পাকিস্তানকে তার ঘরের মাটিতে দুরমুশ করলো ইংল্যান্ড!লজ্জার হার পাকিস্তানের!

অনেক বছর পর পাকিস্তানের মাটিতে টেস্ট সিরিজ খেলতে গেছে ইংল্যান্ডের দল, কিন্তু সিরিজের প্রথম ম্যাচে যে এরকম পরিস্থিতি হবে সেটা কেউ কল্পনা করতে পারেনি। যাতে পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা রান করতে পারে সেই জন্য একদমই জঘন্য ধরনের একটি পিচ বানিয়ে দেয় পাকিস্তান। আর সেই কারণে এই ম্যাচে রানের বন্যা বয়ে যায়, সারাবিশ্বে এই ম্যাচের সমালোচনা হয়েছে কিন্তু তার সত্বেও নিজেদের নোংরা প্ল্যানে সফল হতে পারল না পাকিস্তান, শেষ পর্যন্ত পাকিস্তানকে লেজে গোবরে করে দিল ইংল্যান্ড।

যে প্ল্যান পাকিস্তান করেছিল নিজেদের প্লেয়ারদের রান করানোর জন্য বিশেষত বাবর আজমকে বিশ্বের সেরা প্রমাণ করার জন্য তাকে দিয়ে সেঞ্চুরি করানোর জন্য একটা ব্যাটিং পিচ তৈরি করে পাকিস্তান, ব্যাটিং পিচে বাবর আজম সেঞ্চুরি পেলেও সেই প্ল্যান যেন তাদের ওপর ঠিক উল্টো ভাবে পড়ে গেল। ম্যাচের প্রথম দিনেই ৫০০ রান করে ফেলে ইংল্যান্ড এবং এই ম্যাচ থেকে রীতিমত পাকিস্তান কে ছিটকে দেয়, প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ড শেষ পর্যন্ত ৬৫৯ রান করে এবং পাকিস্তান কে ব্যাট করতে পাঠায়। ইংল্যান্ডের এই পাহাড় সমান রানের সামনে রীতিমত মুখ থুবড়ে পড়ে পাকিস্তান।

প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের তরফ থেকে চারজন ক্রিকেটার সেঞ্চুরি করে যার মধ্যে রয়েছেন জ্যাক ক্রলী, বেন ডাকেট, অলি পোপ এবং হ্যারি ব্রুক। ইংল্যান্ডের এই ৬৫৯ রানের জবাবে পাকিস্তানের দল 579 রানে থেমে যায়। বেশ কিছুটা এগিয়ে থাকে ইংল্যান্ড এবং দ্বিতীয় ইনিংসে তারা খুব দ্রুততার সাথে ২৬৪ রান করে declare দেয়। জেতার জন্য পাকিস্তানের লক্ষ্য ছিল ৩৪৩ রান, কিন্তু তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে পাকিস্তানের ব্যাটিং।

প্রথম ইনিংসে পাকিস্তানের তরফ থেকে সেঞ্চুরি করেছিলেন বাবর আজম, ইমাম উল হক এবং আব্দুল্লাহ শফিক। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে তারা সবাই চরম ব্যর্থ হয় এবং একের পর এক উইকেট হারাতে থাকে। শেষ পর্যন্ত ইংল্যান্ডের 343 রানের টার্গেট পর্যন্ত পৌঁছতে পারেনি পাকিস্তান। মাত্র ২৬৮ রানে বান্ডিল হয়ে যায় পাকিস্তান এবং 74 রানে এই ম্যাচ জিতে নয় ইংল্যান্ডের দল।

এই ম্যাচ কে কেন্দ্র করে বেশ কিছু সমালোচনা হয়েছে বিশেষ করে যে ধরনের পিচ দেওয়া হয়েছিল এই ম্যাচে সেটি মোটেও টেস্ট ম্যাচ খেলার যোগ্য নয়। এই ধরনের পিচ যেখানে ৬০০ রান খুব সহজেই হয়ে যাচ্ছে, এই ধরনের পিচ মোটেও পছন্দ হয়নি ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ থেকে শুরু করে প্রাক্তন ক্রিকেটার এবং ক্রিকেট ভক্তদের।