বিবাহিত যুবকের সঙ্গে প্রেম-বিয়ে, মর্মান্তিক পরিণতি সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীর

বিবাহিত যুবকের প্রেমে পড়ার মর্মান্তিক পরিণতি। বিয়ের কয়েকদিনের মধ্যেই প্রাণ গেল বাংলাদেশের (Bangladesh) মাদারগঞ্জ উপজেলার এক কিশোরীর। মৃতার বাপের বাড়ির অভিযোগ, খুন করা হয়েছে তাদের মেয়েকে। বাংলাদেশের জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা বছর বাইশের সোহাগ। সে বিবাহিত।

তা সত্ত্বেও সারিয়াকান্দি উপজেলার কর্ণিবাড়ি ইউনিয়নের ইন্দুরমারার বাসিন্দা সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী মোরশদার প্রেমে পড়েছিল সোহাগ। ওই ছাত্রীকে মনের কথা জানায় সে। সোহাগের ডাকে সাড়া না দিয়ে পারেনি কিশোরী। প্রণয়ের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে তাঁরা। মোরশদাকে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেয় সোহাগ। সেই কারণে প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ করে।

পরবর্তীতে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয় সোহাগ ও মোরশদা। কয়েকদিন যেতে না যেতেই শুরু অশান্তি। বিয়ের কয়েকদিনের মধ্যেই স্বপ্ন ভঙ্গ হল কিশোরীর। ঘর থেকে উদ্ধার হল দেহ। মোরশদার বাবা সালেক আকন্দের অভিযোগ, যৌতুকের কারণেই তাঁর মেয়েকে খুন করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই এবিষয়ে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃতার পরিবারের সদস্যরা।

মাদারগঞ্জ থানার ওসি মাহবুবুল হক জানান, যৌতুকের জন্য মেয়েটিকে নির্যাতন করা হত। তাকে খুন করা হয়েছে বলেই দাবি পরিবারের। মাদারগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।এই অদ্ভুত ঘটনাটি ঘটেছে বাংলাদেশে। বাচ্চা মেয়েটির স্বপ্ন ভাঙলো বিয়ে করার সাথে সাথেই।

Stay on top of news.