ATM-এ কার্ড ঢোকালেই বেরিয়ে আসবে সোনা! মিলবে ভারতের এই জায়গায়, ঠিকানা জেনে নিন

ডিজিটাল পেমেন্ট এসে যাওয়ায় অনেকেই আগের তুলনায় এটিএম-এ কম যান। এমন পরিস্থিতিতে এটিএম নিয়ে আর সেভাবে কারও মাথা ব্যাথা নেই। কিন্তু যদি বলি ‘গোল্ড এটিএম’? অবাক হলেন তো? আসলে হায়দরাবাদের এমনই এক অভিনব এটিএম সবার নজর কেড়েছে।গহনা প্রস্তুতকারক গোল্ডসিক্কার এই এটিএম। এর জন্য ওপেনকিউব নামে এক প্রযুক্তি স্টার্টআপ-এর সঙ্গে হাত মিলিয়েছে তারা। আর তাদের মাথা থেকেই বেরিয়েছে ‘বিশ্বের প্রথম রিয়েল টাইম গোল্ড এটিএম’-এর বুদ্ধি।

সংস্থার কথায়, ‘আমরা গর্বের সঙ্গে জানাচ্ছি, অবশেষে দেশের প্রথম গোল্ড এটিএম চালু করলাম আমরা। এর মাধ্যমে ভারতের স্বর্ণযাত্রার এক অপ্রতিরোধ্য যুগের সূচনা করতে চলেছি।’ নতুন গোল্ড এটিএম-এর উদ্বোধনেরও ছবি শেয়ার করা হয় সোশ্যাল মিডিয়া। পুরো বিষয়টা দেখেই তাজ্জব বনেছেন নেটিজেনরা। কীভাবে কাজ করবে এই গোল্ড এটিএম?১. শুধুমাত্র ‘ভেরিফায়েড গ্রাহক’রাই এই গোল্ড এটিএম থেকে সোনা তুলতে পারবেন। দিন-রাত যে কোনও সময়ে এই পরিষেবা মিলবে।২. ডেবিট-ক্রেডিট কার্ড ছাড়াও প্রিপেইড এবং পোস্ট পেইড স্মার্ট কার্ড ব্যবহার করে এই এটিএম থেকে হলুদ সোনা তোলা যাবে।

৩. সংস্থার প্রথম এটিএমটি তাদের হেড অফিসেই বসানো হচ্ছে। বেগমপেটের অশোকা রঘুপতি চেম্বার্স-এ। আগামিদিনে শহরের নানা প্রান্তে এমন গোল্ড এটিএম বসানোর পরিকল্পনা তাদের। এর পাশাপাশি গ্রামাঞ্চলেও এই এটিএম পরিষেবা পৌঁছে দিতে চাইছে সংস্থা।৪. দাম? নির্মাতারা জানিয়েছেন, সোনার ‘লাইভ’ দাম অনুযায়ীই দাম নির্ধারিত হবে। মানে ধরুন কোনও দিন সকালে সোনা ৫০ হাজার টাকা প্রতি ১০ গ্রাম দেখে এটিএম-এ গেলেন। এদিকে আপনি ২ ঘণ্টা পর যাওয়ায় তখন দাম ১০০-২০০ টাকা বেড়ে বা কমে গিয়েছে। সেক্ষেত্রে সেই রেটেই আপনি সোনা পাবেন।০.৫ গ্রাম থেকে শুরু করে ১০০ গ্রাম পর্যন্ত সোনা কেনার সুযোগ পাবেন। ২৪ ক্যারাটের।

৫. গোল্ডসিক্কার ভাইস প্রেসিডেন্ট জানালেন, প্রতিটি এটিএম-এ ৫ কেজি করে সোনা ধরবে। তার মোট দাম ২-৩ কোটি টাকা। এটিএম থেকে কয়েনের আকারে বিভিন্ন ভরের সোনা বের হবে। আর কার্ডে পে করার সময়ে আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে তার দাম কাটা হবে। ০.৫ গ্রাম, ১ গ্রাম, ২ গ্রাম, ৫ গ্রাম, ১০ গ্রাম, ২০ গ্রাম, ৫০ গ্রাম এবং ১০০ গ্রাম সোনা কেনার অপশন পাবেন গ্রাহকরা।

৬. নিরাপত্তার জন্য প্রতিটি এটিএম মেশিনেই ক্যামেরা থাকবে। তাছাড়া চারপাশে সিসিটিভি তো থাকছেই। এছাড়া অ্যালার্ম সিস্টেমও রয়েছে। এছাড়া গ্রাহকদের যে কোনও সমস্যার জন্য একটি কাস্টমার সাপোর্ট টিম-ও রয়েছে।