অনবদ্য বোলিং: জীবনের প্রথম আন্তর্জাতিক উইকেট পেয়ে ইতিহাস বাংলার মুকেশের : ভিডিও

বিরাট কোহলির অনবদ্য সেঞ্চুরিতে ইতিমধ্যে এই ম্যাচে অনেকটা এগিয়ে গিয়েছে ভারত, আরে ভাই যার জন্য অপেক্ষা করছিল সারা পশ্চিমবঙ্গ সেই মুকেশ কুমার অনবদ্য বোলিং করেছেন এবং অবশেষে তিনি তুলে নিয়েছেন এক দারুন উইকেট। প্রথম ম্যাচের মতো দ্বিতীয় ম্যাচে কিন্তু ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যানরা আত্মসমর্পণ করেনি বরং তারা লড়াই চালিয়ে গেছে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্যাপ্টেন ব্র্যাথওয়েট ১৭০ বলে অর্ধশত রান পূরণ করেছেন যা স্পষ্ট করে দেয় যে কতটা লড়াই করেছে তারা। যার দৌলাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম উইকেটের জন্য একটা বড় পার্টনারশিপ করে তোলে, জাদেজা সেই জুটি ভেঙে সেই আর তারপরেই মুকেশ।

৭১ রানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম উইকেট পড়ার পরে আবার পুনরায় পার্টনারশিপ শুরু করে দেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্যাপ্টেন ব্র্যাথওয়েট এবং তার সাথে যোগ্য সঙ্গ দেন মেকেঞ্জি, ১০০ রানের গণ্ডি পেরিয়ে চলে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের দল যা দেখে মনে হচ্ছিল যে ভালো রকম একটা লড়াই তারা দিতে চলেছে ভারতকে এবং দ্বিতীয় ইনিংসে পুনরায় ভারতকে ব্যাট করতে হবে, যদিও মুকেশের চিন্তাধারায় অন্য কিছু ছিল, অফ স্ট্যাম্পের বাইরে করলেন বল এবং পড়ার পরে বলটি একটু এঙ্গেল পাল্টালো। আর সাথে সাথেই উইকেট।

```

ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই ভালো পার্টনারশিপ টি ভেঙে ভারতকে বেশ সুবিধাজনক জায়গায় এনে দিলেন বাংলার মুকেশ। ভারতীয় দলের জায়গা পেয়ে তিনি নিজের মাকে ফোন করে সেই সুখবর দিয়েছিলেন তার ভিডিও ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে আর এবার উইকেট তুলে নেওয়ার সাথে সাথেই সেই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেল, দেখে নিন সেই ভিডিও ::

যদিও বর্তমানে ভারতীয় দল যে খুব একটা ভালো জায়গায় রয়েছে তা বলা মুশকিল তার কারণ ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম টেস্ট থেকে শিক্ষা গ্রহণ করেছে এবং দ্বিতীয় টেস্টে তারা যথেষ্ট লড়াই করছে যাতে ভারতের ওই টোটাল এর কাছাকাছি যাওয়া যায় যাতে অন্তত তারা লড়াইয়ের মধ্যে টিকে থাকে।

```

ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে ভারতীয় দলের বোলিং লাইন আপের মোকাবিলা করা খুব একটা সহজ হবে না অন্তত নিচের সারির ব্যাটসম্যানদের পক্ষে তো মোটেই নয়। তবে ভারতীয় দলের পক্ষে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে যাবে আশ্বিনের উইকেট পাওয়া।