“কটা উইকেট পেলাম তার উপর বোলিংয়ের বিচার করি না, আমার যেটা আসল..” বড় মন্তব্য সিরাজের !

বিশ্বকাপের সাতটি ম্যাচে লাগাতার জয় এসেছে ভারতীয় দলের এবং এই মুহূর্তে তারা রীতিমতো একটা চ্যাম্পিয়ন দলের মতোই পারফরম্যান্স করছে যা দেখে বিশ্ব ক্রিকেট এখন এটা মনে করছে যে হ্যাঁ হয়তো এরকমটা হতেই পারে এই বিশ্বকাপ ভারতই জিতবে। আর এই সবকিছু সম্ভব হয়েছে ভারতীয় বোলারদের দুর্দান্ত বোলিংয়ের জন্য, ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা প্রত্যেক ম্যাচে ভালো ব্যাটিং করেছে তবে ভারতীয় বোলাররা যেভাবে বিপক্ষ দলকে কম রানের মধ্যে আটকে রেখেছে প্রত্যেক ম্যাচে তার রীতিমতো প্রশংসাযোগ্য আর ভারতীয় বোলিংয়ের অন্যতম তারকা মোঃ সিরাজ যিনি কালকেও শ্রীলংকার বিরুদ্ধে দুর্দান্ত বোলিং করেছেন।

ক্রিকেট বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন ভারতীয় পেস বোলার মহম্মদ সিরাজ। এদিনের ম্যাচে ৭ ওভার বল করে ১৬ রান দিয়ে তিন উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। ম্যাচের পরে সিরাজ বলেছেন, গত ২-৩ ম্যাচে তাঁর ফর্ম ভালো ছিল না। তিনি বলেছেন যে তিনি তাঁর পারফরম্যান্স মূল্যায়ন করেন উইকেট সংখ্যার ভিত্তিতে নয়, ছন্দ থাকার ভিত্তিতে। বোলার সিরাজ বলেন, তিনি কোন এলাকায় বল করছেন, সেটা তার জন্য বেশি গুরুত্বপূর্ণ।শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ৩০২ রানের জয়ের পর মহম্মদ সিরাজ বলেছিলেন, ‘উইকেট নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং এতে কোন সন্দেহ নেই। কিন্তু শেষ ২-৩ ম্যাচে আমার ছন্দ ভালো ছিল না, কখনও আমি ভালো বোলিং করছিলাম কখনও কখনও নয়। আমি নিজে কত উইকেট নেব তার উপর আমি ক্রিকেটের বিচার করি না।’

```

তিনি আরো বলেন, ‘এটা নির্ভর করে আমার ছন্দের উপর, আমি কোথায় বোলিং করছি। আমি ভালো বল করতে পেরেছি এবং আপনি নিশ্চয়ই সুইং দেখেছেন। এতে আমি খুবই খুশি। এবং আমি এই গতিকে আরও বজায় রাখতে চাই ।’যখন মহম্মদ সিরাজের কথা হয় এবং তাঁর সেরা পারফরম্যান্সের কথা ওঠে তখন শ্রীলঙ্কার কথা ওঠে। বর্তমানে সিরাজ শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দারুণ পারফরেন্স করেছেন। মাত্র দেড় মাস আগে, তিনি তাঁর দুর্দান্ত দক্ষতা দেখিয়েছিলেন এবং এশিয়া কাপের ফাইনালে ছয় উইকেট নিয়ে শ্রীলঙ্কাকে আত্মসমর্পণ করতে বাধ্য করেছিলেন।পারফরম্যান্সের দিক থেকে শ্রীলঙ্কা মহম্মদ সিরাজের প্রিয় দল।

সিরাজের মোট উইকেট শিকারের মধ্যে ১৯টি অর্থাৎ প্রায় ৩০ শতাংশই রয়েছে শ্রীলঙ্কার ব্যাটসম্যানদের। মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে তিনি তিনটি উইকেট নিয়ে ভারতের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। সিরাজ এখনও পর্যন্ত ৩৭টি ওয়ানডেতে ৬৩টি উইকেট নিয়েছেন। এর মধ্যে, তিনি ৩৬ বার (৫৭%) ওপেনার এবং ওয়ান ডাউন ব্যাটসম্যানদের আউট করেছেন।ম্যাচের কথা বললে, ব্যাটিংয়ে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের পর মহম্মদ শামি ও মহম্মদ সিরাজের ঝড়ে পুরো শ্রীলঙ্কা দল ভেসে যায়।

```

৩৫৮ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৫৫ রানে অলআউট হয়ে যায় শ্রীলঙ্কার পুরো দল। মহম্মদ শামি নেন পাঁচ উইকেট, আর মহম্মদ সিরাজ নেন তিন উইকেট। ইনিংসের প্রথম বলেই ভারতকে প্রথম সাফল্য এনে দেন জসপ্রীত বুমরাহ।এর আগে বিরাট কোহলি, শুভমন গিল ও শ্রেয়স আইয়ারের ৮০ রানের বেশি ইনিংসের ভিত্তিতে শ্রীলঙ্কার বোলারদের গুঁড়িয়ে দিয়ে পাহাড়ের মতো ৩৫৭ রান করেছিল ভারত। বিশ্বকাপে এটি এখন পর্যন্ত ভারতের দ্বিতীয় বৃহত্তম জয়।

সব মিলিয়ে ভারতীয় দল যে ধরনের পারফরম্যান্স করছে তা রীতিমত প্রশংসাযোগ্য এবং বিশ্বকাপ জেতার লক্ষ্যে টিম ইন্ডিয়া এগিয়ে যাচ্ছে এটা বলাই যায়। গ্রুপ লীগের পরবর্তী ম্যাচে ভারতীয় দল দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হবে আগামী পাঁচ তারিখে কলকাতার ইডেন গার্ডেন্স স্টেডিয়ামে।