পাকিস্তান ম্যাচ হারছে দেখেই চিটিং করে খেলা বন্ধ করে ২য় ম্যাচ ড্র করল পাকিস্তানি আম্পিয়ার!

চরম বিতর্কের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট। আর তার প্রধান কারণ হলো এক পাকিস্তানি আম্পিয়ার। শচীনের পায়ে বল লাগলেই আউট দিয়ে দিত সেই বিখ্যাত আম্পায়ার। অনেক ক্ষেত্রে ভারতের বিরুদ্ধে বিতর্কিত সিদ্ধান্ত দিয়েছেন।তার নাম আলিম দার। পাকিস্তান নিউজিল্যান্ডের প্রথম ম্যাচটি যেভাবে শেষ করেছিলেন সেই একইভাবে দ্বিতীয় ম্যাচ শেষ করে চরম বিতর্ক তৈরি করেছেন।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে ঘরের মাটিতে হোয়াইট ওয়াশ হওয়ার পরে রীতিমতো লজ্জার পরিস্থিতি পাকিস্তান ক্রিকেটে। তার উপরে বিতর্ক তৈরি করেছে পাকিস্তানি আম্পায়ার। টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করে নিউজিল্যান্ড প্রথম ইনিংসে ৪৪৯ রান করে। সেঞ্চুরি করেন ডেভন কনওয়ে। এর জবাবে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান ৪০৮ রানে বান্ডিল হয়ে যায়। প্রথম ইনিংসের লিড হাতে নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে নিউজিল্যান্ড, ২৭৭ রান পর্যন্ত পৌঁছে তারা ডিক্লেয়ার করে দেয়।

পাকিস্তানের জয়ের জন্য চতুর্থ ইনিংসে টার্গেট দাঁড়ায় 319 রান। হাতে ছিল একটা পুরো দিন। কিন্তু এই রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে পাকিস্তানের ব্যাটিং। পরিস্থিতি এরকম দাঁড়ায় যে মাত্র একটি উইকেট হাতে ছিল পাকিস্তানের, সেরকম জায়গায় দাঁড়িয়ে তখনো দরকার ছিল ১৫ রানের। আর তখনই চরম কান্ড ঘটিয়ে দেন পাকিস্তানের আম্পিয়ার।

নিউজিল্যান্ড পাকিস্তানের প্রথম ম্যাচে নিউজিল্যান্ড যখন দুর্দান্ত ব্যাটিং করছিল এবং আর কয়েকবার ব্যাট করলেই ম্যাচ জিতে যেত সেই মুহূর্তে আলো কম আছে বলে তিনি খেলা বন্ধ করে দিয়েছিলেন এবং দ্বিতীয় ম্যাচেও তিনি একই কাণ্ড করলেন এবং তিনি বললেন যে লাইটের অভাব রয়েছে সুতরাং এই ম্যাচটিও বন্ধ করে দেওয়া হোক।

খেলা বন্ধ হয়ে যেতেই ম্যাচটি ড্র হিসেবে ঘোষণা করে দেওয়া হয় এবং পাকিস্তান কোন রকম একটি পরাজয় থেকে রক্ষা পায়। এর ফলে ২ টা থেকে শুরু করে সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে গুলিতে পাকিস্তান ক্রিকেট এবং অ্যাম্পিয়ার কে নিয়ে কটুক্তি করতে দেখা যায় সারা বিশ্বের ক্রিকেট ভক্তদের এমনকি পাকিস্তানের ক্রিকেট ভক্তরাও এই আম্পায়ার কে গালিগালাজ করেছেন যে একটা খেলার রেজাল্ট হতে দিচ্ছে না।।