নিজের ১৫৫ কিমি গতির রেকর্ড নিজেই ভাঙলেন উমরান মালিক! দ্রুততম বল করে নতুন রেকর্ড!

ভারতীয় ক্রিকেট দলের তরুণ ফাস্ট বোলার উমরান মালিক যখন থেকে আন্তর্জাতিক স্তরে ক্রিকেট খেলতে শুরু করেছেন, গতির ক্ষেত্রে তিনি ক্রমাগত নতুন রেকর্ড গড়ছেন। দ্রুততম বল নিক্ষেপের ক্ষেত্রে এখন নিজের রেকর্ড নিজেই ভেঙে দিলেন তিনি। উমরান মালিক সম্প্রতি শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ভারতের হয়ে দ্রুততম বল করার রেকর্ড গড়ে ফেললেন এবং এখন তিনি নিজের রেকর্ড ভেঙে নতুন মাইলস্টোন তৈরি করে এগিয়ে গেলেন।

গুয়াহাটি ওয়ানডেতে ভারত বনাম শ্রীলঙ্কার সিরিজের প্রথম একদিনের ম্যাচে ইতিহাস গড়েছেন উমরান মালিক। ম্যাচে তিনি ঘণ্টায় ১৫৬ কিলোমিটার গতিতে বল করলেন। এটি ভারতের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কোনও ভারতীয় বোলারের করা সবচেয়ে দ্রুততম বল। এদিন শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে উমরান মালিক ঘণ্টায় ১৫৬ কিলোমিটার গতিতে বল করলেন।উমরান মালিক সম্প্রতি মুম্বইয়ে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে খেলা প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে প্রতি ঘণ্টায় ১৫৫ কিমি বেগে বল করে একটি নতুন রেকর্ড গড়েছিলেন। তিনি ভারতের দ্রুততম বোলার হয়ে উঠেছিলেন। এর আগে এই রেকর্ডটি ছিল জসপ্রীত বুমরাহর নামে। কিন্তু উমরান মালিক তাঁর রেকর্ডটি সেই ম্যাচে ভেঙে দিয়েছিলেন।

আসলে, উমরান মালিক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ভারতের হয়ে দ্রুততম বোলার হয়ে উঠেছেন। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ১৪তম ওভারে নিজের গতি দিয়ে ব্যাটসম্যানদের বিপর্যস্ত করেছেন উমরান মালিক। তিনি ১৪ তম ওভারের প্রথম বলটি ১৪৭ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় শুরু করেছিলেন। উমরানের দ্বিতীয় বল এবং তৃতীয় বলের গতি ছিল ১৫১ কিমি প্রতি ঘণ্টা কিন্তু তার চতুর্থ বলটি সব রেকর্ড ভেঙে দেয়। উমরানের গতি পরিমাপ করা হয়েছিল ঘণ্টায় ১৫৬ কিলোমিটার। এভাবেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ভারতের হয়ে দ্রুততম বল নিক্ষেপের রেকর্ড গড়েন তিনি। এর আগেও এই রেকর্ডটি ছিল উমরানের নামেই। যিনি শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ১৫৫ কিলোমিটার গতিতে বল করেছিলেন।

এবার নিজের গড়া সেই রেকর্ডই ভেঙে দিলেন উমরান মালিক। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে গুয়াহাটি ওয়ানডেতে, তিনি ঘণ্টায় ১৫৬ কিলোমিটার বেগে বল করেছিলেন এবং একটি নতুন রেকর্ড তৈরি করেছিলেন। এখন ভারতীয় বোলারদের কেউই তাঁর ধারে কাছেও নেই। জসপ্রীত বুমরাহ রয়েছেন দুই নম্বরে যিনি ১৫৩.৩৬ কিলোমিটার বেগে বল করেছেন। এছাড়াও মহম্মদ শামিও ১৫৩.৩ এবং নভদীপ সাইনি ১৫২.৮৫ কিমি প্রতি ঘণ্টা গতিতে বল করেছিলেন। যদিও উমরান মালিক এখন এসবের চেয়ে অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছেন।

গুয়াহাটি ওডিআইতে, ভারতীয় দল প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৩৭৩/৭ রান করেছিল। ভারতের হয়ে দুর্দান্ত সেঞ্চুরির ইনিংস খেলেছিলেন বিরাট কোহলি। একই সঙ্গে হাফ সেঞ্চুরি করেন রোহিত শর্মা ও শুভমন গিল। বিরাট কোহলি ৮৭ বলে ১১৩ রান করেন এবং এটি ছিল তাঁর ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৪৫তম সেঞ্চুরি।