“ক্ষমতা থাকলে ওকে চুরি করে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলাতাম ” ভারতীয় বোলারকে নিয়ে বললেন হেডেন !

নিজের সময়ের অত্যন্ত অ্যাটাকিং একজন ক্রিকেটার ছিলেন ম্যাথু হেডেন, লম্বা চওড়া দৈত্যের মতো শরীর, তার দিকে বল করতে আসতেও যেন হাত-পা কাঁপতো বোলার এর কারণ তিনি বিশাল বিশাল বড় ছয় মারতেন, আর দাপটের সাথে খেলতেন। গিলক্রিস্ট এর সাথে তার ওপেনিং পার্টনারশিপ আজ পর্যন্ত অনেক ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমির প্রিয় ওপেনিং জুটি। তবে, এবার ভারত থেকে তিনি এমন একজন বোলারকে বেছে নিলেন যাকে তার ক্ষমতায় থাকলে তিনি চুরি করে নিয়ে গিয়ে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলাতেন। এতটাই এই বোলারের পোটেনশিয়াল তিনি দেখছেন।

শ্রীলঙ্কাকে একতরফা ম্যাচে পরাজিত করে ভারতীয় দল জিতে নিয়েছে এশিয়া কাপ। সম্পূর্ণ সিরিজ জুড়ে দাপট দেখিয়েছে ভারতীয় দল এবং বিশ্ব ক্রিকেটে বর্তমানে টিম ইন্ডিয়া একটা শক্তিশালী ফোর্স। আর্থিং ইন্ডিয়া ক্রিকেটারকে নিয়ে এবার বড় মন্তব্য করলেন ম্যাথু হেডেন। তবে এখানে কোন বোলারের কথা তিনি বলছেন? এতক্ষণে নিশ্চয়ই বুঝতে পেরে গেছেন যে কার কথা বলতে চাইছেন অস্ট্রেলিয়ার তারকা ক্রিকেটার ম্যাথু হেডেন। না, শ্রীলংকার বিরুদ্ধে ফাইনালে ইতিহাস গড়া সিরাজের কথা এখানে কিন্তু বলা হচ্ছে না, অবশ্যই সিরাজ একজন ভালো বলার তবে এখানে হেডেন অন্য একজনের কথা বলছেন। ভারতের বোলিং এটাক এর অন্যতম সেরা বোলার জাসপ্রিত বুমরা, তার কথা বলছেন হেডেন। ম্যাথু হেডেন বলছেন তার যদি ক্ষমতায় থাকত তাহলে বুমরাকে তিনি অস্ট্রেলিয়ায় নিয়ে চলে যেতেন এবং অস্ট্রেলিয়া দলের হয়ে খেলাতেন এতটাই অসাধারণ বোলার সে। ভারতীয় দলে এই বোলারের প্রত্যাবর্তন বিশ্বকাপে যে ভারতীয় দলকে অতিরিক্ত বুস্ট দেবে একথাও তিনি স্পষ্টভাবেই জানিয়েছেন।

```

এর পাশাপাশি কে এল রাহুল এবং শ্রেয়স আইয়ার এর মত ক্রিকেটাররা যেভাবে ভারতীয় দলে প্রত্যাবর্তন করেছে তাতে ভারতীয় দল আগের থেকে অনেক বেশি শক্তিশালী এমনটাই মনে করছে অনেক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা আর সেই কথায় আরো একবার জানিয়েছেন ম্যাথু হেডেন নিজেও। ম্যাথু হেডেন বর্তমানে পাকিস্তানের কোচ কিন্তু তার সত্ত্বেও তিনি ভারতীয় বোলারের এমনভাবে প্রশংসা করেছেন যা রীতিমতো উল্লেখযোগ্য।

পাশাপাশি শিখর ধাওয়ানের মতো ক্রিকেটারদের এশিয়া কাপের দল থেকে বাইরে রাখা হয়েছে যার স্পষ্ট মানে যে বিশ্বকাপ থেকেও তাকে বাইরে রাখা হবে।। এই সিদ্ধান্ত আসার সাথেই তিনি বেশ কিছুটা আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন। তার কারণ শিখর ধাওয়ান খুব একটা যে খারাপ ফর্মে আছে তা নয়, আইপিএলেও তিনি ভালো ব্যাটিং করেছেন। দেশের হয়ে 17 টি সেঞ্চুরি রয়েছে তার। এটা মানা যেতেই পারতো যে এটি শিখর ধাওয়ানের শেষ বিশ্বকাপ এবং তাকে খেলানোই যেত কারণ তিনি যথেষ্ট ভালো ফর্মে রয়েছেন এবং এক্সপেরিয়েন্স প্লেয়ার এবং বিশ্বকাপের মত টুর্নামেন্ট সেখানে এক্সপেরিয়েন্স প্লেয়ারের দরকার রয়েছে অবশ্যই।

```

শুধু শিখর ধাওয়ান নয় এশিয়া কাপের দল থেকে বাদ পড়তে হয়েছে ভারতের লেগ স্পিনার চ্যাহাল কে। এই ঘোষণা আসতেই চ্যাহাল ইনস্টাগ্রামে নিজের দুঃখ প্রকাশ করেছেন এবং জানিয়েছেন যে সূর্যের উদয় আবার হবে।।

আগামী শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে ভারতীয় দল যদিও রোহিত শর্মা এবং বিরাট কোহলিকে ওই ম্যাচে দেখা যাবে না তবে গুরুত্বপূর্ণভাবে রাহুলের অধিনায়ক করতে এই ম্যাচে থাকছে ভারতের সম্পূর্ণ বোলিং অ্যাটাক যেখানে সিরাজ বুমরা সবাইকে দেখা যাবে।