শ্রীলঙ্কার ব্যাটিংকে ধ্বংস করা সিরাজকে নিয়ে যা বললেন শ্রীলঙ্কার কোচ!স্যালুট নেটিজেনদের

এশিয়া কাপের ফাইনাল ম্যাচের শ্রীলঙ্কাকে পরাজিত করে ইতিহাস গড়েছে ভারতীয় দল। কোন ফাইনালে আজ পর্যন্ত কোন দল মাত্র ৫০ রানে বান্ডিল হয়নি আর ভারতের এই অনবদ্য রেকর্ডের পিছনে যার অবদান সব থেকে বেশি তিনি হলেন মোহাম্মদ সিরাজ, যিনি একা হাতে ছটি উইকেট নিয়ে শ্রীলঙ্কার ব্যাটিং লাইনআপ কে একাই শেষ করে দিয়েছেন। আর এবার সিরাজকে নিয়ে মুখ খুললেন শ্রীলংকার কোচ।

সিরাজের এই অনবদ্য বোলিংয়ের জন্যই রীতিমতো দিশেহারা হয়ে যায় শ্রীলঙ্কার ব্যাটসম্যানরা এবং ভারতীয় দল একটা এত সহজ জয় লাভ করতে পারে যেখানে ৬ ওভারের মধ্যে জিতে যায় টিম ইন্ডিয়া। যখন শ্রীলংকার একের পর এক ব্যাটসম্যান প্যাভিলিয়নে ফিরে চলে যাচ্ছিলেন তখন বারংবার দেখানো হচ্ছিল শ্রীলংকার কোচ কে যে তিনি বর্তমানে কি ভাবছেন তবে সেই মুহূর্তে শ্রীলংকার কোচকে রীতিমতো হতবঙ্গ দেখাচ্ছিল যে তিনি কি করবেন বা কি বলবেন সেই বিষয়ে হয়তো তিনি নিজেই বুঝে উঠতে পারছেন না কারণ ম্যাচের পরিস্থিতি এত দ্রুত বদলে যায়। তবে ম্যাচের পরে তাকে জিজ্ঞেস করা হয় যে ভারতীয় বোলার মোহাম্মদ সিরাজের বোলিং নিয়ে তিনি কি বলবেন।

```

শ্রীলঙ্কার কোচ বলেন, মোহাম্মদ সিরাজের বোলিং এক কথায় অনবদ্ধ ছিল এবং শ্রীলঙ্কার ব্যাটসম্যানদের খুব বেশি দোষ তিনি এক্ষেত্রে দিতে চান না কারণ শ্রীলংকার ব্যাটসম্যানদের কিছু বুঝে ওঠার আগেই ভারতীয় বোলাররা বিশেষত সিরাজ যে অসাধারণ বোলিং করেছে তা প্রশংসারযোগ্য। সব মিলিয়ে একা মোহাম্মদ সিরাজ এর কাছেই পরাজিত হয়েছে শ্রীলংকার দল এমনটা মেনেই নিলেন শ্রীলঙ্কার হেড কোচ ক্রিস সিলভারউড।

পাশাপাশি ৬ উইকেট নিয়ে ক্যারিয়ারের সর্বশ্রেষ্ঠ পারফরম্যান্স উপহার দিলেন মোঃ সিরাজ, জীবনের সেরা performance দেওয়ার যে দিনটি তিনি বেছে নিয়েছেন তাও বেশ উল্লেখযোগ্য এরকম একটা ফাইনাল ম্যাচে এই দুরন্ত পারফরম্যান্স লম্বা সময় পর্যন্ত মনে রাখবে ভারতীয় ক্রিকেট ভক্তরা। ভারতীয় ক্রিকেট দলের কোন বোলার আজ পর্যন্ত ওয়ানডে ক্রিকেটে সাতটি উইকেট নেয়নি তবে আজকে সিরাজের কাছে সেই সুযোগ ছিল কারণ শেষ পর্যন্ত তখনো দুটো উইকেট বাকি ছিল তখন সিরাজের মধ্যে ৬ উইকেট নেওয়া হয়ে গেছে। কিন্তু কে এল রাহুল একটি ক্যাচ নিতে না গিয়ে স্লিপ কে ছেড়ে দেন ।

```

আর সেই ক্যাচ স্লিপের সামনে পড়ে যায়, সেই ক্যাচ অবশ্যই স্লিপের ছিল কিন্তু অনেক সময় উইকেট কিপাররাও এই catch গুলো নিয়ে নেয়, রাহুল তার আগে একটা এরকম স্লিপের ক্যাচ ইতিমধ্যেই গ্লাভস বন্দী করেছে আজকের ম্যাচে। এক্ষেত্রেও যদি সেটা করতেন তাহলে এক বিরাট রেকর্ড করে ফেলতেন সিরাজ।

সবমিলিয়ে সিরাজের এই অনবদ্য বোলিং ভারতীয় দলকে রীতিমতো আশা যোগাবে যে বিশ্বকাপে কিভাবে দুরন্ত পারফরমেন্স করে ঘরের মাটিতে বিশ্বকাপ জিততে পারে টিম ইন্ডিয়া।