস এনরিকের পরিকল্পনায় নেই নেইমারের নাম। অন্যদিকে নেইমারও লিগ ওয়ানের চ্যাম্পিয়নদের ডেরা ছাড়তে মুখিয়ে ছিলেন।

বার্সেলোনায় যোগ দিতে চান এমন গুঞ্জনের মধ্যেই সৌদি আরবের ক্লাব থেকে প্রস্তাব এলে ৯০ মিলিয়ন ইউরো ট্রান্সফার ফি’র বিনিময়ে পিএসজি ছাড়েন তিনি। নতুন ক্লাবে পিএসজির চেয়ে ছয়গুণ বেশি বেতন পাবেন নেইমার।প্রতি বছরে ১০০ মিলিয়ন ইউরো বা ১১৯৩ কোটি ৬৪ লাখ টাকারও বেশি বেতন পাবেন নেইমার। বেতন ছাড়াও তিনি যেসব সুবিধা পাবেন তা জানলে চোখ কপালে উঠতে বাধ্য।সৌদি আরবে বাস করার জন্য ২৫ বেডরুমের প্রাসাদোপম বাড়ি পাচ্ছেন নেইমার। যেখানে থাকছে ৪০/১০ মিটারের একটি সুমিং পুল এবং ক্লান্তি দূর করার জন্য তিনটি বাষ্পঘর। নেইমার ও তার পরিবারের দেখাশোনার জন্য সার্বক্ষনিক ৫জন কর্মী তো থাকছেনই।

```

নতুন ক্লাবে যোগ দিয়ে নেইমার পাচ্ছেন তিনটি বিলাসবহুল গাড়ি। একটি করে বেন্টলি কন্টিনেন্টাল জিটি, অ্যাস্টন মার্টিন ডিবিএক্স এবং ল্যাম্বোর্গিনি হুরাকান গাড়ি পাচ্ছেন তিনি। গাড়িগুলো চালানোর জন্য সার্বক্ষনিক একজন ড্রাইভারও দিচ্ছেন নেইমারের নতুন ক্লাব।ছুটির দিনে বা অন্যান্য সময়ে বিভিন্ন রেস্তোরাঁ ও হোটেলে নেইমার যদি কোনো সেবা নেন তবে তার খরচও নেইমারকে নিজের পকেট থেকে গুনতে হচ্ছে না। ক্লাবের সদরদপ্তরে খরচের বিল পাটিয়ে দিলেই তা পরিশোধ করে দেবে ক্লাব।

আল-হিলালে যোগ দেওয়ার সময় নেইমার শর্ত দিয়েছিলেন, তাকে চলাফেরার জন্য একটি ব্যক্তিগত বিমান দিতে হবে। সেই চাহিদাও পূরণ করেছে আল হিলাল। তাকে ব্যক্তিগত জেট বিমান দিচ্ছে ক্লাবটি। সৌদি লিগে বেতনের বাইরেও বড় অঙ্কের বোনাস পাবেন নেইমার। নেইমারের খেলা কোনো ম্যাচে আল-হিলাল জয় পেলেই নেইমারের অ্যাকাউন্টে বোনাস হিসেবে প্রতি ম্যাচের জন্য জমা হবে ৮০ হাজার ইউরো বা ৯৫ লাখ ৪৭ হাজার টাকা।

```

আল হিলালে নেইমারকে নিয়ে আসার অন্যতম কারণ দেশটির পরিচিতি বাড়ানো। সৌদি আরবে পর্যটক টানতেও কাজ করবেন নেইমার। তাই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সৌদি আরবের প্রতিনিধিত্ব করে কোনো পোস্ট বা স্টোরি দিলেও বোনাস পাবেন নেইমার। প্রতিটি পোস্ট বা স্টোরির জন্য এই ব্রাজিলিয়ানকে ৫ লাখ ইউরো বা ৫ কোটি ৯৬ লাখ টাকা করে দেবে সৌদি আরব।